channel 24

সর্বশেষ

  • এমপিদের উপজেলা পর্যায়ে দলীয় প্রার্থী না হতে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ: কাদের

  • পর পর রেল দুর্ঘটনার পেছনে চক্রান্ত আছে কি না, তা তদন্ত হবে: প্রধানমন্ত্রী

  • হলি আর্টিজান মামলার রায় যেকোনো দিন

  • রোহিঙ্গা গণহত্যার পূর্ণ তদন্তে আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালতের সম্মতি

  • বিশ্বকাপ বাছাই: ওমানের কাছে ৪-১ গোলে হারলো বাংলাদেশ

বাংলাদেশে বিনিয়োগে উন্মুখ পুরো বিশ্ব: অর্থমন্ত্রী

বাংলাদেশে বিনিয়োগে উন্মুখ পুরো বিশ্ব: অর্থমন্ত্রী

বাংলাদেশসহ উন্নয়নশীল ও গরীব দেশগুলোতে জলবায়ু খাতে সহজ ঋণ ও পুঁজিবাজার সংস্কারে সহায়তা বাড়াবে বিশ্বব্যাংক। আইএমএফ ও বিশ্বব্যাংকের বার্ষিক সভার প্লেনারি সেশনে এ আশ্বাস দেন সংস্থার প্রেসিডেন্ট ডেভিড ম্যালপাস। এছাড়া, বাংলাদেশের বেসরকারি খাতে আরো বেশি বিনিয়োগ করতে চায় সংস্থাটির সহযোগী প্রতিষ্ঠান আইএফসি। অর্থমন্ত্রী জানিয়েছেন, শুধু বিশ্বব্যাংক গ্রুপ নয়, বাংলাদেশে বিনিয়োগের জন্য উন্মুখ এখন পুরো বিশ্ব।

শুক্রবার (১৮ অক্টোবর) বিশ্বব্যাংক ও আইএমএফের বার্ষিক সভায় পঞ্চম দিনের কার্যক্রম শুরু হয় সবচেয়ে আকর্ষণীয় প্লেনারি সেশনের মধ্য দিয়ে। যাতে অংশ নেন বাংলাদেশ থেকে আসা প্রতিনিধি দল। এ সময় আগামী এক বছরে সদস্য দেশগুলোর জন্য উন্নয়ন পরিকল্পনা ও বর্তমান বাস্তবতা তুলে ধরেন বিশ্বব্যাংক প্রধান। অর্থনীতির ভালো-মন্দের সাথে চ্যালেঞ্জ ও ঝুঁকি মোকাবেলায় সহজ শর্তে ঋণ ও জলবায়ুর প্রভাব মোকাবেলায় বাড়তি সহায়তা দেয়ার। সেই সাথে বাংলাদেশসহ বিশ্বের প্রায় সব দেশের পুঁজিবাজারের উন্নয়নে কাজ করার আশ্বাস দেয় সংস্থাটি।

এরপর, বিভিন্ন সংস্থা ও প্রতিষ্ঠানের সাথে বৈঠক করেন বাংলাদেশের অর্থমন্ত্রী। পরামর্শ আসে কর আহরণ বাড়ানো, দক্ষতা উন্নয়ন ও বিদেশি বিনিয়োগ আকর্ষণ বিষয়ে।

সড়ক দুর্ঘটনা কমাতে বিশেষ সেমিনারে যোগ দেন অর্থমন্ত্রী। যেখানে আশ্বাস মেলে এর ক্ষতিকর প্রভাব কমাতে বড় সহায়তার। এরপর সাংবাদিকদের বলেন, বাংলাদেশে বিনিয়োগ করতে মুখিয়ে আছে বিভিন্ন সংস্থা ও দেশ। বিশেষ করে, বেসরকারি খাতে বড় বড় প্রস্তাব নিয়ে এগিয়ে আসতে চায় বিশ্বব্যাংকের সহযোগী প্রতিষ্ঠান আইএফসি।

অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেন, বাংলাদেশে বিনিয়োগ করতে বিভিন্ন সংস্থা আগ্রহী। এখানে সুবিধা হচ্ছে টাকা বন্ডের। টাকা বন্ড হলে আমাদের লায়াবিলিটি বাড়বে না।

এদিন বৈশ্বিক অর্থনীতির অচলাবস্থা কাটাতে বেশকিছু পরামর্শ দেয় বিশ্বব্যাংক ও আইএমএফ।

প্রতিবছরের বার্ষিক সভায় উন্নয়ন, অর্থনীতি কিংবা বিনিয়োগ নিয়ে নতুন করে প্রত্যাশা প্রাপ্তির সমীকরণ যুক্ত হয় বাংলাদেশ, বিশ্ব ব্যাংক কিংবা আইএমেফের মধ্যে। যা বাংলাদেশকে এগিয়ে নেওয়ার ক্ষেত্রে অনেক জায়গায় রাখে বড় ভূমিকা। তবে সেই সভায় এবারের সেই সিদ্ধান্তগুলো কতটুকু বাংলাদেশ কিংবা বিনিয়োগ অথবা কর্মসংস্থান বান্ধব হচ্ছে সেটি এখন দেখার বিষয়।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

বিজনেস 24 খবর