channel 24

সর্বশেষ

  • করোনায় অধ্যাপক ডা. এস এ এম গোলাম কিবরিয়ার মৃত্যু

  • এখনও বিক্ষোভে উত্তাল যুক্তরাষ্ট্র, ট্রাম্প প্রশাসনের বিরুদ্ধে মামলা

  • খুলনার উপকূলীয় অঞ্চলে বসবাস ঝুঁকিপূর্ণ হলেও স্থানান্তরের উদ্যোগ নেই

  • চট্টগ্রামে সমন্বয়হীনতার কারণে হ-য-ব-র-ল অবস্থা স্বাস্থ্যখাতে

  • বাড়ছে মোবাইল ফোনে কথা বলার খরচ

  • বজ্রপাতে সারা দেশে নিহত ২২

  • করোনার কারণে এ মাসেও শুরু হচ্ছে না এইচএসসি পরীক্ষা

  • জাতিসংঘের পাবলিক সার্ভিস অ্যাওয়ার্ড পেলো ভূমি মন্ত্রণালয়

  • পুলিশ-চিকিৎসকসহ দীর্ঘ হচ্ছে মৃত্যুর মিছিল

  • করোনায় আক্রান্ত রোগী শনাক্ত করা যাবে ১ মিনিটেই!

  • করোনা থেকে বাঁচতে প্রতিকারের চেয়ে প্রতিরোধই উত্তম: প্রধানমন্ত্রী

  • সড়কে যানবাহনের চাপ বাড়লেও রেল ও নৌপথে যাত্রী কম

  • বরিশালে ইমামকে জুতার মালা পরিয়ে নির্যাতনের ঘটনায় মামলা

  • করোনায় অনিশ্চিত এ বছরের হজযাত্রা

  • করোনায় মারা গেছেন রানা প্লাজার মালিক আব্দুল খালেক

লালখানবাজার থেকেই শুরু হচ্ছে চট্টগ্রামের এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে

লালখানবাজার থেকেই শুরু হচ্ছে চট্টগ্রামের এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে

নানা আলোচনা-সমালোচনা থাকলেও শেষ পর্যন্ত লালখানবাজার থেকেই শুরু হচ্ছে চট্টগ্রামের প্রথম এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে। কারণ এখন আর প্রকল্প সংশোধনের সুযোগ নেই। এমন কথাই জানিয়েছেন সিডিএ'র চেয়ারম্যান। আর প্রকল্প পরিচালক বলছেন, নির্মাণ কাজ চলাকালে ব্যস্ততম বিমানবন্দর সড়কে যানজট এড়াতে বিকল্প ব্যবস্থা করা হচ্ছে। একইসাথে বিবেচনায় থাকবে পরিবেশ রক্ষার বিষয়টি।

জোরেশোরে চলছে চট্টগ্রামের প্রথম এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ের নির্মাণ কাজ। যা নির্মিত হচ্ছে লালখানবাজার থেকে শাহ আমানত বিমানবন্দর পর্যন্ত।

তবে কথা উঠেছে এর নির্মাণ কাজ চলাকালে নগরে যানজট নিয়ে। একইসাথে টাইগারপাসের প্রাকৃতিক সৌন্দর্য নষ্ট হবে এমন অভিযোগও তুলেছে কোন কোন সংগঠন।

তাই লালখানবাজারের পরিবর্তে বারিকবিল্ডিং থেকে এটি নির্মাণের দাবি উঠলেও আপাতত আগের সিদ্ধান্ত থেকে সরছেনা চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (সিডিএ)। এতথ্য জানিয়েছেন জহিরুল আলম দোভাষ সিডিএ চেয়ারম্যান।

এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ের প্রকল্প পরিচালক প্রকৌশলী মাহফুজুর রহমান জানান, নির্মান কাজ চলাকালে যানজট, পরিবেশ এবং শেখ মুজিব রোডের নিচে কালভার্টের ক্ষতি এড়াতে সব উদ্যোগই নেয়া হয়েছে।  

এটির পুরোপুরি নির্মাণ শেষ হতে সময় লাগবে চারবছর। এরপর হস্তান্তর করা হবে সিটি করপোরেশনের কাছে। তখন সেটি ব্যবহারে টোল চালুর কথা জানান সিটি মেয়র আ.জ.ম নাছির উদ্দীন।  

পাঁচ ধাপে বাস্তবায়নাধীন কিলোমিটার দীর্ঘ এই এলিভিটেড এক্সপ্রেসওয়ের এখন কাজ চলছে সিমেন্ট ক্রসিং থেকে বিমানবন্দর পর্যন্ত অংশে। এই প্রকল্পে খরচ হচ্ছে তিন হাজার কোটি টাকা।

নিউজটির ভিডিও-

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

চট্টগ্রাম 24 খবর