channel 24

সর্বশেষ

  • বিরোধীরা চাইলে নির্বাচনকালীন সরকার ছোট হবে, না চাইলে নয়...

  • রাজনীতিতে যেকোনো জোটকে স্বাগত জানায় আওয়ামী লীগ...

  • নির্বাচনি অঙ্গীকারের চেয়ে বেশি অর্জিত হয়েছে...

  • ষড়যন্ত্র মোকাবিলা করে সঠিক সময়েই নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে...

  • বিদেশিদের কাছে নালিশ করে লাভ হবে না...

  • খুনি, দুর্নীতিবাজ ও নারী কটূক্তিকারীদের ঐক্য হয়েছে...

  • সড়ক দুর্ঘটনায় শুধু চালককে দোষারোপ নয়, পথচারীদেরও সচেতন হতে হবে...

  • সৌদি সফর নিয়ে গণভবনে সংবাদ সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রী

  • নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার আগে আলোচনার দাবি অযৌক্তিক: সেতুমন্ত্রী

  • নাশকতার মামলায় বিএনপির মহাসচিবসহ শীর্ষ ৭ নেতার...

  • হাইকোর্টের দেয়া জামিনের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রপক্ষের আপিল

  • ব্যারিস্টার মঈনুল ও জাফরুল্লাহর বিরুদ্ধে মামলার ধরনে হাইকোর্টের অসন্তোস

  • ব্যারিস্টার মঈনুলের কাছে ক্ষমা চাইতে মাসুদা ভাট্টিকে লিগ্যাল নোটিশ

  • যুক্তরাজ্যে বাংলাদেশের নতুন হাইকমিশনার সাঈদা মুনা তাসনিম

  • হত্যার আগ মুহূর্তে সাংবাদিক খাশোগিকে ফোন করেছিলেন...

  • সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান: তুর্কি পত্রিকা ইয়েনি সাফাক

মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনের অনুমোদনে খুশি কক্সবাজারের মানুষ

মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনের অনুমোদনে খুশি কক্সবাজারের মানুষ

সম্প্রতি মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনের খসড়া মন্ত্রিসভায় অনুমোদন পাওয়ায়, খুশি ইয়াবা চোরাচালানের মূল পয়েন্ট কক্সবাজারের মানুষ। নাগরিক সমাজ বলছে, এটা যুগোপযোগী উদ্যোগ। যা ইয়াবা পাচার রোধে ভূমিকা রাখবে। তবে, আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ইয়াবা দিয়ে কাউকে যেন ফাঁসাতে না পারে, সেজন্য শাস্তির বিধান রাখা উচিত নতুন আইনে- এমন মতও দেন তারা।

মাদকের ভয়াবহ বিস্তার রোধে কঠোর অবস্থানে সরকার। এমন প্রেক্ষাপটে সোমবার মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইন-২০১৮ এর খসড়ার নীতিগত অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা। 
যাতে প্রথমবারের মতো অন্তর্ভূক্ত হয়েছে সর্বনাশা মাদক ইয়াবা। কারো কাছে ৫ গ্রামের বেশি ইয়াবা পাওয়া গেলে সর্বোচ্চ শাস্তি রাখা হয়েছে মৃত্যুদণ্ড।
মিয়ানমার থেকে দেশে ইয়াবা আসে কক্সবাজার সীমান্ত হয়ে। যেখানে তালিকাভুক্ত ইয়াবা ব্যবসায়ী আছে প্রায় ১২শ। তাই নতুন আইন তৈরির এই উদ্যোগে সবচেয়ে বেশি খুশি এখানকার মানুষ।
আইনজীবী ও সুশীল সমাজের প্রতিনিধিদের মতে, ইয়াবা দিয়ে নিরীহ মানুষকে ফাঁসিয়ে দেয়ার বহু অভিযোগ আছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর বিরুদ্ধে। তাই নতুন আইনে এমন বিধান যুক্ত করা দরকার, যাতে নিরাপরাধ কাউকে ফাঁসালে তার কঠোর শাস্তি পায় অভিযুক্তরা।
তবে আইনের পাশাপাশি ইয়াবা চোরাচালান বন্ধে সীমান্তে আরও কড়াকড়ি প্রয়োজন বলে মত নাগরিক সমাজের।

 

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

চট্টগ্রাম 24 খবর