channel 24

সর্বশেষ

  • ভবিষ্যতে কেউ যাতে দেশের মানুষের ভাগ্য নিয়ে ছিনিমিনি...

  • খেলতে না পারে সে ব্যাপারে ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে সতর্ক থাকতে হবে...

  • ১৫ আগস্টের হত্যাকাণ্ডে জিয়াউর রহমান জড়িত ছিলেন বলেই...

  • খন্দকার মোশতাক তাকে সেনাপ্রধান করেছিলেন...

  • শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবসের আলোচনায় প্রধানমন্ত্রী

  • ব্রিটেনে নির্বাচনে জয়ী হওয়ায় বরিস জনসনকে প্রধানমন্ত্রীর অভিনন্দন

  • শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবসে জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তানদের স্মরণে পুরো দেশ...

  • মিরপুরে শহীদ বুদ্ধিজীবী স্মৃতিসৌধে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা

  • যুদ্ধাপরাধী জামায়াত নেতা কাদের মোল্লাকে 'শহীদ' বলায়...

  • দৈনিক সংগ্রামের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া উচিত: ওবায়দুল কাদের

  • জাতীয় ঐক্যের মাধ্যমে দেশে গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনতে হবে: ফখরুল

  • মুন সিনেমার মালিকানা নিয়ে সংবিধান সংশোধনী...

  • কতটা যৌক্তিক, প্রশ্ন সাবেক বিচারপতি আব্দুল মতিনের

  • বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রী রুম্পার শরীরে ধর্ষণের আলামত মেলেনি: চিকিৎসক...

  • কাল পুলিশের কাছে দেয়া হবে প্রাথমিক প্রতিবেদন

  • সাময়িক বন্ধ থাকার পর স্বাভাবিক হয়েছে তামাবিল সীমান্তে যাত্রী চলাচল

  • সড়ক দুর্ঘটনায় পাবনার আটঘরিয়ায় জামাই-শ্বশুর নিহত

চট্টগ্রাম মেডিকেলে ডেঙ্গু পরীক্ষা কিটের সংকট, বিনামূল্যে থেকে বঞ্চিত আক্রান্তরা

চট্টগ্রাম মেডিকেলে ডেঙ্গু পরীক্ষা কিটের সংকট, বিনামূল্যে থেকে বঞ্চিত আক্রান্তরা

চট্টগ্রামে বেসরকারি হাসপাতাল ও ডায়াগনস্টিক সেন্টারে ডেঙ্গু পরীক্ষার পর্যাপ্ত ব্যবস্থা রয়েছে। তবে এ অঞ্চলের সবচেয়ে বড় সরকারি হাসপাতাল চট্টগ্রাম মেডিকেলসহ অন্যান্য সরকারি হাসপাতালে তীব্র সংকট পরীক্ষার কিটের। ফলে বিনামূল্যে ডেঙ্গু পরীক্ষা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে আক্রান্তরা

প্রতিদিনই ডেঙ্গু রোগী ভর্তি হচ্ছে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে। চিকিৎসাধীন এসব রোগীর অবস্থা জানতে দরকার হয় পরীক্ষার। তবে তা করাতে হচ্ছে বাইরে থেকে। কেননা, হাসপাতালে সেই সুযোগ মিলছে না তেমন।   

হাসপাতালের ল্যাবে গিয়ে দেখা গেল মানুষের দীর্ঘ সারি। যাদের বেশিরভাগই গেছেন ডেঙ্গু পরীক্ষার জন্য। তবে কর্তৃপক্ষের অনুমোদন না থাকা কিংবা দুপুর ১২টায় কাউন্টার বন্ধ হয়ে যাওয়ায় ফিরে যেতে হয় অনেককে। 

ডেঙ্গুর মূল যে দুটি পরীক্ষা, তার মধ্যে এই হাসপাতালে হয় কেবল এন এস ওয়ান। আইসিটি করাতে হয় বাইরে থেকে। কেবল তাই নয়, চট্টগ্রাম অঞ্চলের প্রধান এই সরকারি হাসপাতালে এখন পর্যন্ত ডিভাইস এসেছে মাত্র ১শ ২০টি। যার মধ্যে এখন পর্যন্ত মাত্র ১৫ জন পরীক্ষা করাতে পেরেছে। যদিও এব্যাপারে কথা বলেননি হাসপাতালের উপপরিচালক।  

বেসরকারি হাসপাতালগুলোতে পরীক্ষার সুযোগ থাকলেও চমেক হাসপাতালের এই সংকটকে উদ্বেগজনক বলছেন সংশ্লিষ্টরা। অবশ্য কীট সংকট রয়েছে জেনারেল হাসপাতাল ও সিটি করপোরেশন হাসপাতালেও। 

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

চট্টগ্রাম 24 খবর