channel 24

সর্বশেষ

  • করোনায় বিশ্বে আক্রান্ত ৬০ লাখ ৫৯ হাজার ছাড়িয়েছে

  • দুমাস পর চালু যাত্রীবাহী ট্রেন ও লঞ্চ

  • বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবর্ষ উপলক্ষে স্মারক ডাকটিকিট অবমুক্ত করেছে জাতিসংঘ

  • লিবিয়ায় ২৬ বাংলাদেশি খুনে মাফিয়াদের বিচার চান স্বজনরা

  • বাসভাড়া বৃদ্ধি মরার উপর খাড়াঁর ঘা

  • সীমিত পরিসরে সেবার নামে বাসভাড়া ৮০ শতাংশ বাড়ানোর প্রস্তাব

  • চট্টগ্রামে এবার চিকিৎসা পেলেন না স্বাস্থ্য পরিচালকের মা!

  • কক্সবাজারে নতুন করে ২৬ জন করোনায় আক্রান্ত

  • ভার্চুয়াল শপথ নিলেন ১৮ বিচারপতি

  • করোনাকালে অসহায়দের পাশে 'ওল্ড ল্যাবরেটরি অ্যাসোসিয়েশন'

  • মেহেরপুরে বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা দিচ্ছেন তিন চিকিৎসক

  • রিয়াল বেতিস-সেভিয়া ম্যাচ দিয়ে মাঠে ফিরছে লা লিগা

  • প্রাইভেট হাসপাতালে চিকিৎসা ছাড়া কোনো রোগীকে ফেরত দেওয়া যাবে না

  • সোমবার শুরু হচ্ছে অভ্যন্তরীণ রুটে ফ্লাইট চলাচল

  • কাল শুরু হচ্ছে সীমিত আকারে ট্রেন চলাচল

একে একে ফাঁস হচ্ছে রোহিঙ্গাদের ভোটার করায় জড়িতদের নাম

একে একে ফাঁস হচ্ছে রোহিঙ্গাদের ভোটার করায় জড়িতদের নাম

চট্টগ্রামে রোহিঙ্গাদের জাতীয়পরিচয়পত্র দেয়ার প্রক্রিয়ায় জড়িত দুই সিন্ডিকেটের প্রায় ৩০ জনকে নজরদারিতে রেখেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। একইসাথে শুরু হয়েছে তাদের সম্পদের অনুসন্ধান। রোহিঙ্গাদের ভোটার করার ঘটনায় নির্বাচন কর্মকর্তা বাদি হয়ে যে মামলাটি করেছেন তা নিয়েও আপত্তি জানিয়েছে দুদক। তাদের আশংকা এর মাধ্যমে নিজেদের রক্ষার চেষ্টা করতে পারে নির্বাচন কমিশন।

একে একে ফাঁস হচ্ছে চট্টগ্রাম-কক্সবাজার অঞ্চলে রোহিঙ্গাদের ভোটার করায় জড়িতদের নাম। বেরিয়ে আসছে চাঞ্চল্যকর সব তথ্য। পুরো বিষয়টি শুরু থেকেই অনুসন্ধান চালিয়ে আসছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। তাদের প্রাথমিক অনুসন্ধানে মিলেছে ২টি সিন্ডিকেটের প্রায় ৩০ জনের নাম। যার একটির নেতৃত্বে গ্রেপ্তার হওয়া কর্মচারি জয়নাল, আরেকটির প্রধান এনআইডি প্রকল্পের কর্মকর্তা শাহনুর।

এখন জালিয়াতি খতিয়ে দেখার পাশাপাশি শনাক্ত হওয়া ব্যক্তিদের সম্পদের তথ্য উদঘাটনে নেমেছে দুদক। যে তালিকায় আছে নির্বাচন কার্যালয়ের কর্মকর্তা-কর্মচারি, আউট সোর্সিংয়ে কাজ করা ডাটা এন্ট্রি অপারেটর আর কতিপয় জনপ্রতিনিধি।

চট্টগ্রাম অঞ্চলের দুদকের উপপরিচালক মাহবুবুল আলম বলেন, চট্টগ্রামে রোহিঙ্গাদের জাতীয় পরিচয়পত্র দেয়ার প্রক্রিয়ায় জড়িত সকলেই নজরদারীতে আছে।

জালিয়াতির ঘটনায় একটি মামলা দায়ের করে নির্বাচন কমিশন। যা তদন্ত করছে কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিট। জিজ্ঞাসাবাদ এবং জবানবন্দীতে তারাও পেয়েছে অনেক গুরুত্বপূর্ণ তথ্য।

সিএমপির কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের উপ-কমিশনার মো. শহীদুল্লাহ জানান, তদন্তের স্বার্থে প্রত্যেকটা জায়গায় নজরদারী বাড়ানো হয়েছে। রোহিঙ্গাদের জাতীয় পরিচয়পত্র দেয়ার প্রক্রিয়ায় জড়িত সন্দেহে প্রত্যেককে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে বলে জানান এই পুলিশ কর্মকর্তা।

তবে কমিশনের এই মামলাটি নিয়ে প্রশ্ন তুলেছে দুদক। অভিযোগ, নিজেদের রক্ষায় তড়িঘড়ি করে মামলাটি করেছেন নির্বাচন কমিশনের কর্মকর্তারা। ব্যাপক অনুসন্ধান কিংবা তদন্তে ফেঁসে যেতে পারেন নির্বাচন কমিশন সংশ্লিষ্ট অনেকেই এমন মত তদন্ত কর্মকর্তাদের।

নিউজটির বিস্তারিত প্রতিবেদন ভিডিওতে-

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

চট্টগ্রাম 24 খবর