মুক্তিযুদ্ধের ৮ নম্বর সেক্টরের কিছু গল্প

দেনদরবার নয়, কারও দয়া বা দানও নয়, রক্তের বিনিময়ে অর্জিত লাল-সবুজের বিজয় নিশান। মুক্তিকামী বাঙালির সবটুকু অনুভূতি আর আকাশ ছোঁয়া স্বপ্নই এনে দিয়েছে স্বাধীনতার স্বাদ। কিন্তু সেই মাহেন্দ্রক্ষণ একদিনে আসেনি। এ এক অসীম সাহসের ইতিহাস।পাঠক আজ জানবো, মুক্তিযুদ্ধের ৮ নম্বর সেক্টরের কিছু গল্প।

ছাপান্ন হাজার বর্গমাইলে লাল-সবুজের নিশান। একদিনে নয়, তিলে তিলে অর্জিত এই দেশ মাতৃকা। ৯ মাস রক্তক্ষয়ী সংগ্রামে রচিত এক মহাকাব্য।

কিন্তু কেমন ছিলো ৭১-এর সেই বীরত্ব আর অসীম সাহসের ইতিহাস?

পাকিস্তানি হায়েনাদের নারকীয় তাণ্ডবের পরই গর্জে ওঠে বীর বাঙালি। সারা বাংলাকে বেশ কয়েকটি সেক্টরে ভাগ করে পরিচালিত হয় সম্মুখ যুদ্ধ। 

মুক্তিযুদ্ধের সময় কুষ্টিয়া, যশোর, খুলনা ও ফরিদপুরের কিছু অংশ নিয়ে গঠিত হয় ৮ নম্বর সেক্টর। যেখানে প্রথমে নেতৃত্ব দেন, লে. কর্নেল আবু ওসমান চৌধুরী। এরপর এই সেক্টরের হাল ধরেন, মেজর এম এ মনজুর। শহর থেকে গ্রাম-সব জায়গায় গড়ে তোলা হয় দুর্বার প্রতিরোধ।

পরিবারের মায়া আর ভালোবাসা ছেড়ে কেবল মুক্তির নেশাতেই এগিয়ে যান রণক্ষেত্রের এই যোদ্ধা। জানান, জীবনের চেয়ে দেশকেই বড় করে দেখেছেন।

এই সেক্টরে ছিলো, ৭টি সাব-সেক্টর। যেখানে ছোটবড় মিলিয়ে যুদ্ধ হয় অন্তত ২২টি। ৭ ডিসেম্বর পাকসেনারা পালিয়ে গেলে মুক্ত হয় ৮ নম্বর সেক্টর। সময়ের পালাবদলে বদলেছে অনেক কিছুই। তবু....যুদ্ধের সেই দিনগুলি এখনও জ্বলজ্বলে মুক্তিযোদ্ধাদের মনে।

ভাষা আন্দোলন থেকে মুক্তিযুদ্ধ...ধাপে ধাপে শক্তি সঞ্চার করে এগিয়ে চলে বীর বাঙালি। তাইতো বিজয়ের প্রেরণা নিয়েই প্রতিনিয়ত স্বপ্ন দেখে মুক্ত বাতাসে...আকাশ ছোঁয়ার।

Last modified on 12-12-2017 01:54:47 PM

চ্যানেল 24

387 South, Tejgaon I/A
Dhaka-1208, Bangladesh
Email: newsroom@channel24bd.tv
Tel: +8802 550 29724
Fax: +8802 550 19709

Save

Save

Like us on Facebook
Satellite Parameters
Webmail

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save