channel 24

সর্বশেষ

  • ২৮ মে জাপান যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী

  • ফরিদপুরের মেধাবী দুই শিক্ষার্থীকে প্রতি বছর বৃত্তি দেবে হা-মিম গ্রুপ

  • বগুড়ায় ডাকসুর ভিপি নুরের ওপর হামলা

  • বাংলাদেশ দলে ধারাবাহিকতার প্রতীক মুশফিক

  • প্রিয় ডটকমের সহকারী সম্পাদক ফাগুনের মরদেহ উদ্ধারের ঘটনায় মামলা

  • বিশ্বকাপে চ্যাম্পিয়ন ভারতের পরিসংখ্যান

  • অন্যায়ের সঙ্গে আপস করেননি বলেই খালেদা জিয়া কারাগারে বন্দি: ফখরুল

  • বিশ্বকাপে বাংলাদেশের শুভেচ্ছাদূত আব্দুর রাজ্জাক

  • বিশ্বকাপে সাকিব হতে পারে প্রতিপক্ষের জন্য ভয়ঙ্কর: রিকি পন্টিং

  • চিকিৎসা শেষে দেশে ফিরলেন রাষ্ট্রপতি

  • বৃষ্টি বাধায় বাংলাদেশ-পাকিস্তান প্রস্তুতি ম্যাচ পরিত্যক্ত

  • 'আদর্শিক ও রাজনৈতিকভাবে জঙ্গিবাদকে মোকাবিলা করতে হবে'

  • শূন্য থেকে শুরু; এখন ২শ' বিঘা জমিতে গড়া বাগানের মালিক আলফাজুল

  • কক্সাবাজারে দুর্বৃত্তের ছুরিকাঘাতে শিক্ষার্থী নিহত

  • কক্সবাজারে জেলেদের সহায়তার দাবিতে মানববন্ধন

পদ্মার ভাঙনে দিশেহারা হরিরামপুর ইউনিয়নের মানুষ

পদ্মার ভাঙনে দিশেহারা হরিরামপুর ইউনিয়নের মানুষ

আগ্রাসী পদ্মার ভাঙনে দিশেহারা মানিকগঞ্জের হরিরামপুর ইউনিয়নের মানুষ। এরইমধ্যে বিলীন হয়ে গেছে বসতভিটা, হাটবাজারসহ, ফসলি জমি। ক্ষতিগ্রস্ত পরিবার ছুটছে নিরাপদ আশ্রয়ের সন্ধানে। এদিকে, যমুনার ক্রমাগত ভাঙনে মানচিত্র থেকে বিলীন হতে বসেছে টাঙ্গাইল সদরের মাহমুদনগর ইউনিয়ন। যদিও, বালুর বস্তা ফেলে ভাঙন ঠেকানোর চেষ্টা করছে পানি উন্নয়ন বোর্ড।


আগ্রাসী পদ্মার করাল গ্রাসে প্রতিনিয়তই বিলীন হচ্ছে গ্রামের পর গ্রাম। গত দুই মাসে মানিকগঞ্জের হরিরামপুর উপজেলার গোপীনাথপুর ও রামকৃষ্ণপুর ইউনিয়নের দুই শতাধিক ঘরবাড়ি, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, বাজার ও ১০ হেক্টর আবাদি জমি চলে গেছে নদীগর্ভে। ভাঙনের কবল থেকে বাঁচতে অন্যত্র চলে যেতে বাধ্য হচ্ছেন স্থানীয়রা। আবার অনেকে ভিটেমাটি হারিয়ে নদীর চরে অন্যের জায়গায় মানবেতর দিন কাটাচ্ছে।

জেলা প্রশাসক বলছেন, ভাঙন কবলিতদের পুনর্বাসনে কাজ করছেন তারা। ভাঙন রোধে বাঁধ নির্মাণেরও আশ্বাস দিয়েছেন তিনি।

এদিকে, যমুনার ক্রমাগত ভাঙনে মানচিত্র থেকে হারিয়ে যেতে বসেছে টাঙ্গাইল সদরের মাহমুদ নগর ইউনিয়ন। ২২ টি গ্রাম নিয়ে গঠিত এই ইউনিয়নের অধিকাংশই চলে গেছে নদীগর্ভে।

স্থানীয়রা বলছেন, যমুনার ভাঙন প্রতি বছরই তাদের জন্য অভিশাপ হয়ে আসে। তবুও মেলে না স্থায়ী সমাধান। ভাঙন ঠেকাতে বালুর বস্তা ফেলছে পানি উন্নয়ন বোর্ড। আর ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে গাইড বাঁধ নির্মানের আশ্বাস দিয়েছেন স্থানীয় সংসদ সদস্য। যমুনার ভাঙনে এরইমধ্যে বসতভিটা হারিয়েছে মাহমুদ নগর ইউনিয়নের শতাধিক পরিবার।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

দেশ 24 খবর