channel 24

সর্বশেষ

  • দুর্নীতি মামলায় দণ্ডপ্রাপ্ত বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য...

  • ব্যারিস্টার রফিকুল ইসলাম মিয়া নিজ বাসা থেকে গ্রেপ্তার

  • পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত কোনো ধরনের উন্নয়ন প্রকল্পের অনুমোদন...

  • ঘোষণা, ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন ও ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রমের ওপর...

  • নিষেধাজ্ঞা দিয়ে সরকারকে নির্বাচন কমিশনের চিঠি

  • রিটার্নিং কর্মকর্তাদের সাথে সভা না করতে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগসহ...

  • সরকারের সংশ্লিষ্ট বিভাগকে চিঠি দেবে কমিশন: ইসি সচিব...

  • নির্বাচন কমিশন স্বাধীন প্রতিষ্ঠান, কারও চাপে সিদ্ধান্ত নেয় না

  • শেখ হাসিনা ২টি ও বাকিরা একটি আসনে মনোনয়ন পাচ্ছেন...

  • কক্সবাজারে বদি ও টাঙ্গাইলের ঘাটাইলে আমানুর রহমান...

  • আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পাচ্ছেন না: ওবায়দুল কাদের...

  • ২৪/২৫ নভেম্বর নাগাদ মহাজোটের প্রার্থিতা ঘোষণা

  • সম্পদের তথ্য গোপন: বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য...

  • ব্যারিস্টার রফিকুল ইসলাম মিয়ার ৩ বছরের কারাদণ্ড

  • এবার সব দলের অংশগ্রহণে অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচন হবে...

  • কোনো পর্যবেক্ষণ সংস্থা দায়িত্ব পালনে অনিয়ম করলে ব্যবস্থা: ইসি সচিব

  • তৃতীয় দিনের মতো চলছে বিএনপির মনোনয়নপ্রত্যাশীদের সাক্ষাৎকার

  • গুলশানে জাপার মনোনয়নপ্রত্যাশীদের সাক্ষাৎকার অনুষ্ঠান চলছে...

  • জাতীয় পার্টি যে জোটে তারাই ক্ষমতায় আসবে: রুহুল আমিন হাওলাদার

২০ দিনেও উদ্ধার হয়নি রংপুরের স্কুলছাত্রী চন্দনা

২০ দিনেও উদ্ধার হয়নি রংপুরের স্কুলছাত্রী চন্দনা

২০ দিন পেরিয়ে গেলেও রংপুরের স্কুলছাত্রী চন্দনা রায় উদ্ধার হয়নি। অভিযুক্ত মিলনের চাচাকে পুলিশ গ্রেপ্তার করলেও পুরো পরিবার গা ঢাকা দিয়েছে। প্রশাসন ও মানবাধিকার কর্মীরা বলছেন, প্রাথমিকভাবে অপহরণের সত্যতা নিশ্চিত হওয়া গেছে। আর স্থানীয়দের আশংকা, চন্দনাকে দ্রুত উদ্ধার করা না গেলে এটিকে ইস্যু করে হিন্দু- মুসলিম সম্প্রীতি নষ্টের চেষ্টা করতে পারে স্বার্থান্বেষী মহল।
পয়লা জুলাই স্কুলে যাওয়ার পথে নিখোঁজ হন, রংপুর সদরের হরকলি ঝারপাড়া গ্রামের দশম শ্রেণীর শিক্ষার্থী চন্দনা রায়। পরিবার খোঁজ নিয়ে জানতে পারে, স্থানীয় মিলন মিয়া বন্ধুদের সহায়তায় চন্দনাকে অপহরণ করেছেন। গ্রামবাসী মিলে মিলনের পরিবারের ওপর চাপ সৃষ্টি করলে তারা মেয়েকে ফিরিয়ে দেয়ার আশ্বাস দেয়।
কিন্তু দুদিন পেরিয়ে গেলেও মেয়েকে ফিরে না পেয়ে, ৩ জুলাই ছয়জনকে আসামি করে মামলা করেন চন্দনার বাবা। স্থানীয় প্রশাসন এবং মানবাধিকার কর্মীরা বলছেন, প্রাথমিক তদন্তে ঘটনার সত্যতা পাওয়া গেছে।
স্থানীয়দের আশংকা, দ্রুত চন্দনাকে উদ্ধার করা না গেলে গত বছর ঠাকুরপাড়ার মতো সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি নষ্টের চেষ্টা করতে স্বার্থান্বেষী মহল। 
ঘটনার পর এলাকা ছেড়ে পালিয়ে গেছে অভিযুক্ত মিলনের পরিবার।  

 

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

দেশ 24 খবর