channel 24

সর্বশেষ

  • ক্রিকেটারদের আন্দোলন অপ্রত্যাশিত: নাজমুল হাসান...

  • ক্রিকেটাররা যখন যা চেয়েছে, সবকিছুই দিয়েছে বিসিবি...

  • ক্রিকেটারদের চাহিদামতোই ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ চলবে...

  • এমন সিদ্ধান্ত আগেই নেয়া হয়েছে...

  • চুক্তিভিত্তিক ক্রিকেটারের সংখ্যা বাংলাদেশেই সর্বোচ্চ

  • মুজিববর্ষ উপলক্ষ্যে আজ থেকে টেলিফোনের নতুন ও...

  • পুনঃসংযোগ ফি সম্পূর্ণ মওকুফ: টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী

  • সীমানা পেরিয়ে বরগুনায় ভারতীয় জেলেদের ইলিশ শিকার; আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর নজরদারি বাড়ানোর দাবি স্থানীয়দের।

  • সড়ক দুর্ঘটনা ঠেকাতে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে পুলিশের উদ্যোগ; বেপরোয়া গতি ও মাদকাসক্ত চালক ধরা পড়বে সহজেই।

  • শরীয়তপুর-চাঁদপুর আঞ্চলিক সড়ক যেন মরণফাঁদ; চরম ভোগান্তিতে যাত্রীরা

  • ফের আলোচনায় ডাকসু জিএস রাব্বানী; এমফিলে ভর্তির বিষয়টি জানতো না সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদ

চট্টগ্রামে অবৈধ মিলস্কেল: নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে পোড়াচ্ছে চীনের দুটি প্রতিষ্ঠান

চট্টগ্রামে অবৈধ মিলস্কেল: নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে পোড়াচ্ছে চীনের দুটি প্রতিষ্ঠান

চট্টগ্রামের সীতাকুন্ডে রাতের আঁধারে মিলস্কেল পোড়ানো হচ্ছে চীনের দুটি প্রতিষ্ঠানে। যা তৈরি করছে মারাত্মক দূষণ। পরিদর্শনে গিয়ে এর সত্যতাও পেয়েছেন পরিবেশ অধিদপ্তরের কর্মকর্তারা। এ সময় একটি প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা গা ঢাকা দেন। অন্যটিতে প্রবেশের অনুমতি মেলেনি। সংশ্লিষ্ট সবার বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়ার কথা জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

চট্টগ্রামের সীতাকুন্ডে অবৈধভাবে গড়ে উঠেছে দুটি মিলস্কেল বা রড তৈরীতে সৃষ্ট বর্জ্য রিসাইক্লিং প্ল্যান্ট। যাতে সৃষ্ট মারাত্মক পরিবেশ দূষণ নিয়ে সম্প্রতি প্রতিবেদন প্রচার হয় চ্যানেল টোয়েন্টিফোরে। এর জরিমানা ছাড়াও আইন মেনে ব্যবসা পরিচালনার নির্দেশ দেয় পরিবেশ অধিদফতর।  

তবে এই নির্দেশনাকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে গোপনে রাতের আঁধারে মিলস্কেল পুড়িয়ে যাচ্ছে চীনা প্রতিষ্ঠান দুটি। এমন খবরে বুধবার পরিদর্শনে যান সংস্থার কর্মকর্তারা। তবে তা টের পেয়ে প্ল্যান্ট বন্ধ করে পালিয়ে যায় সবাই।    

পাশের একটি ভবনের ছাদ থেকে দেখা যায় প্ল্যান্টের ভেতরে মিলস্কেল থেকে ধোঁয়া বের হচ্ছে। স্থানীয়রাও বলছেন, মাঝে কয়েকদিন বন্ধ রেখে আবারো চলছে এমন অপতৎপরতা।

তবে আরেকটি প্ল্যান্টে গিয়ে দীর্ঘ সময় অপেক্ষা করেও প্রবেশের অনুমতি পাননি পরিবেশের কর্মকর্তারা। নিরাপত্তারক্ষীরা জানান, স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যানের অনুমতি ছাড়া প্রবেশের সুযোগ নেই। তবে চেয়ারম্যানের বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

পরিবেশ অধিদফতরের কর্মকর্তা জানান, জায়গার মালিক, ভাড়াটিয়া এবং সরকারি কাজে বাধা প্রদানকারী সবার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

চট্টগ্রাম 24 খবর