channel 24

সর্বশেষ

  • ব্যাংক কমিশন গঠনের প্রস্তাবকে নেতিবাচক বলছেন বিশ্লেষকরা

  • বিশ্বকাপের সর্বশেষ পয়েন্ট টেবিল

  • রামসাগর জাতীয় উদ্যানের তত্ত্বাবধায়কের বাড়িতে দুদকের অভিযান

  • পায়রায় কয়লা সরবরাহে ইন্দোনেশীয় কোম্পানির সঙ্গে চুক্তি সই

  • উপজেলা নির্বাচনের শেষ দফার ভোট শুরু

  • মধ্যপ্রাচ্যে আরো ১ হাজার সেনা পাঠাবে যুক্তরাষ্ট্র

  • মৌলভীবাজারের মনু ও ধলাই নদী পাড়ের মানুষের অনিশ্চিত জীবন

  • সঠিক মান বজায় রেখে লবণ উৎপাদনের আহ্বান বিএসটিআই'র

  • আদালতে মোহাম্মদ মুরসির মৃত্যুতে প্রশ্নবিদ্ধ মিশরের বিচারব্যবস্থা

  • উপজেলা নির্বাচনের শেষ দফার ভোট আজ

  • কর্মবিরতি প্রত্যাহার করলো কলকাতায় আন্দোলনরত চিকিৎসকরা

  • গোপালগঞ্জে প্রতিবন্ধী নারী ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেপ্তার ১

  • বিশ্বকাপে টানা দ্বিতীয় সেঞ্চুরি করলেন সাকিব

  • মাগুরায় আ. লীগের দুইগ্রুপের সংঘর্ষে আহত ২০

  • গ্রিসগামী অভিবাসীবোঝাই নৌকাডুবিতে ৮ জনের প্রাণহানি

ঠাকুরগাঁওয়ের ধর্মপুরে গুচ্ছগ্রামটি ভেঙে যাওয়ার শঙ্কা

ঠাকুরগাঁওয়ের ধর্মপুরে গুচ্ছগ্রামটি ভেঙে যাওয়ার শঙ্কা

ঠাকুরগাঁওয়ের ধর্মপুরে ভূমিহীনদের জন্য নির্মিত গুচ্ছগ্রামটি যেকোনো সময় ভেঙে যাওয়ার শঙ্কা দেখা দিয়েছে। বাসিন্দাদের অভিযোগ, নদীতে ড্রেজার দিয়ে বালু তুলে, সেই বালুর উপরেই নির্মাণ করা হয়েছে টিনের ঘর। ফলে একটু বৃষ্টিতেই ধুয়ে যাচ্ছে ভিটের বালু। এদিকে গুচ্ছগ্রামের স্থান নির্বাচন নিয়ে, পাল্টাপাল্টি অভিযোগ রয়েছে স্থানীয় প্রশাসন ও পানি উন্নয়ন বোর্ডের। তীব্র গরমে নাকাল জীবন।

আর বৃষ্ট হলেই ধুয়ে যায় ভিটের বালু। এমনকি, ঘর হস্তান্তরে টাকা নেয়ারও অভিযোগ করেছেন অনেকে। বন্যা হলেই ঘর তলিয়ে যাওয়াসহ প্রাণহানীর আশঙ্কা করছেন স্থানীয় জনপ্রতিনিধিসহ নাগরিক সমাজ। এই গুচ্ছগ্রামের নির্মাণের সার্বিক দায়িত্বে থাকা সদ্য বিদায়ী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আসলাম মোল্লা বলছেন, পানি উন্নয়ন বোর্ডকে সাথে নিয়েই স্থান নির্বাচন করা হয়েছে। যদিও, তাঅস্বীকার করে পানি উন্নয়ন বোর্ডের দাবি, গুচ্ছগ্রাম নির্মাণে তাদের কোনো মতামত নেয়া হয়নি।গত ফেব্রুয়রিতে টাঙ্গন নদীর চরে নির্মাণ কাজ শুরু হয় গুচ্ছগ্রামটি। ৫০টি ঘর নির্মাণে ব্যায় হয় ৭৫ লাখ টাকা।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

দেশ 24 খবর