channel 24

সর্বশেষ

  • কমলাপুর স্টেশনে ট্রেনের বগি থেকে নারীর মরদেহ উদ্ধার

  • ২২ তারিখের বৈঠকে বকেয়া বিষয়ে সিদ্ধান্ত: ট্যানার্স অ্যাসোসিয়েশন...

  • পাওনা পরিশোধের নির্দেশনা না এলে...

  • তৈরি হবে অচলাবস্থা: হাইড অ্যান্ড স্কিন মার্চেন্ট অ্যাসোসিয়েশন

  • জাতীয় স্কুল মিল নীতিমালার খসড়া মন্ত্রিসভায় অনুমোদন...

  • প্রাথমিকে মোট ক্যালরির ৩০ ভাগ পূরণ করতে হবে স্কুলকে

  • নকশা জালিয়াতি: বনানীর এফ আর টাওয়ারের মালিক ফারুক গ্রেপ্তার

  • খালেদা জিয়াকে মুক্ত করতে না পেরে বিদেশে নালিশ করছে বিএনপি: সেতুমন্ত্রী

  • ডেঙ্গু: ২৪ ঘণ্টায় হাসপাতালে ভর্তি ১,৬১৫ জন: স্বাস্থ্য অধিদপ্তর

  • ঢাকা, বরিশাল, খুলনা, ফরিদপুর ও ময়মনসিংহে ৬ জনের মৃত্যু

  • বঙ্গবন্ধু হত্যায় জিয়া নয়, আ.লীগের লোকজন জড়িত: ফখরুল

  • জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা ভিপি নুরের

  • নবম ওয়েজ বোর্ড নিয়ে রাষ্ট্রপক্ষের আবেদনের ওপর আদেশ কাল...

  • সাংবাদিক ছাড়া গণমাধ্যম মালিকদের অস্তিত্ব নেই: আপিল বিভাগ

  • খুলনা উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ কার্যালয়ে দুদকের অভিযান চলছে

  • তিন দিনের সফরে রাতে ঢাকায় আসছেন ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী

৫ বছরে ব্যাংকগুলোর ঋণ বেড়েছে ৭৯ শতাংশ, আমানত ৫৮ শতাংশ

৫ বছরে ব্যাংকগুলোর ঋণ বেড়েছে ৭৯ শতাংশ, আমানত ৫৮ শতাংশ

গত ৫ বছরে দেশের ব্যাংকগুলোর আমানত ৫৮.৫৫ শতাংশ বাড়লেও এই সময় ব্যাংকগুলোর ঋণ বেড়েছে ৭৯. ১৩ শতাংশ। এ সময় কৃষিঋণ বেড়েছে ৪৭ দশমিক ২৭ শতাংশ। রোববার (২৮ জুলাই) সংসদ ভবনে অর্থ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় কমিটির বৈঠকের কার্যপত্র থেকে এ তথ্য পাওয়া যায়।

বৈঠকে মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে জানানো হয়, ৮টি রাষ্ট্রায়াত্তসহ দেশের ৫৯টি বাণিজ্যিক ব্যাংকের ২০১৪ সালে আমানতের পরিমাণ ছিল ৭ লাখ ১০ হাজার ৪২৩ কোটি টাকা। ২০১৯ সালের এপ্রিল পর্যন্ত এটি বেড়ে ১১ লাখ ২৬ হাজার ৩৭৩ কোটিতে দাঁড়িয়েছে। বৃদ্ধির হার ৫৮.৫৫ শতাংশ।

এছাড়া, ২০১৪ সালের ব্যাংকগুলোর ঋণের পরিমাণ ছিল যেখানে ৫ লাখ ২৮ হাজার ৭৫৫ কোটি টাকা, তা ৭৯.১৩ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়ে এপ্রিল ২০১৯ তারিখে দাঁড়িয়েছে ৯ লাখ ৪৭ হাজার ১৭৭ কোটি টাকা।

এদিকে, এ সময় কৃষিঋণ বেড়েছে ৪৭.২৭ শতাংশ বেড়ে ১৬ হাজার ৩৬ কোটির স্থলে (জুন ২০১৯ তারিখে) ২৩ হাজার ৬১৬ কোটি হয়েছে।

বৈঠক থেকে আরও জানা যায়, জুন ২০১৯ সালে বাংলাদেশের বৈদেশিক ঋণের পরিমাণ ৩৭ হাজার ৯৪২ মিলিয়ন মার্কিন ডলার। গত বছর একই সময় এটি ছিল ৩৩ হাজার ৫১১ মিলিয়ন ডলার। বৈঠকে আগামী ৫ বছরে বৈদেশিক ঋণের একটি প্রক্ষেপণও জানানো হয়েছে।

এতে বলা হয়েছে, বৈদেশিক ঋণ ২০২০ সালে ৪৪ হাজার ৫৮৯ মিলিয়ন মার্কিন ডলার, ২০২১ সালে ৫১ হাজার ৬১২ মিলিয়ন মার্কিন ডলার ও ২০২২ সালে ৫৮ হাজার ৯১২ মিলিয়ন মার্কিন ডলার হতে পারে। রূপপুর পারমানবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র, এমআরটি, মাতারবাড়ির মতো বড় বড় প্রকল্পের কারণে আগামী বছরগুলোয় বৈদেশিক ঋণ বাড়বে বলে উল্লেখ করা হয়।

অর্থ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় কমিটির সভাপতি আবুল হাসান মাহমুদ আলীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত বৈঠকে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তাফা কামাল, মো. আব্দুস শহীদ, মোস্তাফিজুর রহমান চৌধুরী, আবুল কালাম মো. আহসানুল হক চৌধুরী. আহমেদ ফিরোজ কবির, রুমানা আলী ও রানা মোহাম্মদ সোহেল অংশ নেন।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

বিজনেস 24 খবর