channel 24

সর্বশেষ

  • ভবিষ্যতে কেউ যাতে দেশের মানুষের ভাগ্য নিয়ে ছিনিমিনি...

  • খেলতে না পারে সে ব্যাপারে ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে সতর্ক থাকতে হবে...

  • ১৫ আগস্টের হত্যাকাণ্ডে জিয়াউর রহমান জড়িত ছিলেন বলেই...

  • খন্দকার মোশতাক তাকে সেনাপ্রধান করেছিলেন...

  • শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবসের আলোচনায় প্রধানমন্ত্রী

  • ব্রিটেনে নির্বাচনে জয়ী হওয়ায় বরিস জনসনকে প্রধানমন্ত্রীর অভিনন্দন

  • শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবসে জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তানদের স্মরণে পুরো দেশ...

  • মিরপুরে শহীদ বুদ্ধিজীবী স্মৃতিসৌধে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা

  • যুদ্ধাপরাধী জামায়াত নেতা কাদের মোল্লাকে 'শহীদ' বলায়...

  • দৈনিক সংগ্রামের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া উচিত: ওবায়দুল কাদের

  • জাতীয় ঐক্যের মাধ্যমে দেশে গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনতে হবে: ফখরুল

  • মুন সিনেমার মালিকানা নিয়ে সংবিধান সংশোধনী...

  • কতটা যৌক্তিক, প্রশ্ন সাবেক বিচারপতি আব্দুল মতিনের

  • বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রী রুম্পার শরীরে ধর্ষণের আলামত মেলেনি: চিকিৎসক...

  • কাল পুলিশের কাছে দেয়া হবে প্রাথমিক প্রতিবেদন

  • সাময়িক বন্ধ থাকার পর স্বাভাবিক হয়েছে তামাবিল সীমান্তে যাত্রী চলাচল

  • সড়ক দুর্ঘটনায় পাবনার আটঘরিয়ায় জামাই-শ্বশুর নিহত

শিক্ষকের অশালীন মন্তব্য ও বেত্রাঘাতের কারণে ছাত্রীর আত্মহত্যার চেষ্টা

শিক্ষকের অশালীন মন্তব্য ও বেত্রাঘাতের কারণে ছাত্রীর আত্মহত্যার চেষ্টা

রাঙামাটিতে শিক্ষকের অশালীন মন্তব্য ও বেত্রাঘাতের কারণে ছাদ থেকে লাফিয়ে অষ্টম শ্রেণির এক শিক্ষার্থীর আত্মহত্যার চেষ্টার অভিযোগ পাওয়া গেছে। গত মঙ্গলবার (৩০ জুলাই) ইংরেজি শিক্ষক আতাউর রহমান পড়া না পারার অভিযোগে তাকে আপত্তিকরভাবে বেত্রাঘাত করে। এ সময় শিক্ষক তাকে অশালীন কথাও বলে। অপমান সইতে না পেরে একপর্যায়ে বিদ্যালয়ের ছাদ থেকে লাফ দিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা চালায় ওই শিক্ষার্থী।

জানা যায়, ওই শিক্ষার্থীকে বেত্রাঘাতের সময় যৌন হয়রানিও করা হয়।

এ ঘটনায় ওই শিক্ষার্থীর বাবা থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন।

ওই শিক্ষার্থী রাঙামাটি শহরের একটি বিদ্যালয়ে অষ্টম শ্রেণিতে পড়ে।

ওই শিক্ষার্থীর মা জানান, আমার মেয়ে বাসায় এসে জানায়, ইংরেজির শিক্ষক তাকে অশালীনভাবে পিটিয়েছে। পেটানোর সময় শিক্ষক বলেছে, স্কুলে তুই থাকবি, না হয় আমি থাকবো।' পরে বিষয়টি সহকারী প্রধান শিক্ষককে জানালে তিনিও উল্টো আমার মেয়েকেই দোষারোপ করেছেন। তখন আরেক শিক্ষিকা ও স্কুলের আয়াও আশালীন বলেছেন। এ ঘটনায় ন্যায়বিচার না পাওয়ায় মেয়ে মানসিকভাবে ভেঙে পড়ে। একপর্যায়ে স্কুলের ছাদে গিয়ে আত্মহত্যা করতে লাফ দেয়। আমি এর সুষ্ঠু বিচার চাই। আমার মেয়ে হাসপাতালে সারা দিন কান্নাকাটি করছে।

এক সহপাঠী জানায়, ‘স্যার যে পড়া দিয়েছিলেন সেটি অনেকে পারেনি।  সেদিন স্যার অনেককে মেরেছেন। আমাদের দুজনকে ড্রেস ধরে মেরেছেন। পরে তাকে নিয়ে আমি তাদের বাসায় চলে আসি। ওর মাকে বিষয়টি বলি। যখন বিচার পায়নি তখন সে বলে আত্মহত্যা করবে। সে এই অপমান সইতে পারছিল না। কখন যে স্কুলের ছাদে চলে গেলো আমি দেখিনি। পরে চিৎকার শুনে নিচে গিয়ে দেখি আমার বান্ধবী।

ওই শিক্ষার্থী ছাদ থেকে লাফ দেওয়ার পর তার বক্তব্য ফেসবুকে ছড়িয়ে দেওয়া হয়। সেখানে তাকে বলতে শোনা যায়, 'স্যারে বলেছে, এমন জয়গায় মারবো কাউকে দেখাতে পারবি না।'

ছাদ থেকে লাফ দেওয়ার পর তাকে উদ্ধার করে দ্রুত হাসপাতালে পাঠায় এলাকাবাসী। এক প্রত্যক্ষদর্শী জানায়, আমি দোকানে ছিলাম। চিৎকার শুনে দেখি একটি মেয়ে মাটিতে পড়ে আছে। তখন আমার স্ত্রীকে বাসা থেকে ডেকে তার মাথায় পানি দিয়ে কিছুটা সুস্থ করে তুলি। এরপর হাসপাতালে পাঠাই। সে পায়ে ও কোমরে আঘাত পেয়েছে।

সহকারী প্রধান শিক্ষক জিল্লুর রহমান বলেন, তাকে মারধর করা উচিত হয়নি। আমরা স্কুলে বেতও রাখি না। হাইকোর্ট থেকে এই বিষয়ে কঠোর নির্দেশের কথা বিভিন্ন পত্রপত্রিকায় দেখেছি। তিনি আরও বলেন, ঘটনার দিন মেয়েটির ভাই আমার বিদ্যালয়ের ওই শিক্ষককেও মেরেছে। তিনি এখন চট্টগ্রামে একটি হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন।

পুলিশ জানায়, শিক্ষার্থীকে মারধরের একটি অভিযোগ পেয়েছি। সেই পরিপ্রেক্ষিতে আমরা শিশুর প্রতি নিষ্ঠুরভাবে আঘাত, আত্মহত্যার প্ররোচনা আইনে মামলা নিয়েছি।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

চট্টগ্রাম 24 খবর