channel 24

সর্বশেষ

  • ছেলে সন্তানের বাবা হয়েছেন আশরাফুল

  • শ্বেতাঙ্গ পুলিশের নৃশংসতায় ৯ রাজ্যে বিক্ষোভ; ৪ পুলিশ অফিসার বরখাস্ত

  • মাটিতে পুঁতে রাখার ১১ মাস পর ব্যবসায়ীর মরদেহ উদ্ধার

  • মাঠে গড়ানোর অপেক্ষায় ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ ও সিরি আ

  • সোমবার থেকে চলবে গণপরিবহন, রোববার নৌযান

  • জন্মের মাত্র একদিনের মাথায় প্রাণঘাতী করোনার সাথে যুদ্ধ

  • লিবিয়ায় ২৬ বাংলাদেশিসহ ৩০ জনকে গুলি করে হত্যা, আহত ১১

  • কর্মস্থলে যোগ দিতে চট্টগ্রামে ফিরছে মানুষজন

  • পার্বত্য জেলাগুলোতে সেনাবাহিনীর খাদ্য সহায়তা অব্যাহত

  • করোনা চিকিৎসায় চট্টগ্রামের বেসরকারি হাসপাতালগুলো পুরোপুরি তৎপর নয়

  • কুষ্টিয়ায় করোনা রোগীদের সেবায় একদল স্বেচ্ছাসেবী

  • চট্টগ্রামে নতুন করে ২‘শ ২৯ জন করোনায় আক্রান্ত

  • আর্চ্যারি ঘিরে স্বপ্ন ও ভবিষ্যত পরিকল্পনা জানালেন রোমান সানা

  • করোনায় সর্বোচ্চ ২৫২৩ জন শনাক্তের রেকর্ড, মৃত্যু ২৩

  • কোভিড-১৯ রোগের চিকিৎসায় হাইড্রোক্সো-ক্লোরোকুইন ওষুধ না রাখার পরামর্শ

কুষ্টিয়ার গড়াই নদীতে ৬শ কোটি টাকার মেগা প্রকল্প

কুষ্টিয়ার গড়াই নদীতে ৬শ কোটি টাকার মেগা প্রকল্প

কুষ্টিয়ার গড়াই নদীতে দু দফায় খননকাজ হলেও, নদী দেখে তা বোঝার উপায় নেই। নিষ্ফল এই খননের পর এবার তৃতীয় দফায়, প্রায় ৬শ কোটি টাকার মেগা প্রকল্প হাতে নিয়েছে কর্তৃপক্ষ। কিন্তু এর সুফল নিয়েও রয়েছে শঙ্কা। স্থানীয়রা বলছেন, সঠিক তদারকি আর প্রকল্পের নয়ছয় রোধ করা না গেলে, জনগণের পয়সা পানিতেই পড়বে।

গড়াই নদীর বিস্তীর্ণ এলাকাজুড়ে জেগেছে চর। পলি জমে বন্ধ হয়েছে পানির প্রবাহ। দেখে বোঝার উপায় নেই, এরইমধ্যে শেষ হয়েছে এর দ্বিতীয় দফা খনন কাজ।

আরও জানতে: নেপাল-ভুটান থেকে জলবিদ্যুৎ আমদানির জন্য অপেক্ষা আরও কয়েক বছর

ভারতে জেল খাটা বাদল ফরাজি প্রকৃতই অপরাধী

চরম হতাশায়ও হাল ছেড়ে দেননি ফিরোজ

পদ্মার প্রধান শাখা নদী সচল করতে তৃতীয় দফায় হাতে নেয়া হয়েছে ৫৯০ কোটি টাকার মেগা প্রকল্প। এতে, নদীর উৎসমুখ তালবাড়িয়া থেকে খোকসা পর্যন্ত ৩৭ কিলোমিটার নদী খনন ও ৭ কিলোমিটার নদী তীর সংরক্ষণ করা হবে।

আগের দু দফার খনন কাজে খুশি নন স্থানীয়রা। প্রত্যাশা অনুযায়ী সুফল না মেলায় হতাশ তারা।

গড়াই নদীর যৌবন ফেরাতে সর্বপ্রথম খনন প্রকল্প হাতে নেয়া হয় ১৯৯৮ সালে, এতে ব্যয় হয় ২ হাজার ৮ শ কোটি টাকা। সুফল না মেলায় ২০০৯ সালে পুনরায় শুরু হয় দ্বিতীয় দফার কাজ। এ দফায় প্রকল্প ব্যয় ৯ শত ৪২ কোটি টাকা। কিন্তু এত অর্থ খরচেরও পরও গড়াই ফিরে পায়নি তার পুরনো রূপ।

কুষ্টিয়া জেলা প্রশাসক মো. আসলাম হোসেন বলছেন, খনন কাজে দুর্নীতি রোধে নেয়া হবে কার্যকরী ব্যবস্থা।

গড়াই নদীর মিঠা পানির প্রবাহ বাড়লে দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের জেলাগুলোতে কমবে নোনা পানির আগ্রাসন। যা সহায়ক  হবে এই এলাকার কৃষি উন্নয়নে।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

বিজনেস 24 খবর