channel 24

সর্বশেষ

  • ঢাবি ভর্তি পরীক্ষায় প্রশ্নফাঁস: বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীসহ...

  • পলাতক ৭৮ জনের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি

  • রোহিঙ্গাদের দ্রুত ফেরত না পাঠালে নিরাপত্তা ও...

  • স্থিতিশীলতা ব্যাহত হওয়ার শঙ্কা প্রধানমন্ত্রীর

  • ঋণখেলাপিদের সুবিধা দিতে পাগল হয়ে গেছে...

  • বাংলাদেশ ব্যাংক: হাইকোর্ট; প্রজ্ঞাপনের বিষয়ে আদেশ কাল

  • ১৯৮৯ সালের হত্যা মামলা: ৩ মাসের মধ্যে নিস্পত্তির নির্দেশ হাইকোর্টের...

  • ২৮ বছর পর মামলা সচল হওয়ায় সাগেরা মোর্শেদের পরিবারের সন্তুষ্টি

  • ডিআইজি মিজানের বিরুদ্ধে আইনানুযায়ী ব্যবস্থা: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী...

  • অস্ত্রের লাইসেন্স বাতিল ও জব্দে দুদকের চিঠি

  • দুই সাংবাদিককে ভিন্ন ভাষায় তলবকারী কর্মকর্তার বিরুদ্ধে...

  • বিভাগীয় ব্যবস্থা নেয়ার নির্দেশ কমিশনের; চিঠির অবমাননাকর অংশ...

  • বাদ না দিলে আরও কঠোর কর্মসূচির ঘোষণা গণমাধ্যমকর্মীদের

  • আসামে নাগরিকত্ব ইস্যু: খসড়া তালিকা থেকে ১ লাখ ২ হাজার...

  • ৪৬২ জনকে বাদ দিয়ে নতুন তালিকা প্রকাশ

উপজেলা নির্বাচনে পাহাড়ে নিজেদের আধিপত্য হারিয়েছে আঞ্চলিক সংগঠনগুলো

উপজেলা নির্বাচনে পাহাড়ে নিজেদের আধিপত্য হারিয়েছে আঞ্চলিক সংগঠনগুলো

এবারের উপজেলা নির্বাচনে পাহাড়ে নিজেদের আধিপত্য হারিয়েছে আঞ্চলিক সংগঠনগুলো। দীর্ঘদিন পর তার জায়গা নিয়েছে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ। তাই দলটির অভিযাগ, প্রাধান্য খর্ব হওয়ায় নির্বাচনের পর দুটি ঘটনায় ৮জনকে খুন করেছে দুটি আঞ্চলিক সংগঠন। বিশ্লেষকদেরও মত, এসব খুনের পেছনে থাকতে পারে পাহাড়ের রাজনীতির নতুন মেরুকরণ। তবে তা মানতে নারাজ জনসংহতি সমিতি ও ইউপিডিএফ।

তিন পার্বত্য জেলায় ২৫টি উপজেলায় নির্বাচন হয়েছে গেল ১৮ মার্চ। সেই নির্বাচন পরবর্তী হামলায় প্রাণ গেছে ৮ জনের।  

আরও জানতে: সড়ক দুর্ঘটনায় প্রতিনিয়ত বাড়ছে মৃতের সংখ্যা!

সাতখুনের ঘটনায় পাহাড়ে নানা আলোচনা

জাহাজ ভাঙ্গা শিল্প মালিকদের ঋণ দিয়ে সাবেক ফারমার্স ব্যাংকে খেলাপি ১৫০ কোটি টাকার বেশি

টয়লেটের ফ্লাশ নষ্ট হওয়ায় ফ্লাইট বাতিল!

পাহাড়ে স্থানীয় সরকার নির্বাচনে বরাবরই আধিপত্য ধরে রাখে আঞ্চলিক সংগঠনগুলো। ২০১৪ সালের নির্বাচনেও ১৬টি উপজেলায় জিতেছেন সংগঠনগুলোর প্রার্থীরা। তবে এবার তারা জিতেছেন মাত্র ৬টিতে। ফল ঘোষণা না হলেও এগিয়ে আছেন একটিতে। আর বিপরীত ফল ক্ষমতাসীনদের। তারা গত নির্বাচনে ৩টি পেলেও এবার বেড়ে হয়েছে ১৭টি।

সার্বিক ফলাফলে সবচেয়ে পিছিয়ে সন্তু লারমার নেতৃত্বাধীন জনসংহতি সমিতি আর ইউপিডিএফ। ফলে বাঘাইছড়ি আর বিলাইছড়িতে আটখুনের ঘটনার সাথে  নির্বাচনের ফলাফলের যোগসূত্র মেলাচ্ছেন বিশ্লেষকরা।

আওয়ামী লীগও মনে করছে, আধিপত্য খর্ব হওয়ায় বেপরোয়া হয়ে উঠেছে আঞ্চলিক সংগঠনগুলো।

তবে তা মানতে নারাজ জনসংহতি সমিতি আর ইউপিডিএফ।

উপজেলা নির্বাচনের এই ফল সামনে পাহাড়ের রাজনীতিতে নানা মেরুকরণ তৈরি করবে বলেও মত বিশ্লেষকদের।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

চট্টগ্রাম 24 খবর