channel 24

সর্বশেষ

  • মানবাধিকার কমিশনের নতুন চেয়ারম্যান নাছিমা বেগম

  • পুঁজিবাজারে ব্যাংকগুলোর বিনিয়োগ সামর্থ্য বাড়াতে...

  • সাময়িক তারল্য সুবিধা দিয়ে বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রজ্ঞাপন

  • খুলনা জিআরপি থানার সাবেক ওসি উছমান গনিসহ...

  • ৫ পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে আদালতে গণধর্ষণ মামলা দায়েরের আবেদন

  • ক্যাসিনো অবৈধ, কাউকে বেআইনি ব্যবসা করতে দেয়া হবে না: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

  • অনিয়ম, দুর্নীতি রোধে ব্যর্থতায় সরকারের পদত্যাগ করা উচিত: ফখরুল

  • নাব্যতা সংকটে বন্ধ শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ি নৌরুটে ফেরি চলাচল

  • টেকনাফে পুলিশের সাথে কথিত বন্দুকযুদ্ধে রোহিঙ্গা দম্পতি নিহত

  • উগান্ডায় প্রশিক্ষণ নিতে যাওয়া কর্মকর্তা-কর্মচারীদের অনেকেই প্রকল্প সংশ্লিষ্ট নন; অনিয়মে বারবারই অভিযুক্ত চট্টগ্রাম ওয়াসা।

  • দখল-দূষণে অস্তিত্ব সংকটে বেশিরভাগ নদী; দখলদারদের পূর্ণাঙ্গ তালিকা প্রকাশ ও খননের দাবি পরিবেশবাদীদের।

  • গোপালগঞ্জে বঙ্গবন্ধু বিশ্ববিদ্যালয়ে চতুর্থ দিনের মতো আমরণ অনশনে শিক্ষার্থীরা; ভিসি পদত্যাগ না করা পর্যন্ত আন্দোলন চালানোর ঘোষণা

আত্মসমর্পণ করছে মহেশখালীর জলদস্যু বাহিনী

আত্মসমর্পণ করছে মহেশখালীর জলদস্যু বাহিনী

শান্তি ফিরছে মহেশখালি উপকূলে। দীর্ঘ চেষ্টার পর চ্যানেল টোয়েন্টিফোরের মধ্যস্থতায় আত্মসমর্পণের জন্য প্রস্তুত জলদস্যু জালাল, রমিজ ও আঞ্জু বাহিনী।

তারা চান আত্মসমর্পণের পর আর যেন ফিরতে না হয় দস্যু জীবনে। র‍্যাব বলছে, স্বাভাবিক জীবনে ফিরলে দেয়া হবে আইনি সহায়তা। কক্সবাজার উপকূলে এটাই হবে জলদস্যুদের স্বাভাবিক জীবনে ফেরার প্রথম উদ্যোগ। রমিজ, জালাল এবং আঞ্জু বাহিনী। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রনালয়ের তালিকাভুক্ত জলদস্যু গ্রুপ। যাদের ত্রাসে অতিষ্ট মহেশখালিসহ কক্সবাজার উপকুলের হাজারও জেলে।

অন্ধকার জগতের এসব মানুষকে নিয়ে ছয় মাস আগে অনুসন্ধানী প্রতিবেদন প্রচার করে চ্যানেল টোয়েন্টিফোর। তখন তারা আগ্রহ দেখান স্বাভাবিক পথে ফিরে আসার। এরপর চ্যানেল টোয়েন্টিফোরের দীর্ঘ চেষ্টায় দেখা দিতে শুরু করে আশার আলো। তৈরি হয় সমাজ-পরিবার থেকে বিচ্ছিন্ন জীবন কাটানো এসব মানুষকে স্বাভাবিক পথে ফিরিয়ে আনার সম্ভাবনা। তাদের আবেদন পৌছানো হয় সরকারের কাছে।  

তাদের চাওয়া, স্বাভাবিক জীবনে ফিরলে তারা যেন থাকতে পারেন নিরাপদে। আর যেন ফিরতে না হয় দস্যু জীবনে, সেজন্য গডফাদারদের আইনের আওতায় আনার দাবিও তাদের। র‍্যাব বলছে, স্বাভাবিক জীবনে ফেরার পর, সবধরনের আইনী সহায়তা পাবে জলদস্যুরা। পাবে নিরাপত্তাও। এসব দস্যু আত্মসমর্পণ করলে, এটাই হবে কক্সবাজার-চট্টগ্রাম উপকূলে সক্রিয় জলদস্যুদের স্বাভাবিক জীবনে ফেরার প্রথম ঘটনা।

 

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

চট্টগ্রাম 24 খবর