channel 24

সর্বশেষ

  • চাঁদপুরে পানীয় তৈরির নকল কারাখানা সিলগালা

  • ইয়েমেনে সৌদি জোটের বিমান হামলায় নিহত ১০

  • বিশ্বকাপের প্রস্তুতিতে পাকিস্তানের বিপক্ষে আজ মাঠে নামছে বাংলাদেশ

  • পাম ডি' অর জিতলেন নির্মাতা বং জুন হো

  • বান্দরবানে আজ আধাবেলা হরতাল

  • সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের পাশে হিউম্যান সেফটি ফাউন্ডেশন

  • বারো লক্ষ কোটি টাকারও বেশি বিকল্প বাজেট প্রস্তাব অর্থনীতি সমিতির

  • অপহরণের তিনদিন পর আওয়ামী লীগ নেতার মরদেহ উদ্ধার

  • ছাত্রলীগের বাঁধায় ডাকসুর ভিপির ইফতার মাহফিল পণ্ড

  • থাইল্যান্ডে জেমি ডে শিষ্যদের অনুশীলন

  • কাল বিশ্বকাপের আনুষ্ঠানিকতা শুরু করছে বাংলাদেশ

  • বিশ্বকাপে পাকিস্তান দলের পরিসংখ্যান

  • বিশ্বকাপে মাহমুদুল্লাহ হতে পারে ঠান্ডা মাথার ফিনিশার

  • এহসানুল হক সেজানের বিশ্বকাপ স্মৃতি

  • বিশ্বকাপ শুরুর আগেই ক্রিকেটারদের ইনজুরির মিছিল

হাত-পা বেঁধে কর্মচারীকে চোখ ঝলসে দিয়েছেন মালিক!

হাত-পা বেঁধে কর্মচারীকে চোখ ঝলসে দিয়েছেন মালিক!

মধ্যযুগীয়, নির্মম, বিভৎস। কোনো বিশেষণই যথেষ্ট হয় না। হাত-পা বেঁধে, চুন দিয়ে চোখ ঝলসে দেয়া হয়েছে এক তরুণের। অপরাধ, টাকা চুরির মামলায় মিথ্যা সাক্ষ্য দিতে রাজি না হওয়া। এমন ঘটনা ঘটেছে, সিলেটের দক্ষিণ সুরমায়। তিনি আর কখনো দৃষ্টিশক্তি ফিরে পাবেন কি না, সে বিষয়ে সন্দিহান চিকিৎসকরাও। উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে ঢাকায় পাঠানোর চেষ্টা চলছে।

এ নির্মম অত্যাচারের শিকার জাহেদ আহমদ। তাকে হাত-পা বেঁধে, চুন দিয়ে চোখ ঝলসে দেয়য়া হয়েছে। আর এ ঝলসে দেয়ার অভিযোগ, তিনি প্রতিষ্টানে কাজ করেন সে প্রতিষ্ঠানের মালিক ছানু মিয়ার বিরুদ্ধে। 

২২ বছরের তরুণ জাহেদ আহমদ। বাড়ি সিলেটের গোলাপগঞ্জের বাঘা ইউনিয়নের দৌলতপুর গ্রামে। ৪ ভাই ৫ বোনের সংসারে তিনি দ্বিতীয়। সংসারের একমাত্র উপার্জনক্ষম ব্যক্তি। বছরখানেক আগে চাকরি নেন সিলেট শহরের মাহি মানি এক্সচেঞ্জ নামে একটি প্রতিষ্ঠানে। 

প্রতিষ্ঠান মালিক রায়ুব আলী ওরফে ছানু মিয়া। শনিবার (৯ ফেব্রুয়ারি) তার বাড়িতে জাহেদকে ডেকে পাঠান। এ সময় তার চুরি যাওয়া টাকা উদ্ধারের মামলায় মিথ্যা সাক্ষ্য দিতে জাহেদের ওপর চাপ দেন তিনি। কিন্তু জাহেদ এতে রাজি না হওয়ায় হাত পা বেঁধে, চোখে চুন দিয়ে দু চোখ ঝলসে দেয়া হয়। এ সময় ছানু মিয়ার সঙ্গে ছিলেন আরও দুজন।

জাহেদের পৃথিবী এখন শুধুই অন্ধকার। স্বজনরাও বাকরুদ্ধ।

এসওএমসির পরিচালক ব্রিগেডিয়ার একে মাহবুল হক জানান, জাহেদের দু'চোখ পুরোপুরি ঝলসে গেছে।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. মাহবুবুল আলম জানান, ঘটনার পর মূল অভিযুক্ত ছানু মিয়াকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। অভিযুক্ত বাকি দুজনকেও গ্রেপ্তারের চেষ্টা 

নির্মম এই ঘটনার প্রতিবাদে ক্ষুব্ধ স্থানীয়রা। জড়িত সবার দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছেন তারা।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

দেশ 24 খবর