channel 24

সর্বশেষ

  • ‌আখেরি মোনাজাতে শেষ হলো বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় পর্ব

  • ঢাকা সিটি নির্বাচন: ইসির অযোগ্যতায় তারিখ বিভ্রাট: ফখরুল...

  • ভোটের তারিখ যেদিনই হোক, আমরা প্রস্তুত: তাবিথ...

  • নির্বাচন পেছানোর মাধ্যমে জনদাবির বিজয় হয়েছে: ইশরাক...

  • নির্বাচিত হলে ঢাকাকে আধুনিক নগরী গড়ে তোলা হবে: আতিক

  • নাইমুল আবরারের মৃত্যু: হাইকোর্টে প্রথম আলো সম্পাদক...

  • মতিউর রহমানসহ ৬ জনের আগাম জামিন আবেদন...

  • আদালতের বিষয়, গণমাধ্যমের স্বাধীনতার সাথে সম্পৃক্ত নয়: তথ্যমন্ত্রী

  • তথ্যপাচার ও ঘুষ লেনদেন: পুলিশের ডিআইজি মিজান ও...

  • দুদক পরিচালক এনামুল বাছিরের বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশিট

  • রিফাত হত্যা: আসামি রাকিবুলকে জামিন দিয়েছেন হাইকোর্ট

  • মৌলভীবাজারের বড়লেখা উপজেলার পাল্লাতল চা বাগানে...

  • একই পরিবারের তিন নারীসহ ৫ জনকে হত্যা...

  • পারিবারিক কলহের জেরে এ ঘটনা, ধারণা পুলিশের

ডলার নিয়ে কাড়াকাড়ি

ডলার নিয়ে কাড়াকাড়ি

আমদানি ও বিদেশি ঋণের দায় মেটাতে গিয়ে রীতিমতো হিমশিম খাচ্ছে ব্যাংকগুলো। ফলে ডলার নিয়ে চলছে কাড়াকাড়ি। চাহিদা তীব্র হওয়ায় মাত্র ১ বছরের ব্যবধানে টাকার বিপরীতে ডলারের দাম বেড়েছে ৭ শতাংশ। বিশ্লেষকরা বলছেন, সম্মিলিতভাবে কোনো উপায় বের না করলে ডলার নিয়ে সংকট আরও বাড়বে। যা বাড়িয়ে দিতে পারে বৈদেশিক বাণিজ্যের খরচ।

মাত্র এক বছর আগে এক ব্যাংক থেকে অন্য ব্যাংকের এক ডলারের কিনতে খরচ হলো ৭৮ টাকা ৯০ পয়সা। আর গত ১২ ফেব্রুয়ারি তা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৮৪ টাকা ৫ পয়সা। অর্থাৎ বছরের ব্যবধানে ডলারের তুলনায় টাকার মান কমেছে ৭ শতাংশের বেশি।

এর অন্যতম কারণ বিদেশি ঋণের দায় ও আমাদনি খরচ মেটানোর তো পর্যাপ্ত ডলার নেই ব্যাংকগুলোর হাতে। কারণ ব্যাংকরে লাগামহীন অফশোর ইউনিটের মাধ্যমে বিদেশি ঋণ দাঁড়িয়েছে ৬২ হাজার কোটি টাকারও বেশি। আর চলতি অর্থবছরের প্রথমার্ধ্বে (জুলাই-ডিসেম্বর) আমদানি ব্যয় বেড়েছে ২৯ শতাংশ। অথচ প্রাপ্তির খাতায় রপ্তানি আয় ৭ দশমিক ১৫ শতাংশ এবং রেমিটেন্স ১২ দশমিক ৫ শতাংশ বেড়েছে।

ডলারের সংকট এতোটাই তীব্র যে ইতোমধ্যেই আমদানি ঋণপত্রের দায় কিংবা বিদেশি ঋণের কিস্তি পরিশোধ করতে গিয়ে ব্যাংকগুলোর মধ্যে শুরু হয়েছে অসম প্রতিযোগিতা। এক ব্যাংকের গ্রাহকের রপ্তানি বিল বেশি মূল্যে হাঁকিয়ে নিচ্ছে অন্য ব্যাংক। ইতোমধ্যেই বাংলাদেশ ব্যাংক এই অভিযোগে বেশ কিছু ব্যাংকের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিয়েছে। ব্যাংকাররা বলছেন, এটা স্থায়ী কোনো সমাধান দিতে পারছেন না।

বিশ্লেষকরা মনে করেন, এই অবস্থা নিরসনে বাংলাদেশ ব্যাংক ও বাফেদার সম্মিলিত উদ্যোগ নিতে হবে দ্রুত। তা না হলে ভয়াবহ বিপর্যয় ঘটতে পারে।

অস্থিতিশীলতার জন্য চিহ্নিত ব্যাংকগুলোর বিরুদ্ধে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি নিশ্চিত করা উচিৎ বলেও মনে করেন তিনি।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

বিজনেস 24 খবর