channel 24

ব্রেকিং নিউজ

  • অবৈধ ক্যাসিনো ব্যবসা: রাজধানীর গুলশানে ঢাকা মহানগর...

  • দক্ষিণ যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক খালেদ ভূঁইয়া আটক...

  • মতিঝিলে ফকিরেরপুল ইয়ংমেনস ক্লাবে অভিযানে আটক ১৪২

বাজেটে এবারও গুরুত্ব পায়নি বাণিজ্যিক কৃষি

বাজেটে এবারও গুরুত্ব পায়নি বাণিজ্যিক কৃষি

বাজেটে আবারো গুরুত্ব পেয়েছে খোরাকী কৃষি। নির্দেশনা নেই, চাহিদার অতিরিক্ত ফসলের ব্যবস্থাপনা নিয়ে। তাই কৃষি বিশেষজ্ঞরা বলছেন, উৎপাদিত ফসলের ন্যায্যমূল্য কৃষক পাবে কি না, সেই সংশয় থেকেই গেল। আর উদ্যোক্তাদের মতে, প্রধান কাঁচামালের ওপর থাকা শুল্ক না কমায়; মাছ ও মুরগির খাবারের দামও কমবে না।

সমৃদ্ধির অগ্রযাত্রায় বাংলাদেশ। এমন স্লোগানে বৃহস্পতিবার (১৩ জুন) ঘোষণা হলো দেশের ৪৭ তম বাজেট।

কৃষিখাতে মোট বাজেটের ৫ দশমিক ৪ শতাংশ বরাদ্দের কথা বলা হলেও ফসল, প্রাণিসম্পদ ও মৎস্য খাতে বরাদ্দ মাত্র ১৬ হাজার ৯৮২  কোটি টাকা। যা গেলো বছরের তুলনায় টাকার অংকে বেশি।

সাবেক কৃষিসচিব আনোয়ার ফারুক জানান, আওয়ামী সরকারের আমলেই দেশ খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ। কোন কোন ক্ষেত্রে অতিরিক্ত খাদ্য উৎপাদিত হচ্ছে। এই বাজেটেও উৎপাদনের ওপর জোর দেওয়া হয়েছে। কিন্তু চাহিদার অতিরিক্ত খাদ্য কিভাবে ব্যবস্থাপনা করা হবে তা নিয়ে কোন পদক্ষেপ নেই এই বাজেটে।

এদিকে মৎস্য ও পোল্ট্রি শিল্প উদ্যোক্তারা জানান, খাতটির যে কটি কাঁচামালের ওপর শুল্ক প্রত্যাহার করা হয়েছে তা এখন আর ব্যবহার করা হয় না।  

এই বাজেটে নতুন বিষয় শস্য বিমা। এছাড়াও সারে ও যান্ত্রিকীকরণে ভর্তূকি রাখা হয়েছে ৯ হাজার কোটি টাকা। এরপরও কৃষি অর্থনীতিবিদরা বলছেন, সরকারের উচিত ছিল কৃষির বাণিজ্যিকিকরণকে গুরুত্ব দিয়ে কৃষির বরাদ্দ নিশ্চিত করা।

২০১৯-২০২০ অর্থবছরে বাজেটের আকার ৫ লাখ ২৩ হাজার কোটি  টাকা।

ভিডিওতে বিস্তারিত প্রতিবেদন-

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

বিজনেস 24 খবর