channel 24

সর্বশেষ

  • করোনাকালে ভূতুড়ে বিদ্যুৎ বিল নিয়ে গ্রাহকদের ক্ষোভ

  • লিবিয়ায় ২৬ বাংলাদেশিকে হত্যা: বাচ্চু মিলিটারি ৫ দিনের রিমান্ডে

  • পঞ্চগড়ে বজ্রপাতে বাবা ছেলেসহ ৩ জনের মৃত্যু

  • বাস-লঞ্চে উধাও স্বাস্থ্যবিধি

  • স্বাস্থ্যবিধি অমান্য করায় এমভি প্রিন্স লঞ্চ জব্দ

  • লকডাউন শেষে মুক্ত হলো আকাশপথ, চলছে উড়োজাহাজ

  • লিবিয়ায় নিহতদের স্বজনরা মুক্তিপণের টাকা হাজী কামালকে দিয়েছিলেন

  • হিলি রেলপথ দিয়ে ভারত থেকে দ্বিতীয় দফায় পেঁয়াজ আমদানি হয়েছে

  • না ফেরার দেশে চলে গেলেন প্রধানমন্ত্রীর উপ-প্রেস সচিব আশরাফুল আলমের বাবা

  • লেনদেন বাড়লেও দুই স্টক এক্সচেঞ্জে বড় দরপতন

  • ২৬ বাংলাদেশি হত্যাকাণ্ডের বিষয়ে কঠোর নিন্দা জানিয়েছে লিবিয়ার সরকার

  • 'আমেরিকায় বর্ণবৈষম্য করোনা ভাইরাসের চাইতেও ভয়ংকর'

  • তামিম ইকবাল ডব্লিউএফপি'র জাতীয় গুডউইল অ্যামবাসাডর হিসেবে নিযুক্ত

  • গর্ভবতী মায়েদের অগ্রাধিকার ভিত্তিতে করোনা পরীক্ষার নির্দেশ হাইকোর্টের

  • সরকারি অফিসে ২৫ শতাংশের বেশি উপস্থিত থাকতে পারবেন না

গত সপ্তাহে ৫ কার্যদিবসের ৩ দিনেই কমেছে সূচক

গত সপ্তাহে ৫ কার্যদিবসের ৩ দিনেই কমেছে সূচক

সর্বশেষ সপ্তাহে ৫ কার্যদিবসের মধ্যে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের প্রধান সূচক কমেছে ৩ দিন। আর চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের সার্বিক সূচক কমেছে ৪ কার্যদিবসেই। সপ্তাহের ব্যবধানে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের প্রধান সূচক ডিএসইএক্স কমে ৭৮ পয়েন্ট। চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের সার্বিক সূচক সিএএসপিআই কমে ২২২ পয়েন্ট। অধিকাংশ শেয়ারের দাম কমেছে দুই স্টক এক্সচেঞ্জেই।

গেলো সপ্তাহে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে লেনদেনের শুরুটা ছিলো সূচকের ঊর্ধ্বমুখী ধারায়। প্রধান সূচক ডিএসইএক্স আগের সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসের চেয়ে ৯ পয়েন্ট বেড়ে সপ্তাহ শুরু হয় ৪ হাজার ৯৪২ পয়েন্টে। দ্বিতীয় কার্যদিবসে বাড়ে আরো ১৭ পয়েন্ট। পরের তিন কার্যদিবসে মোট ১০৪ পয়েন্ট কমে সপ্তাহ শেষ হয়, ৪ হাজার ৮৫৫ পয়েন্টে; যা আগের সপ্তাহের চেয়ে ৭৮ পয়েন্ট কম।

সূচকের সাথে কমে গড় লেনদেন। প্রথম কার্যদিবসে লেনদেন হয় সপ্তাহের সর্বনিম্ন ৩১৭ কোটি টাকা। সর্বোচ্চ ৪৩৫ কোটি টাকা লেনদেন হয় মঙ্গলবার। আগের সপ্তাহের চেয়ে ৪২ কোটি টাকা কমে গড় লেনদেন নামে ৩৭৯ কোটি টাকায়।

লেনদেন হওয়া শেয়ার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মধ্যে দাম বাড়ে ৮৩টির, কমে ২৩৯টির। আর অপরিবর্তিত ছিলো ৩৩টির দাম। ডিএসইতে দাম বাড়ার শীর্ষে ছিলো প্রভাতী ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি লি, গ্লোবাল ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি লি, ফেডারেল ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি লি, প্যারামাউন্ট ইন্স্যুরেন্স কো.লি, জনতা ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি লি।

দাম কমার শীর্ষে ছিলো মুন্নু সিরামিক ইন্ডাস্ট্রিজ লি, আল-হাজ্ব টেক্সটাইল মিলস লি, জেএমআই সিরিঞ্জেস অ্যান্ড মেডিক্যাল ডিভাইসেস লি, মুন্নু জুট স্ট্যাফলার্স লিমিটেড, সায়হাম কটন মিলস লিমিটেড।

গেলো সপ্তাহে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে ৫ কার্যদিবসের মধ্যে সার্বিক সূচকের নিম্নমুখী ধারা ছিলো ৪ কার্যদিবসেই। সিএএসপিআই আগের সপ্তাহের

শেষ কার্যদিবসের চেয়ে ৯ পয়েন্ট কমে সপ্তাহ শুরু হয় ১৪ হাজার ৯৭৩ পয়েন্ট। তবে সোমবার বাড়ে ৮৯ পয়েন্ট। আর শেষ ৩ কার্যদিবসে মোট ৩শ ২ পয়েন্ট কমে সপ্তাহ শেষ হয়, ১৪ হাজার ৭৬০ পয়েন্টে যা আগের সপ্তাহের চেয়ে ২২২ পয়েন্ট কম।

সূচক কমলেও বাড়ে গড় লেনদেন। প্রথম কার্যদিবসে লেনদেন হয়, ৩২ কোটি টাকা। সপ্তাহের সর্বোচ্চ ৩৯ কোটি টাকা লেনদেন হয় মঙ্গলবার।

আর সর্বনিম্ন ১৭ কোটি টাকা লেনদেন হয় বৃহস্পতিবার। সপ্তাহের ব্যবধানে ৪ কোটি টাকা বেড়ে গড় লেনদেন হয় ৩২ কোটি টাকা।

লেনদেন হওয়া শেয়ার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মধ্যে দাম বাড়ে ৭৯টির; কমে ২০৩ টির। আর অপরিবর্তিত ছিলো ২৪টির দাম।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

বিজনেস 24 খবর