channel 24

সর্বশেষ

  • কোচিং বাণিজ্য: উইলস লিটল স্কুলের ৩০ শিক্ষককে দুদকের শোকজ

  • নাটোরের বাগাতিপাড়ায় সড়ক দুর্ঘটনায় একই পরিবারের নিহত ৩

  • রোহিঙ্গা ইস্যুর সমাধান দীর্ঘায়িত হলে বাংলাদেশ সমস্যায় পড়বে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

  • এসএসসি ও সমমান পরীক্ষাকালীন কোচিং সেন্টার বন্ধ থাকবে: শিক্ষামন্ত্রী

  • জামায়াত ও যুদ্ধাপরাধীর সন্তানরা যেন সরকারি চাকরি না পায়...

  • তার জন্য আইন করতে হবে: মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী

  • সমাজে ব্যাধির মতো ছড়িয়ে গেছে দুর্নীতি: প্রধানমন্ত্রী...

  • সব অপরাধ দমনে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে তৎপর থাকার নির্দেশ

  • ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন নিয়ে সাংবাদিকদের...

  • উদ্বেগের বিষয়গুলো নিয়ে কাজ করছে সরকার: তথ্যমন্ত্রী

  • রিজার্ভ চুরি: চলতি মাসেই নিউইয়র্কে মামলা- অর্থমন্ত্রী

  • হলি আর্টিজান মামলার আসামি জঙ্গিনেতা মামুন ৫ দিনের রিমান্ডে

  • ডিপিডিসির নির্বাহী পরিচালক রমিজ উদ্দিন সরকার ও...

  • তার স্ত্রীর সম্পদের হিসাব দিতে দুদকের নোটিশ

চট্টগ্রাম বন্দরে ৫ বছরে বাণিজ্যিক জাহাজের সংখ্যা বেড়েছে ৬০ শতাংশ

চট্টগ্রাম বন্দরে ৫ বছরে বাণিজ্যিক জাহাজের সংখ্যা বেড়েছে ৬০ শতাংশ

গেল পাঁচ বছরে চট্টগ্রাম বন্দরে দেশি-বিদেশি বাণিজ্যিক জাহাজের সংখ্যা বেড়েছে ৬০ শতাংশের বেশি। চট্টগ্রাম অঞ্চলে চলমান উন্নয়ন কর্মযজ্ঞ আর প্রতিবেশি দেশের ট্রানজিট সুবিধা জোরালো হলে এ সংখ্যা বাড়বে কয়েকগুণ। যা মোকাবেলায় দিনে দিনে বাড়ছে বন্দরের অবকাঠামো সুবিধা। তবে দীর্ঘদিনেও বাড়েনি নিজস্ব সমুদ্র এলাকা। এতে পোর্ট ডিউজ বাবদ কোটি কোটি টাকার মাশূল থেকে বঞ্চিত হয়েছে সংস্থাটি। এবার তাই প্রায় ২৭ বর্গনটিক্যাল মাইল এলাকা সম্প্রসারণের উদ্যোগ নিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

কক্সবাজারের মহেশখালীতে চলছে উন্নয়নের মহাকর্মযজ্ঞ। ইকোনমিক জোন হচ্ছে মীরসরাই-ফেনী অঞ্চলে। বে-টার্মিনাল নির্মাণ শেষে ভারতের সাত রাজ্যে পণ্য পরিবহনে ট্রানজিট সুবিধাও জোরালো হবে। ফলে গুরুত্ব বাড়ছে চট্টগ্রাম বন্দরের।  

গেল বছর এই বন্দরে জাহাজ আসে ৩ হাজার ৮শ ৮৮টি। ৫ বছর আগে ২০১৩-১৪ সালে যা ছিল ২ হাজার ২শ ৯৪। সে হিসেবে বছরে জাহাজ বাড়ছে ৬০ ভাগের বেশি।       

এখন আনোয়ারা থেকে ফৌজদারহাট পর্যন্ত মাত্র ৭ বর্গনটিক্যাল মাইল উপকূলীয় এলাকায় থাকা নৌযানকে সরাসরি সুবিধা দিতে পারে বন্দর কর্তৃপক্ষ। আদায় করতে পারে মাশুল। তবে কুতুবদিয়া-মহেশখালী থেকে ফিরে যাওয়া বড় জাহাজগুলো নানাভাবে বন্দরের সুবিধা গ্রহণ করলেও পোর্ট ডিউজ থেকে বঞ্চিত হচ্ছে বন্দর। তাই কর্ণফুলীর মোহনা থেকে দক্ষিণে মহেশখালী পর্যন্ত ৪২ নটিক্যাল আর উত্তরে সীতাকুন্ড পর্যন্ত ২৬ নটিক্যাল মাইল পর্যন্ত নিজস্ব এলাকা সম্প্রসারণের উদ্যোগ নিয়েছে বন্দর কর্তৃপক্ষ।  

এই উদ্যোগকে ইতিবাচক হিসেবে দেখছেন বন্দর ব্যবহারকারীরা।

গেল অর্থবছরে নিজস্ব এলাকায় আসা জাহাজ থেকে পোর্ট ডিউজ বাবদ চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষ আয় করেছে প্রায় ১শ ৬৮ কোটি টাকা। এলাকা বাড়লে যা কয়েকগুণ হবে, আশা সংশ্লিষ্টদের।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

চট্টগ্রাম 24 খবর