channel 24

সর্বশেষ

  • রংপুরে ওসি ও ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে জমি দখলের অভিযোগ

  • র‍্যাব সদস্যদের আবাসনের জন্য জমি অধিগ্রহণ; ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার শঙ্কায় ২৫০ পরিবার

  • বিদ্যালয়ের মাঠ পরিস্কার করতে গিয়ে শতাধিক শিক্ষার্থী অসুস্থ

  • কানাডায় বঙ্গবন্ধুর খুনি নূরের অবস্থান জানতে বাংলাদেশের আবেদন মঞ্জুর

  • টেকনাফে বন্দুকযুদ্ধে ২ রোহিঙ্গাসহ নিহত ৩

  • বশেমুরবিপ্রবি উপাচার্যের পদত্যাগের দাবিতে বিক্ষোভ

  • আজ থেকে শুরু ইউরোপা লিগ

  • থানায় ধর্ষকের সাথে বিয়ে, ওসি বরখাস্ত

  • নোয়াখালীতে আ. লীগের দুগ্রুপের সংঘর্ষ, আহত ১০

  • জুভেন্টাসের সাথে অ্যাতলেটিকো মাদ্রিদের ড্র

  • দি মারিয়ার জোড়া গোলে স্বপ্নীল শুরু পিএসজির

  • রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে বহিরাগতদের সাথে ছাত্রলীগের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া

  • যুদ্ধাপরাধে অভিযুক্ত হামদর্দের এমডির পক্ষে সংবাদ সম্মেলন

  • ববির শিক্ষার্থীদের বরিশাল-পটুয়াখালী মহাসড়ক অবরোধ

  • বঙ্গবন্ধুর খুনি নূর চৌধুরীর অবস্থান প্রকাশে বাধা নেই : কানাডার আদালত

মাসে ৩১ হাজার কোটি টাকা আয়ের চ্যালেঞ্জ এনবিআরের

মাসে ৩১ হাজার কোটি টাকা আয়ের চ্যালেঞ্জ এনবিআরের

পৌনে চার লাখ কোটি টাকার বেশি রাজস্ব আয়ের লক্ষ্য নিয়ে নতুন বছরে যাত্রা শুরু জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর)। যা আদায়ে বাড়ানো হয়নি করমুক্ত আয়সীমা তবে ধনীদের জন্য রয়েছে বাড়তি সুবিধা। আয়ের জন্যও বড় নির্ভরতা ভ্যাটের ওপর। এনবিআর জানায়, লক্ষ্য চ্যালেঞ্জিং তবে অর্জন সম্ভব। এবং তা আদায় করতে গিয়ে সাধারণকে বিপদে ফেলা হবে না। আর বিশ্লেষকদের মতে, একদিকে রাজস্ব আদায় যেমন কঠিন হবে, অন্যদিকে করের বোঝায় চাপে থাকবে সাধারণ মানুষ।

তিন লাখ ৭৭ হাজার ৮১০ কোটি টাকা রাজস্ব আয়ের লক্ষ্য নিয়ে নতুন অর্থবছর শুরু জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর)। যা বিদায়ী অর্থবছরের সংশোধিত লক্ষ্যের চেয়ে ১৯ শতাংশ বেশি।

বিরাট এ লক্ষ্য পূরণে এনবিআরকে মাসে ৩১ হাজার ৪৮৪ কোটি এবং দিনে অন্তত এক হাজার ৪৯ কোটি টাকার রাজস্ব আয় করতে হবে। আর এ জন্য এনবিআরকে অর্থবছরের শুরু থেকেই ছুটতে হচ্ছে করের পেছনে।

জিনিসপত্রের দাম প্রতি বছর বাড়লেও শেষপর্যন্ত পাশ হওয়া বাজেটে আবারো বাড়ল না সাধারণের করমুক্ত আয়ের সীমা। গ্রামের দরিদ্রদেরও বিদ্যুৎ সংযোগ পেতে বাধ্যতামূলক রইল টিআইএন।

অন্যদিকে বহাল থাকল কালো টাকা সাদা করার সুযোগ কিংবা ধনীদের সারচার্জমুক্ত বাড়তি আয়ের সীমা। শেষ পর্যন্ত তাই সাধারণের ওপর চাপ দিয়ে আর ধনীদের ছাড় দিয়ে রাজস্ব আয়ের এই বিশাল লক্ষ্য অর্জন সম্ভব কি না তা নিয়ে সন্দেহ থেকেই গেল।

প্রায় ২৮ বছর পর এ বাজেটেই বাস্তবায়ন হতে যাচ্ছে নতুন ভ্যাট আইন, যার ওপরেই আয়ের জন্য সরকারের মূল নির্ভরতা। এতে স্তর রয়েছে সবমিলিয়ে ৮টি। সর্বনিম্ন ২ ও সর্বোচ্চ ১৫ শতাংশ। পণ্য কিনতে একই কর হার থাকলো ধনী আর গরিবের। বিভিন্ন পণ্যে করের বাড়তি হার আরো চাপে ফেলবে সাধারণকে। অন্যদিকে হয়রানি ছাড়া নতুন ভ্যাট আইন বাস্তবায়ন নিয়েও থাকছে শংকা।

চলতি অর্থবছরে ভ্যাট থেকে সরকারের আয়ের লক্ষ্য ১ লাখ ২৩ হাজার ৬৭ কোটি টাকা।

নিউজটির ভিডিও-

 

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

বিজনেস 24 খবর