Print this page

জামিনে বেরিয়ে বাদীকে হুমকি দিচ্ছে দুই শিশু হত্যার আসামিরা

মুক্তিপণের টাকা দিতে না পারায় পৌনে দুবছর আগে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয় কক্সবাজার রামু উপজেলার মোহাম্মদ ফোরকানের দুই শিশু সন্তানকে। কিন্তু দীর্ঘ সময় পার হলেও, হয়নি মামলার কোন অগ্রগতি। এরমধ্যে, যারা গ্রেপ্তার হয়েছিল, তারাও এখন জামিনে। অভিযোগ, এখন মামলা তুলে নিতে ভুক্তভোগি পরিবারকে দেয়া হচ্ছে হুমকি। ভয়ে অসহায় পরিবারটি নিজ বাড়ি ছেড়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছে অন্যত্র।

রামু সদর থেকে প্রায় ২৫ কিলোমিটার দূরে পাহাড়ি এলাকা গর্জনীয়ার বড়বিল। এই গ্রামেই থাকত দোকান কর্মচারি ফোরকানের পরিবার। কিন্তু কেউই এখন এখানে থাকেননা, সন্ত্রাসীদের হুমকিতে পালিয়ে আছেন অন্য জায়গায়।   

ফোরকানের শিশু সন্তান মোহাম্মদ হাসান এবং মোহাম্মদ হোসেনকে অপহরণের পর দুর্বৃত্তরা হত্যা করে ২০১৬ সালের ১৭ জানুয়ারি। এ ঘটনায় স্থানীয় টুইল্লা-সহ ১৬ জনের বিরুদ্ধে মামলা হলে পুলিশ ১২ জনকে আটক করে। তবে সম্প্রতি তাদের ৮ জন জামিনে বেরিয়ে আসে। এরপর থেকে জেল ফেরত ও পলাতক আসামিরা মামলা তুলে নিতে হুমকি দিচ্ছে ফোরকানকে।

হুমকির ঘটনা জানেন স্থানীয়রাও। তাদের দাবী, এই অপরাধী চক্রের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া না হলে আরও বড় ধরনের ঘটনা ঘটাতে পারে তারা। রামু থানার ওসি জানান, এতদিন তিনি ডায়েরীর বিষয়টি জানতেন না। তবে এখন আসামিদের ধরতে বাদীর সহায়তা চেয়েছেন।

শুধু গর্জনীয়া নয়, বাইশারী, ঈদগড় এখন অপহরণকারী চক্রের আশ্রয়স্থলে হিসেবে পরিচিতি পেয়েছে। এখানে প্রায়ই ঘটে অপহরণ ও মুক্তিপণের ঘটনা।