channel 24

সর্বশেষ

  • ঈদের আগের ৭ ও পরের ৫ দিন সিএনজি ও পেট্রোল পাম্প ২৪ ঘণ্টা খোলা...

  • আগের ৩ দিন ট্রাক, কাভার্ড ভ্যান চলাচল বন্ধ থাকবে: কাদের

  • ভারতের লোকসভা নির্বাচন: বিজেপি জোট এগিয়ে ৩২৬ আসনে...

  • কংগ্রেস জোট ১০৫ আসনে; পশ্চিমবঙ্গে বিজেপি-তৃণমূল হাড্ডাহাড্ডি লড়াই...

  • বসিরহাটে এগিয়ে নুসরাত; যাদবপুরে মিমি চক্রবর্তী; ঘাটালে এগিয়ে দেব

চিলিতে ভাসমান সৌর বিদ্যুৎ উৎপাদন প্রকল্প চালু

চিলিতে ভাসমান সৌর বিদ্যুৎ উৎপাদন প্রকল্প চালু

চিলির লস ব্রোসেস খনিতে পরীক্ষামূলকভাবে ভাসমান সৌর বিদ্যুৎ উৎপাদন প্রকল্প চালু করেছে খনি ও জ্বালানি খাতের প্রতিষ্ঠান অ্যাংলো আমেরিকান। ১২শ বর্গফুট আয়তনের এই প্রকল্পে উৎপাদন হচ্ছে ৮৬ কিলোওয়াট বিদ্যুৎ। যেখান থেকে বিদ্যুৎ সংযোগ দেয়া হয়েছে পার্শ্ববর্তী আবাসিক এলাকায়।

এই ভাসমান প্রকল্প আরো ৪০ হেক্টর পর্যন্ত সম্প্রসারণের পরিকল্পনা করছে সংশ্লিষ্টরা। খনি থেকে জ্বালানি পণ্যের উত্তোলন কমাতে ও নবায়নযোগ্য জ্বালানির উৎপাদন বাড়ানোর লক্ষ্যে চিলির একটি দ্বীপে স্থাপন করা হয়েছে ভাসমান সৌরবিদ্যুৎ প্রকল্প।

লস ব্রোসেস খনিতে পরীক্ষামূলকভাবে লাস টরটোলাস নামে ভাসমান সৌর বিদ্যুৎ উৎপাদন প্রকল্প চালু করে খনি ও জ্বালানি খাতের প্রতিষ্ঠান অ্যাংলো আমেরিকান। মার্চ মাসের মাঝামাঝিতে এর উদ্বোধন করেন চিলির খনি বিষয়ক মন্ত্রী বাদলো প্রোকুরিসা।

বিদ্যুতের চাহিদা পূরণে সহায়ক হবে এ প্রকল্প। একইসঙ্গে পানির কার্যকর ব্যবহার নিশ্চিত হবে। কর্তৃপক্ষ জানায়, বিশ্বব্যাপী নবায়নযোগ্য জ্বালানির উৎপাদন ও ব্যবহার বাড়ানোর ধারাবাহিকতায় চালু করা হয়েছে ভাসমান সৌর বিদ্যুৎ উৎপাদন প্রকল্প। আবাসিক এলাকায় বিদ্যুৎ সংযোগও দেয়া হয়েছে এ প্রকল্প থেকে।

১২শ বর্গফুট এলাকায় স্থাপিত এই প্রকল্পে ৮৬ কিলোওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদন হচ্ছে। বিদ্যুৎ সরবরাহ করা হচ্ছে ৭০টির বেশি ঘরে। অ্যাংলো আমেরিকান কর্তৃপক্ষ জানায়, সৌর বিদ্যুৎ প্রকল্প সম্প্রসারণের মাধ্যমে ২০৩০ সালের মধ্যে বিদ্যুৎ খাতে পানির ব্যবহার ৫০ শতাংশ পর্যন্ত কমানো সম্ভব।

কর্মকর্তারা জানান, পরীক্ষামূলক এই প্রকল্পে ব্যবসায়িক সফলতা এলে আরো ৪০ হেক্টর বা ১০০ একর এলাকায় বসানো হবে ভাসমান সৌর বিদ্যুৎ প্যানেল। যার জন্য খরচ হতে পারে আরো আড়াই লাখ মার্কিন ডলার। সংশ্লিষ্টদের দাবি, দেশের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধিতে নানাভাবে অবদান রাখবে এ প্রকল্প।

ভাসমান সৌর বিদ্যুৎ প্রকল্প সম্প্রসারণে নানা প্রণোদনা দিচ্ছে চিলি সরকার। পরিবেশবিদরা বলছেন, বৈশ্বিক তাপমাত্রা কমাতে ভূমিকা রাখবে এই সৌর বিদ্যুৎ প্রকল্প।

খনি থেকে কয়লার মতো জ্বালানি পণ্যের উত্তোলনও কমে যাবে।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

বিজনেস 24 খবর