channel 24

সর্বশেষ

  • ভোটের তারিখ পরিবর্তনে সরকারের আপিত্ত নেই: কাদের

  • বিএনপির সমর্থনে জনগণ রাস্তায় নেমে এসেছে: মির্জা ফখরুল

  • ভোট ও পূজা একদিনে হলেও আইন-শৃঙ্খলার অবনতি হবে না: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

  • তুরাগ তীরে জুমার নামাজে লাখো মুসল্লির ঢল

নতুন পদ্ধতির ১৩ ডিজিটের ই-বিন না থাকলে আমদানিতে এলসি খোলা যাবে না

নতুন পদ্ধতির ১৩ ডিজিটের ই-বিন না থাকলে আমদানিতে এলসি খোলা যাবে না

নতুন পদ্ধতিতে অনলাইন ভ্যাট নিবন্ধনের মাধ্যমে ১৩ ডিজিটের ব্যবসা শনাক্তকরণ নম্বর বা ই-বিন না থাকলে কেউ এলসি খুলতে পারবেনা কিংবা কোন পণ্য আমদানি করতে পারবে না।

এনবিআর বলছে, এতে স্বচ্ছতার পাশাপাশি বাড়বে কর আহরণ। আর বিশ্লেষকরা বলছেন, নতুন ভ্যাট আইন বাস্তবায়নের অংশ হিসেবে ই-বিনের কোনো বিকল্প নেই। তবে, অন্যান্য আনুষাঙ্গিক বিষয়গুলোর সাথে সুষ্ঠু সমন্বয় প্রয়োজন।

১৯৯১ থেকে ২০১৭ সাল পর্যন্ত ম্যানুয়াল পদ্ধতিতে ভ্যাট নিবন্ধনের মাধ্যমে ব্যবসা শনাক্তকরণ নম্বর বা বিন সংগ্রহ করে সাড়ে আট লাখ ব্যবসায়ী। ২০১৭ তে শুরু হয় ডিজিটাল পদ্ধতিতে ভ্যাট নিবন্ধন বা ই-বিন প্রক্রিয়া। দুই বছরে নিবন্ধন হয় প্রায় ১ লাখ ৭০ হাজার। আইএমএফের প্রতিবেদন এবং এনবিআরের পর্যবেক্ষণে দেখা যায় যেগুলোর অধিকাংশই ছিল ভুয়া।

পরবর্তীতে আবারো নতুন পদ্ধতিতে ই-বিন নিবন্ধন শুরু করে এনবিআর। সম্প্রতি সংস্থাটি বাংলাদেশের ব্যাংকের কাছে চিঠির মাধ্যমে আহ্বান জানিয়েছে নতুন ই-বিন ছাড়া যেন কাউকে এলসি খুলতে দেয়া না হয়। অর্থাৎ ১৩ ডিজিটের নতুন নম্বর ছাড়া কেউ কোনো পণ্য আমদানি করতে পারবেন না।

নতুন ভ্যাট আইনের অংশ হিসেবে এই শনাক্তকরণ নম্বর দেয়া শুরু হয়েছে জুলাই থেকে। দ্বিতীয় দফায় মেয়াদ বাড়ানোর ফলে ব্যবসায়ীরা নিবন্ধনের সুযোগ পাচ্ছেন ৩১ অক্টোবর পর্যন্ত। এরপর থেকে পূর্ববর্তী নম্বরের কার্যকারিতা থাকবে না। তবে, তথ্যগুলো থাকবে সংরক্ষিত।

এরই মধ্যে নতুন ই-বিন সংগ্রহ করেছে প্রায় ৪০ হাজার ব্যবসায়ী।

 

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

বিজনেস 24 খবর