channel 24

সর্বশেষ

  • মাওলানা সাদ সমর্থকদের ইজতেমার আখেরি মোনাজাত...

  • মঙ্গলবার সকাল ১০টায়: গাজীপুর জেলা প্রশাসক

  • জামায়াত অন্য নামে এলেও জনগণের বুঝতে সমস্যা হবে না: অ্যাটর্নি জেনারেল

  • একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অনিয়মের অভিযোগে...

  • বিএনপির আরও ৪ প্রার্থীর মামলা হাইকোর্টে

  • হল থেকে ভোটকেন্দ্র সরানোসহ সব দাবি আজকের মধ্যে...

  • না মানলে কাল ভিসি কার্যালয় ঘেরাও: বামপন্হি ছাত্র সংগঠনের ২ জোট

  • কিশোরগঞ্জে ২ কলেজছাত্রী ধর্ষণ ও হত্যা: পুলিশ সদস্যসহ ২ জনের মৃত্যুদণ্ড

  • রাজধানীর মগবাজার ফ্লাইওভার থেকে পড়ে যুবকের মৃত্যু

  • নোয়াখালীতে বজ্রপাতে বাবা-ছেলে ও সিরাজগঞ্জে দেয়ালধসে নিহত ২

  • ২১ মে'র মধ্যে দেশের সব টেলিভিশন চ্যানেল...

  • বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ ব্যবহার করবে: অ্যাটকো...

  • আগামী ৬ মাসের মধ্যে পে চ্যানেলে যাচ্ছে দেশের সব টেলিভিশন

  • চট্টগ্রামে চাক্তাইয়ে ভেড়া মার্কেট বস্তিতে আগুন; ৯ জনের মরদেহ উদ্ধার...

  • দুই পরিবারের ৭ ও অজ্ঞাত ২ জন; তদন্তে ৪ সদস্যের কমিটি

  • সংসদে সংরক্ষিত আসনে ৪৯ জনকে সরকারিভাবে বিজয়ী ঘোষণা

  • ৫ হাজার কোটি টাকা আত্মসাতের চেয়ে স্কুল গুরুত্বপূর্ণ...

  • হাইকোর্টের মন্তব্যের প্রতিক্রিয়ায় দুদক চেয়ারম্যান

  • দুর্নীতি রোধে মানুষের মানসিকতার ইতিবাচক পরিবর্তন দরকার: আইনমন্ত্রী

  • মাদক ব্যবসায়ীদের আত্মসমর্পণের নামে সরকার তামাশা শুরু করেছে: ড. মোশাররফ

  • পরাজয়ের ভয়ে ছাত্রদল ডাকসু নির্বাচনে আসতে চাচ্ছে না: ছাত্রলীগ

  • হল থেকে ভোটকেন্দ্র সরানোসহ সব দাবি আজকের মধ্যে...

  • না মানলে কাল ভিসি কার্যালয় ঘেরাও: বামপন্থি ছাত্র সংগঠনের ২ জোট

শ্রম আর প্রযুক্তির মিশেলে সাংহাই সমুদ্র বন্দর এখন শ্রেষ্ঠত্বের কাতারে

শ্রম আর প্রযুক্তির মিশেলে সাংহাই সমুদ্র বন্দর এখন শ্রেষ্ঠত্বের কাতারে

বাণিজ্য সম্প্রাসারণ ও বাজার দখলের প্রতিযোগিতায় টিকে থাকতে যুগের পর যুগ ধরে লড়াই করে চলছে চীন। দেশের পণ্য বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে দেয়ার লক্ষ্যে তৈরী করছে সমৃদ্ধ সমুদ্র বন্দর। সাংহাই বন্দর যেন তারই কথা বলে। শ্রম আর প্রযুক্তি মিশেলে এ বন্দর আজ বিশ্বের অন্যতম শ্রেষ্ঠ বন্দরের তালিকায়।

মেঘের রাজ্য পেরিয়ে বর্ণিল আলোকছটায় উদ্ভাসিত নগরীর নাম সাংহাই।

চীনের বাণিজ্যকে টিকিয়ে রাখতে যে কয়েকটি বন্দর কখনই ঘুমায় না তাদের মধ্যে পোর্ট অব সাংহাই অন্যতম। যাত্রা শুরু ১৬৮৪-তে। সমুদ্রগামী জাহাজগুলো এখান থেকেই ছেড়ে যেতে শুরু করে সূদুর গন্তব্যে। ১৮৪২ সালে খুলে দেয়া হয় আন্তর্জাতিক বাণিজ্যের জন্য।

কালের আবর্তে এ বন্দরটি হয়ে উঠে ইতিহাসের অন্যতম অংশ। বিশ্বযুদ্ধ পরবর্তীকালীন সময়ের পর থেকে আগ্রাসী হয়ে উঠতে থাকে সাংহাই। কসমোপলিটন এ নগরী সবারই নজর কাড়ে। বাড়তে থাকে বিনিয়োগ, বাণিজ্য বসতি লক্ষী যেন ধরা দেয় নিয় গুনে।

বেশ গতিশীলতার সাথে উন্নয়ন ঘটে অবকাঠামোর। ২০০৩ সালে সাংহাই ইন্টারন্যাশনাল পোর্ট গ্রুপ যাত্রা শুরু করে। উশুংকু, ওয়াইগাওকুই আর ইয়াংশান এলাকা যুক্ত হয় পোর্ট অব সাংহাইয়ের সাথে। কন্টেইনার পরিচালন, সক্ষমতা বৃদ্ধি, ভারী কাজের নতুন যন্ত্রাংশের ব্যবহার বাড়তে থাকে। ২০০৬ সালে বিশ্বের তৃতীয় বৃহত্তম বন্দরের সৌভাগ্য জুটে সাংহাইয়ের কপালে। সে বছরই ৫৩৭ মিলিয়ন কার্গো, ২০০৭ সালে ৫৬০, ২০০৮ সালে ৫৮২ ও ২০০৯ সালে ৫৯০ মিলিয়ন টন কার্গো পরিচালন করে এ বন্দর। আর ২০১৭ তে এসো যা ছাড়িয়েছে দ্বিগুণেরও বেশি।

সময়ের সাথে তাল মিলাতে তাই ইয়ানজি নদীর অববাহিকায় বাড়ছে ব্যস্ততা। তবুও থেমে থাকেনি উন্নয়ন। ৩ হাজার ৬১৯ বর্গ কিলোমিটার জায়গার এ বন্দর যেন আজো স্বমহিমায় ঘোষণা দেয় চীনের বাণিজ্য সম্প্রসারণ নীতির।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

বিজনেস 24 খবর