channel 24

সর্বশেষ

  • বিশ্বকাপ স্কোয়াডে সুযোগ পেয়েও অবসরের ঘোষণা হেইলসের

  • বিশ্বকাপে বাংলাদেশ সেমিফাইনাল খেলবে: খালেদ মাহমুদ

  • ধর্ষণ মামলা: বাগেরহাটে মাদ্রাসার অধ্যক্ষসহ বিভিন্ন স্থানে গ্রেপ্তার ৯

  • ইংলিশ লিগ: শিরোপা জয়ের দিকে এগোচ্ছে ম্যান সিটি

  • 'মোদী' ওয়েব সিরিজ বন্ধের নির্দেশ নির্বাচন কমিশনের

  • বঙ্গমাতা গোল্ডকাপের জন্য বাংলাদেশ দল ঘোষণা

  • বঙ্গবন্ধুর ছবি অবমাননার অভিযোগে যবিপ্রবিতে ৮ ছাত্রলীগ কর্মী বহিষ্কার

  • চাকরির বয়স ৩৫ করার দাবিতে সাধারণ ছাত্র পরিষদের সমাবেশ

  • বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ: প্রথম পর্ব শেষে শীর্ষে বসুন্ধরা

  • নুসরাত হত্যায় আটক ইফতেখার রানা

  • মানুষ এখন কিছু হলেই মামলা করে: প্রধান বিচারপতি

  • ওয়াসার বিভিন্ন ক্ষেত্রে দুর্নীতির কথা স্বীকার করলেন এমডি

  • পোশাক খাতে অ্যাকর্ড অ্যালায়েন্সের প্রয়োজন নেই: রুবানা হক

  • যৌন হেনস্থায় অভিযুক্ত ভারতের প্রধান বিচারপতি

  • বীরশ্রেষ্ঠ আব্দুর রউফের শাহাদাৎবার্ষিকী পালিত

চট্টগ্রামে শুরু হচ্ছে এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ের নির্মাণ কাজ

চট্টগ্রামে শুরু হচ্ছে এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ের নির্মাণ কাজ

আগামী মাসে শুরু হতে যাচ্ছে বন্দর নগরী চট্টগ্রামের প্রথম এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ের নির্মাণ কাজ। এরইমধ্যে শেষ হয়েছে দরপত্র প্রক্রিয়া। যাতে অংশ নিয়েছে দেশি-বিদেশি ১০টি প্রতিষ্ঠান। এটির কাজ শেষ হলে বিমানবন্দর সড়ক ও সমুদ্রবন্দরকেন্দ্রিক যানজট নিরসনের আশা করছে কর্তৃপক্ষ।

চট্টগ্রাম নগরে যানজটপ্রবণ সড়কগুলোর অন্যতম বিমানবন্দর রোড। যেখানে ৩০ মিনিটের পথ পেরুতে লাগে দুই ঘণ্টা। তাই এই পথে দুর্ভোগ কমাতে লালখানবাজার থেকে বিমানবন্দর পর্যন্ত হবে বন্দর নগরীর প্রথম এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে। সাড়ে ১৬ কিলোমিটার দীর্ঘ এই এক্সপ্রেসওয়ে করতে গত ৩০ আগষ্ট শেষ হয় দরপত্র প্রক্রিয়া, যেখানে চীনের ৬টি ও দেশীয় ৪টি প্রতিষ্ঠান দরপত্র জমা দেয়। সবকিছু ঠিক থাকলে চলতি বছরের অক্টোবরের শেষের দিকে কাজ শুরু করা যাবে বলে আশা কর্তৃপক্ষের।

তবে পছন্দের ঠিকাদার প্রতিষ্ঠানকে কাজ দিতে দরপত্রের শর্ত শিথিল করার অভিযোগ উঠলেও তা নাকচ করে দেন সিডিএ চেয়ারম্যান। গণপূর্তমন্ত্রী অবশ্য বলছেন, যানজট নিরসনে উড়াল সড়কের মতো স্থাপনা প্রকৃত সমাধান নয়। তার মতে, এজন্য শহরে ধীরগতির যান বন্ধ করার পাশাপাশি সড়ককে রাখতে হবে জঞ্জালমুক্ত। ৩ বছর মেয়াদি প্রকল্পটির মোট ব্যয় ধরা হয়েছে ৩ হাজার ২শ ৫০ কোটি টাকা। যা শেষ হওয়ার কথা ২০২১ সাল নাগাদ।

 

 

 

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

চট্টগ্রাম 24 খবর