channel 24

সর্বশেষ

  • দেশে গণতন্ত্র নেই, অঘোষিত বাকশাল চলছে: মির্জা ফখরুল

  • দুদকের অভিযোগ মিথ্যা, ষড়যন্ত্রের অংশ: মাহী বি চৌধুরী

  • ডেঙ্গু প্রতিরোধে মাস্টারপ্ল্যান হচ্ছে: স্থানীয় সরকার মন্ত্রী

  • সুন্দরবনের ১০ কিলোমিটার সংকটাপন্ন এলাকার মধ্যে...

  • সব স্থাপনা সম্পর্কে মঙ্গলবারের মধ্যে জানতে চেয়েছেন হাইকোর্ট

  • কুমিল্লায় রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় ন্যাপ সভাপতি মোজাফফর আহমদের দাফন

  • সাফ অনূর্ধ্ব ১৫ চ্যাম্পিয়নশিপ: বাংলাদেশ ৭-১ শ্রীলঙ্কা...

  • আল আমিন রহমানের হ্যাটট্রিক

  • হত্যার রাজনীতির পরিণতি কখনোই শুভ হয় না: ওবায়দুল কাদের

  • রোহিঙ্গা ঢলের দুই বছর; ৫ দফা দাবিতে ক্যাম্পে বিক্ষোভ

  • দক্ষ জনশক্তি বিদেশ পাঠাতে হবে, দালালের খপ্পরে পড়ে...

  • কেউ যেন প্রতারণার শিকার না হন, খেয়াল রাখতে হবে: প্রধানমন্ত্রী

  • ডেঙ্গুতে মাদারীপুরে গৃহবধূ ও ঢাকা মেডিকেলে একজনের মৃত্যু...

  • ২৪ ঘণ্টায় হাসপাতালে ভর্তি ১ হাজার ২৯৯ জন: স্বাস্থ্য অধিদপ্তর

  • কাবিননামায় 'কুমারী' শব্দ ব্যবহার করা যাবে না: হাইকোর্টের রায়

  • গোপন ভিডিও: জামালপুরের ডিসি আহমেদ কবীরকে ওএসডি...

  • নতুন জেলা প্রশাসক হিসেবে এনামুল হককে নিয়োগ

  • খুলনার সোনাডাঙ্গায় তরুণীকে গণধর্ষণ; থানায় মামলা, গ্রেপ্তার ২

  • সাংবাদিক শিমুল হত্যা: চার্জ গঠনের নতুন তারিখ পয়লা সেপ্টেম্বর

লাশের গায়ে লেখা 'ধর্ষকের পরিণতি ইহাই, ধর্ষকরা সাবধান'

লাশের গায়ে লেখা 'ধর্ষকের পরিণতি ইহাই, ধর্ষকরা সাবধান'

ঝালকাঠির রাজাপুরে গলায় চিরকুট ঝোলানো আরও এক ধর্ষণ মামলার এক আসামির গুলিবিদ্ধ মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

পুলিশ জানায়, দুপুরে আঙ্গারিয়া গ্রামের ইটভাটার পাশে রাকিবের মরদেহ পড়ে থাকতে দেখে পুলিশে খবর দেয় স্থানীয়রা। এ সময় নিহতের গলায় একটি চিরকুটে লেখা ছিল 'ধর্ষকের পরিণতি ইহাই, ধর্ষকরা সাবধান'।

নিহত রাকিব গেলো ১২ জানুয়ারি পিরোজপুরের ভান্ডারিয়ায় এক মাদ্রাসা ছাত্রীকে ধর্ষণ মামলার আসামি।

গত ২৬ জানুয়ারি ঝালকাঠির কাঁঠালিয়ায় সজল জমাদ্দার নামে এক নিহত যুবকের গলায়ও এরকম চিরকুট লেখা ছিল। তিনিও ধর্ষণ মামলার আসামি ছিলেন।
 
পরিবার বলছে, রাকিব মোল্লা সাত দিন ধরে নিখোঁজ ছিলেন। রাকিব মোল্লার বাড়ি পিরোজপুরের ভান্ডারিয়া উপজেলার ভিটাবাড়িয়া গ্রামে। তিনি বেসরকারি একটি বিশ্ববিদ্যালয়ে আইন বিভাগের শিক্ষার্থী ছিলেন।

জানা যায়, ওই মাদ্রাসাছাত্রী বাড়ি থেকে তার নানাবাড়ি যাচ্ছিল। উপজেলার নদমূলা গ্রামের রাস্তা দিয়ে যাওয়ার সময় রাকিব মোল্লা ও সজল জমাদ্দার মেয়েটির মুখ চেপে ধরে জোর করে পাশের একটি পানের বরজে নিয়ে যান। এরপর তাঁরা পালাক্রমে মেয়েটিকে ধর্ষণ করেন। রাকিব মেয়েটিকে ধর্ষণ করার সময় সজল ভিডিও করেন।

এ ঘটনায় মেয়েটির বাবা বাদী হয়ে রাকিব মোল্লা ও সজল জমাদ্দারকে আসামি করে স্থানীয় থানায় মামলা করেন। এ ঘটনার পর রাকিব মোল্লা ও সজল জমাদ্দার এলাকা থেকে ঢাকা চলে যান।

গত শুক্রবার সন্ধ্যায় রাকিব মোল্লাকে ঢাকার সাভারের নবীনগর এলাকা থেকে কয়েকজন ব্যক্তি মাইক্রোবাসে তুলে নিয়ে যায়। এক সপ্তাহ নিখোঁজ থাকার পর আজ দুপুরে তাঁর লাশ পাওয়া যায়।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

দেশ 24 খবর