নড়াইল হাসপাতালের সাপে কাটার ওষুধ নষ্ট হচ্ছে স্টোরেই

হাসপাতালের স্টোরেই নষ্ট হচ্ছে, সাপে কাটা রোগীর চিকিৎসার জন্য সরবরাহ করা ওষুধ। অথচ গত ৫ বছরে একজন সাপে কাটা রোগীরও চিকিৎসা হয়নি, নড়াইল সদর হাসপাতালে। স্থানীয়দের অভিযোগ, এই হাসপাতালে সাপেকাটা কোনো রোগী এলে পাঠিয়ে দেয়া হয় খুলনা বা যশোর। যদিও প্রশিক্ষিত চিকিৎসক না থাকাকে দায়ী করছে, হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

গেল ২৪শে সেপ্টম্বর সাপের কামড়ে মৃত্যু হয়, নড়াইলের বাগডাঙ্গা গ্রামের এক স্কুল শিক্ষকের। এরআগে চিকিৎসার জন্য তাকে নড়াইল সড়র হাসপাতালে নেয়া হলেও, অ্যান্টিভেনম না থাকার অজুহাতে ফেরত পাঠানো হয়।

গত পাঁচ বছরে জেলায় সাপের কামড়ে মারা গেছেন অন্তত ২০ জন। এলাকাবাসীর অভিযোগ, এদের বেশির ভাগেরই মৃত্যু হয়েছে, হাসপাতাল ভর্তি না নেয়ায়।

হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের দাবি, সাপে কাটার ওষুধ না থাকায়, রোগীদের ফেরত পাঠাতে বাধ্য হচ্ছেন তারা।

তবে চ্যানেল টোয়েন্টিফোরের অনুসন্ধানে বেরিয়ে আসে ভিন্নচিত্র। সাপের কামড় থেকে মানুষকে বাঁচাতে সরকার পর্যাপ্ত এন্টিভেনম সরবরাহ করলেও, অযত্নে-অবহেলায় সেগুলো নষ্ট হয়েছে স্টোরেই। হাসপাতালেরই এক হিসাব বলছে, গত ৫ বছরে নষ্ট হয়েছে, প্রায় ৮শ ইনজেকশন।

সিভিল সার্জন অফিসের স্টোর কিপার বলছে, ২০১৬ সাল পর্যন্ত সরবরাহ করা হয় এসব ওষুধ। যেগুলোর সবই মেয়াদ উত্তীর্ণ। বর্তমানে তাদের সংগ্রহে আর কোনো এন্টিভেনম নেই।

আর হাসপাতাল তত্ত্বাবধায়ক বলছেন, প্রশিক্ষিত চিকিৎসক না থাকায়, ইনজেকশন থাকারও দরকার নেই।

তবে ভুক্তভোগীদের চাওয়া সাপের কাটা রোগীর হাসপাতালেই চিকিৎসকার নিশ্চয়তা।


চ্যানেল 24

387 South, Tejgaon I/A
Dhaka-1208, Bangladesh
Email: newsroom@channel24bd.tv
Tel: +8802 550 29724
Fax: +8802 550 19709

Save

Save

Like us on Facebook
Satellite Parameters
Webmail

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save