channel 24

সর্বশেষ

  • কিংবদন্তি সংগীতশিল্পী আইয়ুব বাচ্চু আর নেই...

  • রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শোক প্রকাশ...

  • কাল বাদ জুম্মা জাতীয় ঈদ গা মাঠে জানাজা; শনিবার চট্টগ্রামে দাফন

  • মহানবী (সা.)-এর রওজা শরিফ জিয়ারত করেছেন প্রধানমন্ত্রী

  • নতুন কারও সাথে ঐক্যের বিষয়ে এখনও সিদ্ধান্ত হয়নি...

  • প্রয়োজনে জোটের পরিসর বাড়তে পারে: ওবায়দুল কাদের

  • খাশোগি হত্যা: তুরস্কের কাছে অডিও-ভিডিও চেয়েছে যুক্তরাষ্ট্র

পোশাক শ্রমিকদের ন্যূনতম মজুরি ফের সমন্বয় প্রয়োজন

পোশাক শ্রমিকদের ন্যূনতম মজুরি ফের সমন্বয় প্রয়োজন

পোশাক শ্রমিকদের ন্যূনতম মজুরি ৮ হাজার টাকা যৌক্তিক হয়নি। জীবনযাত্রার ব্যয় বা মূল্যস্ফীতির সাথে সমন্বয় করলে তা প্রকৃত অর্থে বেড়েছে ১ হাজার টাকারও কম।

বেসরকারি গবেষণা সংস্থা সিপিডির গবেষণা পরিচালক ড. খন্দকার গোলাম মোয়াজ্জেম মনে করেন, চুড়ান্ত বাস্তবায়নের আগে এই মজুরি আবারো সমন্বয় করা উচিত। বিপরীতে পোশাক কারখানা মালিকরা নিম্নতম এই মজুরিকেও দেখছেন বাড়তি বোঝা হিসেবে।

সুঁই সুতোয় অবিরাম স্বপ্ন বুনন এমন ৩৬ লাখ শ্রমিকের হাত ধরে এগিয়ে চলা দেশের শীর্ষ রপ্তানি খাত তৈরি পোশাক। যার মাধ্যমে আদায় হচ্ছে মোট রপ্তানির ৮৪ শতাংশ। তবে সবচেয়ে বড় এ খাতের শ্রমিকের জীবনমান আর মজুরি নিয়ে বছরের পর বছর চলে দরকষাকষি।

প্রায় ৫ বছর পর নিম্নতম মজুরি বোর্ডের পঞ্চম সভায় শ্রমিকের ন্যূনতম মজুরি  ২ হাজার ৭শ টাকা বাড়িয়ে নির্ধারণ করা হয় ৮ হাজার টাকা। সিপিডির এই গবেষণা পরিচলক বলছেন, ৫ বছরে মূল্যস্ফীতি হয়েছে ৩২ শতাংশ। ফলে জীবনযাত্রার ব্যয় বা মূল্যস্ফীতির সাথে তুলনা করলে আদতে প্রকৃত মজুরি বেড়েছে ১ হাজার টাকারও কম।

সিপিডির গবেষণা বলছে, একজন শ্রমিক পরিবারের জীবনধারণের জন্য মাসিক গড় খরচ ২২ হাজার ৪৩৫ টাকা। বিপরীতে আয় অর্ধেকেরও কম। ফলে ধার দেনা করেই বেঁচে থাকার উপায় খুজে নিতে হয় শ্রমিক পরিবারগুলোকে। তাই নূন্যতম এই মজুরি পুনর্বিবেচনার আহ্ববান।

মজুরি বাড়ানোর ক্ষেত্রে বরাবরই নানা যুক্তি থাকে মালিকপক্ষের। বিজিএমইএ সভাপতি বলছেন, ডিসেম্বর থেকে নূন্যতম মজুরি ৮ হাজার টাকা বাস্তবায়ন হলে, টিকে থাকা অসম্ভব হবে মালিকদের।

রপ্তানির শীর্ষ খাত হলেও এখনো ওষুধ, ট্যানারি, নির্মাণসহ অন্য রপ্তানিমুখী শিল্পের তুলনায় মজুরিতে সবচেয়ে পিছিয়ে পোশাক খাত।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

বিজনেস 24 খবর