channel 24

সর্বশেষ

  • চ্যারিটেবল মামলা: হাইকোর্টে খালেদা জিয়ার জামিন আবেদন; শুনানি মঙ্গলবার

  • রয়্যাল রিগ্যালিয়া মিউজিয়াম পরিদর্শন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

  • সরকারের কাছে মানুষের আশা-আকাঙ্ক্ষার পূরণ হয়েছে বলেই...

  • নির্বাচনে ভোটারের সংখ্যা কমেছে: রাজশাহীতে ইসি সচিব

  • অর্থনীতিতে সরকারের ১০০ দিন উদ্যমহীন...

  • বৈদেশিক ঋণের দায় শোধ সামনের চ্যালেঞ্জ: সিপিডি

  • ত্রুটিমুক্ত রেজাল্টসহ ৫ দফা দাবিতে নিউমার্কেট মোড় অবরোধ করে...

  • ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় অধিভুক্ত ৭ কলেজের শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ

  • শ্রীলঙ্কা ট্র্যাজেডি: নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৩২১; আটক ৪০...

  • দেশটিতে পালিত হচ্ছে রাষ্ট্রীয় শোক; জরুরি অবস্থা জারি...

  • আইএসের সাথে মিলে স্থানীয় জঙ্গিগোষ্ঠী এনটিজে হামলা চালায়: মনিরুল..

  • শেখ সেলিমের নাতি জায়ানের মরদেহ আনা হবে কাল: হানিফ

  • ভারতে লোকসভা নির্বাচন: ৩য় দফায় ১১৭ আসনে ভোটগ্রহণ চলছে...

  • গুজরাটের আহমেদাবাদে ভোট দিলেন নরেন্দ্র মোদি

ব্যাংকের বদলে ঘরে টাকা রাখতেই স্বাচ্ছন্দ্য

ব্যাংকের বদলে ঘরে টাকা রাখতেই স্বাচ্ছন্দ্য

ব্যাংকের বদলে ঘরে টাকা রাখতেই স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করছেন মানুষ। খোদ বাংলাদেশ ব্যাংকের পরিসংখ্যান বলছে, ১ বছরে এর পরিমাণ বেড়েছে ১৩ দশমিক ৭ ভাগ। যার প্রভাবে ব্যাংকগুলোতে আমানত প্রত্যাশিত মাত্রায় বাড়ছে না। ব্যাংকারদের ধারণা, আমানতের সুদহার কমে যাওয়া আর মুদ্রা পাচার বেড়ে যাওয়ায় এমনটা হচ্ছে।

টাকার ব্যবসায় কখনো লোকসান হয় না, এমন ধারণা থেকেই ব্যাংকের জন্ম। তবে সাম্প্রতিক সময়ে সে বিশ্বাসে লেগেছে ভাটার টান। লাভ দূরে থাক, একাধিক ব্যাংকে আমানত রেখে আসল টাকা ফেরত পেতেই গ্রাহকদের মাথার ঘাম পায়ে ফেলতে হয়েছে। ফেব্রুয়ারি ২০১৮ থেকে ফেব্রুয়ারি ২০১৯- এই সময়ে মাত্র এক বছরের ব্যবধানে ব্যাংক বহির্ভূত টাকার পরিমাণ বেড়েছে ১৭ হাজার ৬২৪ কোটি টাকা। শতকরা হিসেবে যা ১৩ দশমিক ৭৩ ভাগ।

বিষয়টি উদ্বেগজনক ও পাচারের আশঙ্কা করছেন এবিবির এই সভাপতি।

ঘরে টাকা রাখার প্রবণতায় ব্যাংক খাতে প্রত্যাশিত মাত্রায় আমানত বাড়ছে না, বরং কমছে। গত জুন থেকে ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত আমানত কমেছে ৭ হাজার ৫৬৫ কোটি টাকা। ফলে আমানতের প্রবৃদ্ধি নেমে এসেছে ৮ দশমিক ৩৫ শতাংশে।

অংকে কিংবা সূচকে আমানত প্রবৃদ্ধি কমে যাওয়ার প্রভাব পড়ছে বেসরকারি খাতের ঋণ প্রবৃদ্ধিতে। ফেব্রুয়ারি শেষে যা নেমে এসেছে ১২ দশমিক ৫৪ শতাংশে। এই প্রবৃদ্ধি দিয়ে চলতি বাজেটের প্রত্যাশিত জিডিপি প্রবৃদ্ধি এবং কর্মসংস্থানের লক্ষ্য অর্জন সম্ভব নয় বলে মনে করেন এই অর্থনীতিবিদ।

ব্যাংক খাতের চলমান ধারা আগামীর অর্থনীতির জন্য ঝুঁকিপূর্ণ পরিস্থিতি তৈরি করছে বলেও মনে করেন তিনি।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

বিজনেস 24 খবর