channel 24

সর্বশেষ

  • আ.লীগের আমলে সংখ্যালঘুরা নিরাপদে থাকে: সেতুমন্ত্রী

  • রোহিঙ্গা ইস্যুতে দায় এড়াতে পারে না জাতিসংঘ: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

  • বাঘাইছড়িতে ফের সেনাটহলে গুলি, পাল্টা গুলিতে সন্ত্রাসী নিহত

  • দেশের উন্নয়নে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি কাজে লাগাতে রাষ্ট্রপতির আহ্বান

  • ধর্ষণের অধিকাংশ ঘটনায় নির্যাতনকারী ক্ষমতাসীন দলের: সেলিমা রহমান

  • ডেঙ্গু জ্বরে সাতক্ষীরায় গৃহবধূর মৃত্যু

  • সাফ অনূর্ধ্ব ১৫ ফুটবল: ভূটানকে ৫-২ গোলে বিধ্বস্ত করলো বাংলাদেশ

রপ্তানি বাড়াতে টার্গেট ব্রাজিল ও রাশিয়া: বাণিজ্যমন্ত্রী

রপ্তানি বাড়াতে টার্গেট ব্রাজিল ও রাশিয়া: বাণিজ্যমন্ত্রী

ইউরোপীয় ইউনিয়ন কিংবা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। ঘুরে ফিরে বাংলাদেশি পণ্যের গন্তব্য এই দিকেই। বাণিজ্যমন্ত্রী বলছেন, রপ্তানির আরও বাজার খুঁজতে ব্রাজিল আর রাশিয়াকে টার্গেট করেছেন। গত অর্থবছরের রপ্তানি নিয়ে এক সংবাদ সম্মেলেন মঙ্গলবার এমনটা জানান তিনি। বাণিজ্য মন্ত্রণালয় বলছে, চামড়া ও পাট এবং এই দুই খাত থেকে উৎপাদিত পণ্যের রপ্তানি কমেছে। তবে বেড়েছে কৃষিজ বিভিন্ন পন্যের।

রপ্তানিতে প্রধান খাত তৈরি পোশাক। যা মোট রপ্তানির ৮০ শতাংশেরও বেশি। আর মেড ইন বাংলাদেশ পোশাকের গন্তব্য মূলত ইউরোপ আর মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। ২০১৮-১৯ অর্থ বছরের রপ্তানি আয় নিয়ে, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সংবাদ সম্মেলনে উঠে এলো সেই চিরচেনা চিত্রটাই।

বাণিজ্যমন্ত্রীর উত্থানও পোশাক খাতের ব্যবসায়ী হিসেবেই। তিনি বলছেন, বাজার একমুখি হওয়ায় তৈরি পোশাকের দাম নিয়ে বঞ্চনার শিকার হচ্ছেন তারা। এ থেকে বের হতে পাল তুলতে চান নতুন নতুন দিকে।

বাণিজ্য মন্ত্রণালয় বলছে, চীন-রাশিয়া-দক্ষিণ কোরিয়া কিংবা ভারতের বাজারে রপ্তানি বাড়ছে প্রতিবছরই। দেশ অনুযায়ী বেশি বেড়েছে ভারত আর চীনে প্রবৃদ্ধি ৪০ শতাংশের ওপরে। অন্যদিকে চামড়া ও পাট থেকে কমছে রপ্তানি। তবে কৃষিজ পণ্যের রপ্তানি বাড়ছে উল্লেখযোগ্যভাবে। সবমিলিয়ে গত অর্থবছরে রপ্তানি হয়েছে ৪ হাজার ৬৩৭ কোটি ডলার বা ৩ লাখ ৮০ হাজার ২৩৪ কোটি টাকা।

এদিকে এক প্রশ্নে তিনি জানান, যেকোন উৎসবেই একশ্রেণির ব্যবসায়িরা নিত্যপণ্যের দাম বাড়িয়ে দেয়। তার আশা ঈদের আগেই ঠিক হবে পেঁয়াজ-রসুন আর আদার বাজার।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

বিজনেস 24 খবর