channel 24

সর্বশেষ

  • বিচারপতিদের শপথ ভিডিও কনফারেন্সিংয়ে; ফুল কোর্ট সভা বাতিল

  • লিবিয়ায় নিহত ২৬ বাংলাদেশির মধ্যে ২৩ জনের পরিচয় মিলেছে

  • 'আদালতের অনুমতি ছাড়া মোরশেদ খানের বিদেশ যাওয়া আইন সিদ্ধ হয়নি'

  • ছেলে সন্তানের বাবা হয়েছেন আশরাফুল

  • শ্বেতাঙ্গ পুলিশের নৃশংসতায় ৯ রাজ্যে বিক্ষোভ; ৪ পুলিশ অফিসার বরখাস্ত

  • মাটিতে পুঁতে রাখার ১১ মাস পর ব্যবসায়ীর মরদেহ উদ্ধার

  • মাঠে গড়ানোর অপেক্ষায় ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ ও সিরি আ

  • সোমবার থেকে চলবে গণপরিবহন, রোববার নৌযান

  • জন্মের মাত্র একদিনের মাথায় প্রাণঘাতী করোনার সাথে যুদ্ধ

  • লিবিয়ায় ২৬ বাংলাদেশিসহ ৩০ জনকে গুলি করে হত্যা, আহত ১১

  • কর্মস্থলে যোগ দিতে চট্টগ্রামে ফিরছে মানুষজন

  • পার্বত্য জেলাগুলোতে সেনাবাহিনীর খাদ্য সহায়তা অব্যাহত

  • করোনা চিকিৎসায় চট্টগ্রামের বেসরকারি হাসপাতালগুলো পুরোপুরি তৎপর নয়

  • কুষ্টিয়ায় করোনা রোগীদের সেবায় একদল স্বেচ্ছাসেবী

  • চট্টগ্রামে নতুন করে ২‘শ ২৯ জন করোনায় আক্রান্ত

বাংলা ভাষার সঠিক চর্চা নিয়ে ভাষা সৈনিক মুসার আক্ষেপ

বাংলা ভাষার সঠিক চর্চা নিয়ে ভাষা সৈনিক মুসার আক্ষেপ

মায়ের ভাষার অধিকার আদায়ে যারা রাজপথে নেমেছিলেন, জীবনের ঝুঁকি নিয়ে স্লোগানে মুখরিত করেছিলেন রাজপথ।

তাদের অধিকাংশই আজ প্রয়াত। তবে হাতেগোনা যে কজন ভাষা সৈনিক বেঁচে আছেন তাদেরই একজন ব্রাহ্মণবাড়িয়ার মুহাম্মদ মুসা।

এই প্রবীণের প্রশ্ন, যে ভাষার জন্য অকাতরে প্রাণ দিয়েছিল বাংলার দামাল ছেলেরা সে ভাষার চর্চা কতটুকু হচ্ছে?

ভাষা সৈনিক মুহাম্মদ মুসা। পেশাগত জীবনে শিক্ষকতার পাশাপাশি করছেন সাংবাদিকতাও। বয়সের ভারে চলার গতি শ্লথ হলেও এখনও কাজ করছেন শিক্ষার উন্নয়নে।

বায়ান্নতে ভাষা আন্দোলনের সময় নেতৃত্ব দিয়েছিলেন সামনে থেকেই। সেই সময়ের স্মৃতিচারণ করতে গিয়ে বললেন, উর্দুকে রাষ্ট্রভাষা করার ঘোষণা পর দেশের অন্যান্য স্থানের মতো ব্রাহ্মণবাড়িয়াতেও সর্বাত্মক ধর্মঘট পালিত হয়।

তবে তার আক্ষেপ, যে রক্তের বিনিময়ে বাংলা ভাষার অধিকার আদায় করা হলো সেই ভাষার সঠিক চর্চা হচ্ছে না। নানা বিদেশি ভাষার আগ্রাসনে বাংলা তার চরিত্র হারাচ্ছে বলেও মনে করেন তিনি।

নতুন প্রজন্মের মতে, মাতৃভাষার সুষ্ঠু ব্যবহার এবং এর প্রতি শ্রদ্ধাশীল হতে হবে সবাইকে। প্রয়োজনের তাগিদে ইংরেজি শিখতে হলেও তা যেন কোন অবস্থাতেই বাংলাকে দখল না করে।

নাগরিক সমাজের প্রতিনিধিরা মনে করেন, দেশের বিভিন্ন স্থানে যেসব ভাষা সৈনিক এখনও বেঁচে আছেন তাদের খুঁজে বের করা এবং তাদের কেউ অসহায় অবস্থায় থাকলে তাঁদের পাশে দাঁড়ানো রাষ্ট্রের দায়িত্ব।

ভাষা সৈনিক মর্যাদা নিশ্চিতের পাশাপাশি উচ্চ আদালতের নির্দেশনা মেনে সর্বস্তরে বাংলা ভাষার সঠিক চর্চারও তাগিদ দিয়েছেন সবাই।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

দেশ 24 খবর