channel 24

সর্বশেষ

  • জুলাইয়ের ২য় সপ্তাহের মধ্যে ঢাকা ওয়াসার পানি পরীক্ষার...

  • প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ হাইকোর্টের

  • কেরাণীগঞ্জে খালেদা জিয়াকে স্থানান্তর সরকারের নতুন ষড়যন্ত্র...

  • এখানে আদালত স্থাপন সংবিধান পরিপন্হি: মওদুদ

  • কুষ্টিয়ায় স্কুল শিক্ষিকাকে ধর্ষণের দায়ে প্রধান শিক্ষক...

  • শরিফুল ইসলামকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ও ১ লাখ টাকা জরিমানা

  • মাদারীপুরের স্কুলছাত্রী ধর্ষণচেষ্টা ও নির্যাতনের মামলায়...

  • পুলিশ সদস্য মোক্তার হোসেন মোল্লা গ্রেপ্তার

  • রিপোর্ট পাওয়ার পরেও দুধে সিসা পরীক্ষা না করায়...

  • বিএসটিআইএর কার্যক্রমে হাইকোর্টের অসন্তোষ

  • সদরঘাটে দখল করে থাকা ২৭টি দোকান উচ্ছেদ করেছে বিআইডব্লিউটিএ

  • সংরক্ষিত নারী আসনে বিএনপির রুমিন ফারহানার মনোনয়ন বৈধ: ইসি

তিন বছরে বায়ুশক্তি থেকে ৭শ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ পেতে চায় সরকার

তিন বছরে বায়ুশক্তি থেকে ৭শ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ পেতে চায় সরকার

আগামী তিন বছরে বায়ুশক্তি থেকে অন্তত ৭শ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ পেতে চায় সরকার। এজন্য, সম্প্রতি দেশব্যাপী চালানো জরিপের ফলাফল কাজে লাগানোর উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। তবে, দেশে দুটি বায়ুবিদ্যুৎ প্রকল্প চালু থাকলেও, নিশ্চিত করা যায়নি এর সঠিক ব্যবহার। এছাড়া, বিপুল বিনিয়োগের উৎস নিয়েও দুশ্চিন্তায় রয়েছে সরকার।

মুহুরী তীরের শান্ত বাতাসে পাখা ঘুরিয়ে বিদ্যুৎ মিলছে বেশ কয়েক বছর ধরে। যদিও, এটি সার্বিক চাহিদা পুরণের ক্ষেত্রে রয়ে গেছে বহু পেছনে। কারণ, এক মেগাওয়াটের কম উৎপাদন ক্ষমতার চারটি পাখার একসাথে সবগুলো ঘোরে না কখনোই। ফলে, এই প্রকল্পের যৌক্তিকতা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছে স্বয়ং টেকসই ও নবায়নযোগ্য জ্বালানি উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ- স্রেডা।

আরও জানতে: চরম হতাশায়ও হাল ছেড়ে দেননি ফিরোজ

বিশ্বে ধান উৎপাদন প্রবৃদ্ধিতে শীর্ষে বাংলাদেশ

চা-কফি নয়, ব্রেকফাস্টে নিন উপকারী বিকল্প

তবে, আশার খবর হলো, নতুন করে বায়ু জরিপ চালানোর পর বড় সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে এই এলাকায়। যেখানে উন্নত প্রযুক্তির মাধ্যমে অল্প সময়ের মধ্যেই উৎপাদন নিয়ে যাওয়া হবে ৫০ মেগাওয়াটে।

মুহুরীরসহ ৯টি স্থানে বায়ুর উপস্থিতি, ধরণ এবং গতিবেগ জানতে নতুন করে জরিপ চালায় স্রেডা। উদ্দেশ্য, এই শক্তি ব্যবহার করে নবায়নযোগ্য জ্বালানির ব্যবহার বাড়ানো। কারণ, সামনের তিন বছরের লক্ষ্যমাত্রা হলো, যুক্ত করতে হবে অন্তত সাড়ে ১১শ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ। অথচ গেলো ৫ বছর তেমন কোনো অগ্রগতি হয়নি মাঠ পর্যায়ে।

বাংলাদেশের অগ্রগতি কম হলেও, বসে নেই অন্য দেশগুলো। কারণ, ২০১৮ সালে বিশ্বব্যাপী বায়ুবিদ্যুৎ যুক্ত হয়েছে ৫৪ হাজার মেগাওয়াট। আর মোট উৎপাদন ছাড়িয়েছে ৬ লাখ মেগাওয়াট। যা মোট বৈশ্বিক চাহিদার ৬শতাংশের মতো। ওয়ার্ল্ড উইন্ড এনার্জি অ্যাসোসিয়েশনের এই হিসাবে কেবল চীন ২০১৮ সালে যোগ করেছে ২৫৯০০। এছাড়া, প্রতিবছরই উৎপাদন বাড়াচ্ছে ভারতসহ ইউরোপের বেশ কয়েকটি দেশ।

দেশের বায়ু বিদ্যুতের সবচেয়ে বড় প্রকল্প কুতুবদিয়ায়; যার উৎপাদন ক্ষমতা মাত্র ২ মেগাওয়াট। তবে, এখানেই অন্তত ১শ মেগাওয়াট উৎপাদন করতে নতুন পরিকল্পনা আছে সরকারের।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

বিজনেস 24 খবর