channel 24

সর্বশেষ

  • আর্নল্ড শোয়ার্জনেগারকে ফ্লায়িং কিক!

  • ভৌতিক গল্পের ছবি 'খামোসী'র দৃশ্যধারন হয়েছে ২৫ দিনে

  • ২০ রমজানের মধ্যে পাটকল শ্রমিকদের সব বকেয়া পরিশোধের দাবি

  • 'সনিক দ্য হেজহগ'-এর ট্রেইলার প্রকাশ

  • জোট অ্যাকর্ডকে আরো ২৮১ দিন থাকার অনুমতি

  • বিশ্বকাপে রানবন্যা বয়ে যাবার আগাম বার্তা

  • গুগল ডুডলে ওমর খৈয়াম

  • কান চলচ্চিত্র উৎসবে আলোকচিত্রীরা

  • সন্তানকে নিয়ে কান চলচ্চিত্র উৎসব ভবনে ঢুকতে মাকে বাঁধা

  • ভার্জিন মোজিতো তৈরির রেসিপি

  • ঊর্ধ্বমুখী জ্বালানি তেলের বাজার

  • বান্দরবানে আওয়ামী লীগ কর্মীকে গুলি করে হত্যা

  • ইনশাআল্লাহ্ এবার আমি দ্বিতীয় ইনিংস খেলবো: কাদের

  • নরসিংদীর বাবুরহাটে ঈদের কেনাবেচা

  • দেশ থেকে অভিবাসনের ৮০ শতাংশই ২০ জেলার দখলে

পাবনায় আ. লীগের দুপক্ষের সংঘর্ষে নিহত ২

পাবনায় আ. লীগের দুপক্ষের সংঘর্ষে নিহত ২

আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে পাবনা সদর উপজেলার আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধ হয়ে ২ জন নিহত হয়েছেন। এ সময় গুলিবিদ্ধ হয়ে অন্তত ১২ জন আহত হয়েছেন।

সোমবার (৩ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় উপজেলার ভাঁড়ারা ইউনিয়নের ভাঁড়াড়া গ্রামে সুলতান ও আক্কাস গ্রুপের মধ্যে এই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন উপজেলার ভাঁড়ারা ইউনিয়নের ভাউডাঙ্গা গ্রামের মৃত গহের খাঁর ছেলে লস্কর খাঁ (৬৫) এবং ভাঁড়াড়া গ্রামের মৃত আহেদ আলীর ছেলে মালেক শেখ (৪৭)। নিহতরা দুজনই সুলতান গ্রুপের বলে পুলিশ জানায়।

পাবনা থানার পরিদর্শক (তদন্ত) জালাল উদ্দিন জানান, এলাকার আধিপত্য নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে সুলতান গ্রুপ ও আক্কাস গ্রুপের মধ্যে বিরোধ চলছিল। সন্ধ্যায় উভয় পক্ষের সমর্থকদের মধ্যে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে সংঘর্ষ বেধে যায়। সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধ হয়ে লস্কর খাঁ ও মালেক শেখ নিহত হন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, সংঘর্ষের সময় দুপক্ষই আগ্নেয়াস্ত্র ব্যবহার করে। এসময় এলাকা রণক্ষেত্রে পরিণত হয়। এলাকায় গ্রামবাসীদের মধ্যে চরম আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে।

এদিকে ভাঁড়ারা ইউপি চেয়ারম্যান আওয়ামী লীগ নেতা আবু সাইদ খান জানান, আক্কাস গ্রুপের লোকজন আওয়ামী লীগ সমর্থক হলেও সুলতান ও তার লোকজন কখনই আওয়ামী লীগ করেনি। তারা জাসদ করে। সুতরাং সংঘর্ষে আওয়ামী লীগের দুগ্রুপ বলা যাবে না।

সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সোহেল হাসান শাহিন জানান, আক্কাস ভাড়ারা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি এবং সুলতান কিছুদিন আগে আওয়ামী লীগে তার কর্মী সমর্থকদের নিয়ে যোগ দিয়েছে।

পাবনা সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ইবনে মিজান জানান, পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। এখন পরিস্থিতি স্বাভাবিক।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

দেশ 24 খবর