channel 24

সর্বশেষ

  • পদ্মা সেতুর ৮৪ ভাগ কাজ শেষ হয়েছে: ওবায়দুল কাদের

  • অনুশীলনে পাঁজরের ইনজুরিতে তামিম ইকবাল...

  • খেলছেন না জাতীয় লিগের দ্বিতীয় রাউন্ড...

  • ভারত সফরের দলে পাওয়া নিয়ে নির্বাচকদের শঙ্কা

  • হাসপাতাল, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ও ঘনবসতিপূর্ণ এলাকা থেকে...

  • মোবাইল টাওয়ার দ্রুত সরানোর নির্দেশ হাইকোর্টের; পূর্ণাঙ্গ রায় প্রকাশ

  • ঢাকা জেলার সন্ত্রাসবিরোধী বিশেষ ট্রাইব্যুনালের স্পেশাল পাবলিক...

  • প্রসিকিউটরের পদ থেকে জাহাঙ্গীর আলমকে অব্যাহতি: আইন মন্ত্রণালয়

  • রাজধানীর গাবতলী থেকে নব্য জেএমবির ৩ সদস্যকে আটক করেছে পুলিশ

  • চট্টগ্রামে ১৪১ কোটি টাকা আত্মসাতের অভিযোগে...

  • মিশম্যাক শিপ ব্রেকিং ইয়ার্ডের মালিক মিজানুর রহমান ও...

  • মার্কেন্টাইল ব্যাংকের শাখা ব্যবস্থাপক নন্দ দুলালের বিরুদ্ধে দুদকের মামলা

  • প্রধানমন্ত্রীর সাথে ফিফা সভাপতি জিয়ান্নি ইনফান্তিনোর সৌজন্য সাক্ষাৎ

সাজার ১০ বছরেও পরোয়ানা পৌঁছায়নি কারাগারে, মামলার নথি গায়েব

সাজার ১০ বছরেও পরোয়ানা পৌঁছায়নি কারাগারে, মামলার নথি গায়েব

সাজা হয়েছে ১০ বছর আগে। কিন্তু এই দীর্ঘ সময়েও পরোয়ানা পৌঁছায়নি এক কিলোমিটার দূরের কারাগারে। ফলে, সাধারণ হাজতি হিসেবেই কারাভোগ করছেন দিনমজুর নেজাম উদ্দিন। এমন ঘটনা ঘটেছে চট্টগ্রামে। শুধু তাই নয়, আদালতে মামলার নথিও গায়েব হয়ে যায়। চ্যানেল টোয়েন্টিফোরের অনুসন্ধান শুরু হলে অবিশ্বাস্য গতিতে কারাগারে পৌঁছে যায় সাজার পরোয়ানা। পাওয়া যায় মামলার নথিও।

এক কিশোরীকে অপহরণের অভিযোগে রাউজানের বাসিন্দা নেজাম উদ্দিনের বিরুদ্ধে মামলাটি দায়ের হয় ২০০৫ সালের সেপ্টেম্বরে। ২০০৮ সালের ৬ জানুয়ারী মামলার রায়ে তাকে ১৪ বছরের সাজা দেয় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-২। আর গ্রেফতার হন একই বছরের ৪ এপ্রিল।

তবে বিস্ময়কর হলেও সত্য, রায়ের ১০ বছর পরও তার সাজার পরোয়ানা আদালত থেকে পৌঁছায়নি মাত্র এক কিলোমিটার দূরত্বের চট্টগ্রাম কারাগারে। এমনকি আদালতে গায়েব হয়ে যায় মামলার নথিও।

এ  নিয়ে অনুসন্ধানে নামে চ্যানেল টোয়েন্টিফোর। এরপরই টনক নড়ে আদালতের সংশ্লিষ্ট শাখার। অবিশ্বাস্য দ্রুতগতিতে মঙ্গলবার কারাগারে পৌছে সাজা পরোয়ানা। সেইসাথে বেরিয়ে আসে মামলার নথিও। অথচ, এসব নথির অভাবে এতদিন মামলার ব্যাপারে কোন পদক্ষেপই নিতে পারেনি এই দিনমজুরের পরিবার।

জেলকোড অনুসারে এতদিনে তার সাজা পূর্ণ হয়ে যাওয়ার কথা। কিন্তু দেরিতে পরোয়ানা পৌছায় এখন দীর্ঘায়িত হতে পারে তার মুক্তি। নেজামের পরিবারের অভিযোগ, এই কাজের নেপথ্যে আছে একটি চক্র। এটাকে সংশ্লিষ্টদের গাফিলতি  এবং  অনিয়ম হিসেবে দেখছেন আইনজীবীরা।

সাজা ছাড়া দীর্ঘদিন কোন বন্দী কারাগারে থাকলে সে তথ্য দেয়ার কথা আদালত বা সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে। কিন্তু নেজামের বেলায় তা হয়নি। এ ব্যাপারে বক্তব্য জানার জন্য বারবার চেষ্টা করা হলেও কথা বলতে রাজি হননি কারা কর্তৃপক্ষের কেউ।

দেখুন ভিডিওতে-

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

চট্টগ্রাম 24 খবর