channel 24

সর্বশেষ

  • তাজিয়া মিছিলের নিরাপত্তায় সর্বোচ্চ ব্যবস্থা: ডিএমপি কমিশনার

  • কোটা নিয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে পাল্টাপাল্টি মিছিল

  • একুশ আগস্ট গ্রেনেড হামলার বিচার কাজ শেষ; রায় ১০ অক্টোবর

  • ইভিএম কিনতে ৪ হাজার কোটি টাকার প্রকল্প অনুমোদন একনেকে

  • বিএনপি নেতা আমীর খসরুর সম্পদ অনুসন্ধানে দুদকের অভিযান

  • ২০১৭-১৮ অর্থ বছরে জিডিপি প্রবৃদ্ধি ৭.৮৬ শতাংশ: পরিকল্পনামন্ত্রী

কৃষকদের কাছে ৫১৫ কোটি টাকা পাওনা রাষ্ট্রায়ত্ত্ব ছয়টি ব্যাংকের

কৃষকদের কাছে ৫১৫ কোটি টাকা পাওনা রাষ্ট্রায়ত্ত্ব ছয়টি ব্যাংকের

গেল ২৫ বছরে সারাদেশে প্রায় ২ লাখ কৃষকের বিরুদ্ধে কৃষিঋণের মামলা করেছে রাষ্ট্রায়ত্ত্ব ছয়টি ব্যাংক। যাদের কাছ থেকে পাওনা ৫১৫ কোটি টাকা। গ্রামীণ অর্থনীতির প্রসারে কৃষি ঋণ আদায়ে নমনীয় হওয়ার জন্য ব্যাংকগুলোর প্রতি পরামর্শ বিশেষজ্ঞদের। আর ব্যাংক কর্তৃপক্ষ বলছে, যাবতীয় তৎপরতা কেবল অসৎ কৃষকদের বিরুদ্ধেই।

গেল কয়েকবছর ধরে ব্যাংকিংখাতে জালিয়াতি অনেকটাই পরিচিত দৃশ্য। হাজার হাজার কোটি টাকা লুটে নিয়েছে হলমার্ক, বিসমিল্লাহ গ্রুপসহ নামে-বেনামের বিভিন্ন ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠান। যদিও এসব অনিয়মে জড়িতদের বিরুদ্ধে শাস্তির ঘটনা সামাণ্যই।

তবে, কৃষি ঋণের বেলায় দেখা গেছে এই চিত্রের ভিন্নতা। গেল ২৫ বছরে সারাদেশের প্রায় ২ লাখ কৃষকের নামে মামলা দিয়েছে রাষ্ট্র মালিকানাধীন ছয় ব্যাংক। এদের মধ্যে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি হয়েছে প্রায় ১৩ হাজার কৃষকের নামে। এদের কাছ থেকে ব্যাংকের পাওনা ৫৭৫ কোটি টাকা। গড়ে কৃষকপ্রতি ঋণ দাঁড়ায় ৩০ হাজার টাকার মতো।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের সবশেষ তথ্য বলছে, মামলার তালিকায় শীর্ষে রয়েছে বাংলাদেশ কৃষি ব্যাংক, যাদের মামলার সংখ্যা ৮১ হাজার। আর রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংকের মামলা রয়েছে ২৬ হাজার, যেখানে অগ্রণী ব্যাংকের সংখ্যাটা ২৫ হাজারের ঘরে।

মাঠ পর্যায়ের তথ্য বলছে, এসব কৃষকের অনেকেই কাঙ্খিত ফলন পাননি। কিংবা পাননি উৎপাদিত পণ্যের ন্যায্য মূল্যও। এমন অবস্থায় তাদের গুণতে হচ্ছে বাড়তি সুদের মাশুল। যদিও ব্যাংক কর্তৃপক্ষ বলছে, চেষ্টা করা হচ্ছে নমনীয়ভাবে ঋণ আদায়ের।

বিশ্লেষকরা মনে করেন, ঋণ খেলাপী কৃষকদের আইনের আওতায় আনলেও, রুই কাতলারাও যেন দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি পান-তাও নিশ্চিত করা জরুরি।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

বিজনেস 24 খবর