channel 24

সর্বশেষ

  • শ্রিপা ও সিফাতের মুক্তিতে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ চান পরিবার ও সহপাঠিরা

  • ওসি প্রদীপসহ ৭ আসামি ৭ দিনের রিমান্ডে

  • মানবপাচারের অভিযোগে ১ লিবিয়ান নাগরিকসহ আটক ৬

  • করোনা আক্রান্তে ইতালিকে ছাড়িয়ে ১৫তম বাংলাদেশ

  • ওসি প্রদীপের যত কুকর্ম

  • সুপ্রিম কোর্টে দুই ধরণের আদালত চালানোর সিন্ধান্ত

  • মেজর (অব.) সিনহা হত্যা মামলায় ওসি প্রদীপসহ ৭ আসামীকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ

  • রেলের অতিরিক্ত সচিব মাহবুব কবির মিলন ওএসডি

  • নেত্রকোনায় ট্রলারডুবিতে ময়মনসিংহের কোনাপাড়া এখন শোকের গ্রাম

  • সিলেটের চৌহাট্টায় বোমা নয়, মিললো টাইস কাটার মেশিন

  • করোনা মোকাবেলায় বাংলাদেশকে অতিরিক্ত ৩০ লাখ মার্কিন ডলার ঋণ দিচ্ছে এডিবি

  • বিশ্ববাজারে আবারো বাড়লো স্বর্ণের দাম

  • জাতীয় দলের তিন সতীর্থ করোনা পজিটিভ হওয়ায় অস্বস্তিতে বাকিরা

  • বুটিকশপে স্বাবলম্বী ফরিদপুরের মিতা, করেছেন কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা

  • মহামারির মধ্যেই অর্থনীতিকে এগিয়ে নিতে পরিকল্পনার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর

ঈদের ছুটির পর সপ্তাহজুড়ে ইতিবাচক প্রভাব পুঁজিবাজারে

ঈদের ছুটির পর সপ্তাহজুড়ে ইতিবাচক প্রভাব পুঁজিবাজারে

ঈদুল আযহার দীর্ঘ বন্ধের পর পরিবর্তন হয়েছে পুঁজিবাজারের চিত্র। প্রথম সপ্তাহের ৫ কার্যদিবসের মধ্যে ৪ দিনই দেশের দুই স্টক এক্সচেঞ্জের সার্বিক সূচক ছিলো ইতিবাচক ধারায়। সপ্তাহের ব্যবধানে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের প্রধান সূচক ডিএসইএক্স বাড়ে ৩৫ পয়েন্ট। তবে গড় লেনদেন কিছুটা কমেছে। অন্যদিকে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে সার্বিক সূচকের পাশাপাশি বেড়েছে গড় লেনদেনও।

ঈদুল আযহার পর ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ- ডিএসইর প্রথম সপ্তাহের কার্যক্রম শেষ হলো সূচকের ঊর্ধ্বমুখী ধারায়। দীর্ঘ বন্ধের পর প্রথম কার্যদিবসে প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ১৫ পয়েন্ট বেড়ে হয় ৫ হাজার ২১৬। দ্বিতীয় কার্যদিবসে ১১ পয়েন্ট বাড়লেও চতুর্থ কার্যদিবসে কমে ৪ পয়েন্ট। আর বৃহস্পতিবার ১৩ পয়েন্ট বেড়ে সপ্তাহ শেষ হয় ৫ হাজার ২৩৬ পয়েন্টে, যা ঈদের আগের সর্বশেষ সপ্তাহের চেয়ে ৩৫ পয়েন্ট বেশি।

সূচক বাড়লেও কমে গড় লেনদেন। প্রথম কার্যদিবসে লেনদেন হয়, সপ্তাহের সর্বনিম্ন ৩২৩ কোটি টাকা। আর সর্বোচ্চ ৫৪২ কোটি টাকা লেনদেন হয় বুধবার।

গেলো সপ্তাহে লেনদেন হওয়া শেয়ার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মধ্যে দাম বাড়ে ২১২টির; কমে ১৩০টির। আর অপরিবর্তিত ছিলো ১৩টির দাম। আগের সপ্তাহের তুলনায় ১৩ কোটি টাকা কমে গড় লেনদেন হয় ৪৬০ কোটি টাকা।

ডিএসইতে দাম বাড়ার শীর্ষে ছিলো

ফ্যামিলিটেক্স লিমিটেড
জেনারেশন নেক্সট ফ্যাশন লি.
এ্যাপোলো ইস্পাত কমপ্লেক্স লি.
স্ট্যান্ডার্ড সিরামিক ইন্ডাস্ট্রিজ লি.
এস.এস. স্টিল লিমিটেড

দাম কমার শীর্ষে ছিলো

সানলাইফ ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি লি.
SEML FBLSL গ্রোথ ফান্ড
VFS থ্রেড ডায়িং লিমিটেড
ফার্স্ট ফাইন্যান্স লিমিটেড
এপেক্স ট্যানারি লিমিটেড

সূচকের ঊর্ধ্বমুখী ধারা ছিলো, চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জ- সিএসইতেও। প্রথম কার্যদিবসে সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ছিলো ১৫ হাজার ৯৫৭। উত্থান-পতনের মধ্যে সপ্তাহ শেষ হয় ১৬ হাজার ৪০ পয়েন্টে যা আগের সপ্তাহের চেয়ে ১৪৪ পয়েন্ট বেশি।

সূচকের সাথে বাড়ে গড় লেনদেন। প্রথম কার্যদিবসে লেনদেন হয়, সপ্তাহের সর্বনিম্ন ১৫ কোটি টাকা করে। সর্বোচ্চ ৪৪ কোটি টাকা লেনদেন হয় মঙ্গলবার।

গেলো সপ্তাহে সিএসইতে লেনদেন হওয়া শেয়ার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মধ্যে দাম বাড়ে ১৯২টির, কমে ১০৫টির। আর অপরিবর্তিত ছিলো ১২টির দাম। ঈদের আগের সপ্তাহের তুলনায় ৭ কোটি টাকা বেড়ে গড় লেনদেন হয় ২৯ কোটি টাকা।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

বিজনেস 24 খবর