channel 24

সর্বশেষ

  • গাড়ি চাপায় বৃদ্ধকে হত্যার অভিযোগে কুশাল মেন্ডিস গ্রেফতার

  • বাংলাদেশ বিমানের আবুধাবি ফ্লাইট ৩০ জুলাই পর্যন্ত স্থগিত

  • সভাপতি ও মহাসচিবের দ্বন্দ্বে বিপর্যস্ত শ্যুটিং ফেডারেশন

  • সৌদিতে বাংলাদেশ কনস্যুলেট অফিসের সামনে ভোগান্তি বাড়ছে

  • চ্যানেল টোয়েন্টিফোরের সিনিয়র রিপোর্টার আরিফুল সাজ্জাতের বাবার ইন্তেকাল

  • হারিয়ে যাওয়া গৃহকর্মী খুশিকে কাকতালীয়ভাবে পাওয়া গেল ৭ বছর পর

  • পাপুল দম্পতির ত্রাসের রাজত্ব, ভিটেমাটি ছাড়া মেঘনা পাড়ের ৫০০ পরিবার

  • নিরাপদ খাদ্য বিষয়ে স্নাতকোত্তর কোর্স চালু করতে চায় দুই কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়

  • স্পেনে ভোগান্তিতে পড়া অবৈধ বাংলাদেশিদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ

  • সিরাজগঞ্জে প্রতিপক্ষের হামলায় আহত ছাত্রলীগ নেতা বিজয় মারা গেছেন

  • গাজীপুরে বিলে গোসল করতে নেমে ডুবে ৩ তরুণের মৃত্যু

  • আসামে বন্যা ও ভূমিধসে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৬১ জনে

  • এ সপ্তাহে ফের কমেছে শেয়ার হাতবদলের পরিমাণ

  • খুলনার চার হাসপাতালে চালু হচ্ছে করোনা ইউনিট

  • টুঙ্গিপাড়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসক লাঞ্ছিতের অভিযোগ

অস্ত্রের মুখে ভূমিদস্যুর কব্জায় শিক্ষকের ভিটেমাটি

অস্ত্রের মুখে ভূমিদস্যুর কব্জায় শিক্ষকের ভিটেমাটি

অস্ত্রের মুখে রেজিস্ট্রি নিয়ে যুবলীগ নামধারী সাত ভূমিদস্যু দাবি করছে তারা কিনে নিয়েছে জায়গাটি। এরপর বাড়ি ছাড়তে অনবরত হুমকি-চাপ। ফলে, চট্টগ্রামের আনোয়ারায় বাপদাদার ভিটেমাটি হারিয়ে অন্যত্র আশ্রয় নিয়েছেন সাবেক শিক্ষক, শতবর্ষী নিরঞ্জন চক্রবর্তী ও তার পরিবার। এ নিয়ে মামলা হলেও ধরা ছোঁয়ার বাইরে আসামিরা।

চট্টগ্রামের আনোয়ারা সদরের এলাকায় জীর্ণ মাটিতে পরিবার নিয়ে থাকতেন একসময়কার পন্ডিত শিক্ষক হিসেবে এলাকায় পরিচিত শিক্ষক নিরঞ্জন চক্রবর্তী। কিন্তু সেটিই এখন ভূমিলোভীদের কব্জায়।

অভিযোগ, গত ১০ এপ্রিল অস্ত্রের মুখে এই বসতভিটাসহ আশপাশের প্রায় আটগন্ডা ভূমি নিজেদের নামে লিখে নেয় যুবলীগ নামধারী কামরুল ইসলাম হেলাল, আনোয়ার, মানিকসহ কয়েকজন। পরে তাদের হুমকির মুখে স্বজনদের নিয়ে বাড়ি ছাড়তে বাধ্য হন শতবর্ষী এই মানুষটি। আশ্রয় নেন অন্যত্র।   

স্থানীয়দের অভিযোগ, তাদেরও হুমকী দিচ্ছে অভিযুক্তরা। আর নিরঞ্জনের সাবেক কর্মস্থল আনোয়ারা সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের দাবি, সুষ্ঠু বিচারের।

এঘটনায় গত ১৮ এপ্রিল সাতজনকে আসামী করে মামলা মামলা হয়। এখন জড়িতদের ধরতে চেষ্টা চলছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

দায়ীদের দ্রুত আইনের আওতায় আনার মাধ্যমে শংকামুক্ত অবস্থায় বাড়ি ফিরে যাওয়ার পরিবেশ চেয়েছেন ভূক্তভোগীরা।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

চট্টগ্রাম 24 খবর