channel 24

সর্বশেষ

  • চট্টগ্রামে ট্রাফিক বক্সে বিস্ফোরণ জঙ্গি হামলা কিনা খতিয়ে দেখছে পুলিশ

  • বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে মনের আলোয় বর্ণমালার ছন্দ সাজিয়েছেন সাভারের কোহিনুর

  • পাবনার চাটমোহরে ছাগল পালন খামারীদের মিলনমেলা

  • চট্টগ্রামে দুই কাউন্সিলর প্রার্থীর সমর্থকদের সংঘর্ষে মামলা

  • ঢাকার দুই সিটির মতো বিতর্ক চলছে চট্টগ্রাম সিটিতেও

  • বিশ্ব পুঁজিবাজার হারিয়েছে ৩ লাখ ৪০ হাজার কোটি মার্কিন ডলার

  • অমর একুশে গ্রন্থমেলার শেষ দিন আজ

  • বিদেশ ফেরতদের সবোর্চ্চ পরীক্ষা করা হচ্ছে: আইইডিসিআর

  • আবারো পতনের ধারায় দেশের পুঁজিবাজার

  • বেকার হোস্টেলে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করলেন তাঁরই কন্যা ও দৌহিত্র

  • ঢাকা বারে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের পদে বিএনপির জয়

  • পারফর্ম করতে না পারা লজ্জার নয়: মাশরাফী

  • সড়ক দুর্ঘটনায় রাজশাহীতে শিশুসহ সারাদেশে নিহত ১১

  • অবশেষে কার্যকরের অপেক্ষায় নয়-ছয়ের সুদহার

  • বঙ্গবন্ধু শিল্প নগরীর বড় চ্যালেঞ্জ বিশুদ্ধ পানির যোগান দেয়া

চট্টগ্রামে অবৈধ মিলস্কেল: নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে পোড়াচ্ছে চীনের দুটি প্রতিষ্ঠান

চট্টগ্রামে অবৈধ মিলস্কেল: নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে পোড়াচ্ছে চীনের দুটি প্রতিষ্ঠান

চট্টগ্রামের সীতাকুন্ডে রাতের আঁধারে মিলস্কেল পোড়ানো হচ্ছে চীনের দুটি প্রতিষ্ঠানে। যা তৈরি করছে মারাত্মক দূষণ। পরিদর্শনে গিয়ে এর সত্যতাও পেয়েছেন পরিবেশ অধিদপ্তরের কর্মকর্তারা। এ সময় একটি প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা গা ঢাকা দেন। অন্যটিতে প্রবেশের অনুমতি মেলেনি। সংশ্লিষ্ট সবার বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়ার কথা জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

চট্টগ্রামের সীতাকুন্ডে অবৈধভাবে গড়ে উঠেছে দুটি মিলস্কেল বা রড তৈরীতে সৃষ্ট বর্জ্য রিসাইক্লিং প্ল্যান্ট। যাতে সৃষ্ট মারাত্মক পরিবেশ দূষণ নিয়ে সম্প্রতি প্রতিবেদন প্রচার হয় চ্যানেল টোয়েন্টিফোরে। এর জরিমানা ছাড়াও আইন মেনে ব্যবসা পরিচালনার নির্দেশ দেয় পরিবেশ অধিদফতর।  

তবে এই নির্দেশনাকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে গোপনে রাতের আঁধারে মিলস্কেল পুড়িয়ে যাচ্ছে চীনা প্রতিষ্ঠান দুটি। এমন খবরে বুধবার পরিদর্শনে যান সংস্থার কর্মকর্তারা। তবে তা টের পেয়ে প্ল্যান্ট বন্ধ করে পালিয়ে যায় সবাই।    

পাশের একটি ভবনের ছাদ থেকে দেখা যায় প্ল্যান্টের ভেতরে মিলস্কেল থেকে ধোঁয়া বের হচ্ছে। স্থানীয়রাও বলছেন, মাঝে কয়েকদিন বন্ধ রেখে আবারো চলছে এমন অপতৎপরতা।

তবে আরেকটি প্ল্যান্টে গিয়ে দীর্ঘ সময় অপেক্ষা করেও প্রবেশের অনুমতি পাননি পরিবেশের কর্মকর্তারা। নিরাপত্তারক্ষীরা জানান, স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যানের অনুমতি ছাড়া প্রবেশের সুযোগ নেই। তবে চেয়ারম্যানের বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

পরিবেশ অধিদফতরের কর্মকর্তা জানান, জায়গার মালিক, ভাড়াটিয়া এবং সরকারি কাজে বাধা প্রদানকারী সবার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

চট্টগ্রাম 24 খবর