channel 24

সর্বশেষ

  • ৮ বছর পেরিয়ে নয়ে পা রাখলো চ্যানেল টোয়েন্টিফোর

  • করোনায় মারা গেলেন আ.লীগের সাবেক এমপি হাজী মকবুল

  • অনির্দিষ্টকাল মানুষের আয়ের পথ বন্ধ রাখা সম্ভব নয় জাতির উদ্দেশে প্রধানমন্ত্রী

  • ঈদুল ফিতর উপলক্ষে জাতির উদ্দেশে শেখ হাসিনার ভাষণ

  • মহামারিতে কাল বিষাদের ঈদ

  • শারীরিক দূরত্ব মেনে বায়তুল মোকাররমে ৫টি জামাত

  • হালদা নদীতে আরও একটি ডলফিন মারা পড়লো

  • ৮ জুন থেকে লা লিগা ফিরতে বাধা নেই

  • স্বাস্থ্যবিধি মেনে ঈদ উদযাপনের আহ্বান কাদেরের

  • পাকিস্তানের সাবেক ক্রিকেটার তৌফিক উমর করোনায় আক্রান্ত

  • জয়পুরহাটে অসহায়দের পাশে দাঁড়িয়েছে 'করোনা যুদ্ধে আমরা' সংগঠন

  • করোনায় ভেঙে পড়েছে ই-কমার্স খাত

  • ভিন্ন প্রেক্ষাপটে উদযাপিত হবে এবারের ঈদ

  • অনুমোদন না পেলেও মঙ্গলবার থেকে করোনা পরীক্ষা শুরু করবে গণস্বাস্থ্য

  • শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় বিপাকে কিন্ডারগার্টেনের শিক্ষকরা

উন্নয়নশীল দেশে পরিণত হলে দেশের রপ্তানি আয় কমতে পারে ৭ বিলিয়ন ডলার

উন্নয়নশীল দেশে পরিণত হলে দেশের রপ্তানি আয় কমতে পারে ৭ বিলিয়ন ডলার

স্বল্পোন্নত দেশের তালিকা থেকে বের হলে প্রতিবছর বাংলাদেশের রপ্তানি আয় কমতে পারে ৭ বিলিয়ন ডলার, যা সময়ের সাথে বাড়বে আরো। স্বল্পসুদের বদলে নিতে হবে মোটা সুদের ঋণ। পরিকল্পনা কমিশনের সাম্প্রতিক এক প্রতিবেদনে উঠে এল এমন সব ঝুকির কথা। যা নিয়ে এখন থেকেই বিভিন্ন দেশের সাথে দ্বিপাক্ষিক চুক্তির পরামর্শ বিশ্লেষকদের। তবে পরিকল্পনা মন্ত্রী বলছেন, উন্নয়নশীল দেশে পরিণত হলে বাড়বে বাংলাদেশের সুযোগ। কমবে ঋণের শর্তের বোঝা।

৩টি শর্তই পূরণ করে একদিকে উন্নয়নশীল হয়ে ওঠার হাতছানি অন্যদিকে স্বল্পোন্নত দেশের নানাবিধ সুযোগ-সুবিধা হাতছাড়া হওয়ার ঝুকি। এমনই এক বিপরীত্মুখী সমীকরণের সম্ভাবনা আর ঝুকির জটিল হিসাব মেলাতে ব্যস্ত এখন বাংলাদেশ।

পরিকল্পনা কমিশনের সাম্প্রতিক এক প্রতিবেদন বলছে, উন্নয়নশীল দেশে উত্তরণের পর বিভিন্ন দেশে বিদ্যমান শূণ্য শুল্ক সুবিধা হারানোর ফলে ২০২৭ সাল থেকেই প্রতিবছর বাংলাদেশ হারাতে পারে প্রায় ৭ বিলিয়ন ডলারের রপ্তানি আয়। ৪ বছরের মাথায়ই যা ঠেকতে পারে ১৩ বিলিয়নে। সহজ শর্তের ঋণ যা এখন মোট বিদেশি ঋণের ৬০ শতাংশ, কমবে সেই অংকটাও। ২০২৬ সাল নাগাদ তা নেমে আসবে ৪৬ শতাংশে আর ২০৪১ সাল নাগাদ মাত্র ৪ শতাংশে।

উন্নয়নশীল হয়ে ওঠার শর্ত মেনে ভবিষ্যতে বাংলাদেশকে বেশিরভাগ ঋণই নিতে হবে মোটা অংকের সুদে। পরিকল্পনা কমিশনের হিসাবে, এখন যা মোট বিদেশি ঋণের ২৬ শতাংশ, তাই ২০২৬ সাল নাগাদ দাঁড়াবে প্রায় সাড়ে ৪২ শতাংশে আর ২০৪১ সালে ৮২ দশমিক ৪ শতাংশে। ধাক্কা সামলাতে প্রতিবেদনে সরকারকে কর জিডিপি অনুপাত ২০৩১ সাল নাগাদ ১৫ শতাংশে নিয়ে যাওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

পরিকল্পনা কমিশনের প্রতিবেদনে ২০২৪ সাল নাগাদ বিশ্বব্যাংকের ব্যবসা সহজীকরণ সূচকে এখনকার ১৭৬ থেকে ৭৫ তম অবস্থানে তুলে আনার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে শিক্ষা-খাতে ব্যাপক হারে বরাদ্দ বৃদ্ধির।

নিউজটির বিস্তারিত প্রতিবেদন ভিডিওতে-

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

বিজনেস 24 খবর