channel 24

সর্বশেষ

  • দুর্নীতি মামলায় দণ্ডপ্রাপ্ত বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য...

  • ব্যারিস্টার রফিকুল ইসলাম মিয়া নিজ বাসা থেকে গ্রেপ্তার

  • পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত কোনো ধরনের উন্নয়ন প্রকল্পের অনুমোদন...

  • ঘোষণা, ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন ও ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রমের ওপর...

  • নিষেধাজ্ঞা দিয়ে সরকারকে নির্বাচন কমিশনের চিঠি

  • রিটার্নিং কর্মকর্তাদের সাথে সভা না করতে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগসহ...

  • সরকারের সংশ্লিষ্ট বিভাগকে চিঠি দেবে কমিশন: ইসি সচিব...

  • নির্বাচন কমিশন স্বাধীন প্রতিষ্ঠান, কারও চাপে সিদ্ধান্ত নেয় না

  • শেখ হাসিনা ২টি ও বাকিরা একটি আসনে মনোনয়ন পাচ্ছেন...

  • কক্সবাজারে বদি ও টাঙ্গাইলের ঘাটাইলে আমানুর রহমান...

  • আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পাচ্ছেন না: ওবায়দুল কাদের...

  • ২৪/২৫ নভেম্বর নাগাদ মহাজোটের প্রার্থিতা ঘোষণা

  • সম্পদের তথ্য গোপন: বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য...

  • ব্যারিস্টার রফিকুল ইসলাম মিয়ার ৩ বছরের কারাদণ্ড

  • এবার সব দলের অংশগ্রহণে অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচন হবে...

  • কোনো পর্যবেক্ষণ সংস্থা দায়িত্ব পালনে অনিয়ম করলে ব্যবস্থা: ইসি সচিব

  • তৃতীয় দিনের মতো চলছে বিএনপির মনোনয়নপ্রত্যাশীদের সাক্ষাৎকার

  • গুলশানে জাপার মনোনয়নপ্রত্যাশীদের সাক্ষাৎকার অনুষ্ঠান চলছে...

  • জাতীয় পার্টি যে জোটে তারাই ক্ষমতায় আসবে: রুহুল আমিন হাওলাদার

নকল বীজে ক্ষতিগ্রস্ত বরগুনার সহস্রাধিক কৃষক

নকল বীজে ক্ষতিগ্রস্ত বরগুনার সহস্রাধিক কৃষক

বরগুনার তালতলী উপজেলায় আমন বীজের প্যাকেটে বোরো বীজ বিক্রির অভিযোগ উঠেছে, একমাত্র সরকারি ডিলার আবুল হোসেনের বিরুদ্ধে। এতে হুমকির মুখে পড়েছে পাঁচশোর একর জমির ফসল। এ ঘটনা প্রকাশের পর আত্মগোপন করেছেন অভিযুক্ত ডিলার। আর অভিযুক্ত আবুল হোসেনের ডিলারশপ বাতিলসহ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণের আশ্বাস স্থানীয় প্রশাসনের।

মাঠের পর মাঠ আমন বীজ লাগিয়েছিলেন বরগুনার তালতলী উপজেলার কৃষকরা। কিন্তু কিছুদিন পরে দেখতে পান নির্ধারিত সময়ের অনেক আগেই ধান বেরিয়ে এসেছে।

চলতি মৌসুমে সরকার নির্ধারিত একমাত্র ডিলার আবুল হোসেনের কাছ থেকে বীজ কেনেন কৃষকরা। তাদের দাবি, প্যাকেটের গায়ে ধানের জাত, দাম ও তারিখ পরিবর্তন করে ব্রি ২৮ জাতের ধান ব্রি ২৩ দেখিয়ে বেশি দামে বিক্রি করেছেন ডিলার। এছাড়া মেয়াদ উত্তীর্ণ বোরো বীজ নতুন করে প্যাকেটজাত করে বিক্রিরও অভিযোগ করেছেন কৃষকরা।

যে ধান আসার কথা অগ্রহায়ণ পৌষ মাসে তা এখনই ফলতে শুরু করেছে। এতে প্রকৃত ফলন থেকে বঞ্চিত হবেন কৃষক। রোপণকৃত চারা উত্তোলন করে পুনরায় চাষাবাদ করতে হবে তাদের। এতে তারা একদিকে বীজ সংকট অন্যদিকে লোকসানের আশঙ্কায় দিশেহারা।

ঘটনা জানাজানি হয়ে গেলে পালিয়ে যান ডিলার আবুল হোসেন। তবে নকল বীজ বিক্রির বিষয়টি অস্বীকার করেছেন তার ভাই, যিনি তার দোকানের ম্যানেজার।

তবে প্রাথমিকভাবে নকল বীজ বিক্রির প্রমাণ মিলেছে বলে জানিয়েছে কৃষি সম্প্রসারণ বিভাগ। আর অভিযুক্তর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার আশ্বাস দিয়েছে স্থানীয় প্রশাসন। স্থানীয়রা বলছেন, নকল বীজে বরগুনার তালতলি উপজেলার সহস্রাধিক কৃষক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

দেশ 24 খবর