channel 24

সর্বশেষ

  • পত্রিকার সম্পাদকদের সঙ্গে ঐক্যফ্রন্টের বৈঠক

  • পাকিস্তান সফরে যাচ্ছে না বাংলাদেশ হকি দল

  • বাংলা চলচ্চিত্রের উজ্জ্বল নক্ষত্র পরিচালক সুভাষ দত্ত

  • বলিউডে মুক্তি পেল যেসব ছবি

  • ভাষা আন্দোলন নিয়ে তৌকিরের পরিচালনায় নির্মিত হচ্ছে 'ফাগুন হাওয়ায়'

  • কোপা আমেরিকায় মেসির খেলা নিয়ে অনিশ্চিয়তা

  • উয়েফা নেশন্স লিগে মাঠে নামছে ইউরোপের দেশগুলো

  • চট্টগ্রামে অনুশীলনে ওয়েস্ট ইন্ডিজ

  • ক্যারিবিয়দের বিপক্ষে সিরিজে সাকিব-তামিমের জন্য অপেক্ষায় টিম ম্যানেজমেন্ট

  • চট্টগ্রামে চলছে চাকরি মেলা

  • নরসিংদীর বাঁশগাড়িতে আ.লীগের দুপক্ষের সংঘর্ষে এক শিক্ষার্থীর মৃত্যু

  • নির্বাচনি ইশতেহারে স্বাস্থ্য খাতকে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দেয়ার আহবান

  • রাইড শেয়ারিং অ্যাপ উবারের ১০৭ কোটি ডলার লোকসান

  • মূলার বাম্পার ফলনের পরও লোকসানে লালমনিরহাটের চাষীরা

  • ইতিহাসের সাক্ষী হবার অপেক্ষায় নোয়াখালী শহীদ ভুলু স্টেডিয়াম

নতুন ২৮টি পণ্যের মান সনদ বাধ্যতামূলক করলো বিএসটিআই

নতুন ২৮টি পণ্যের মান সনদ বাধ্যতামূলক করলো বিএসটিআই

নতুন করে আরো ২৮টি পণ্যের মানসনদ বাধ্যতামূলক করেছে বিএসটিআই, যা করতে হবে আগামী ২ মাসের মধ্যেই। তাদের দাবি, দেশিয় পণ্যের সাথে বিদেশি পণ্যের অসম প্রতিযোগিতা ঠেকাতেই এই সিদ্ধান্ত। এতে বিক্রেতাদের মধ্যে উচ্ছাস দেখা দিলেও শিল্প উদ্যোক্তারা বলছেন, বিএসটিআইকে যথাযথ প্রস্তুতি নিয়েই এই বাধ্যবাধকতা দেয়া উচিত ছিল।

পণ্যের মান নিয়ন্ত্রন সংস্থা বাংলাদেশ স্টান্ডার্ড এন্ড টেস্টিং ইনস্টিটিউট -বিএসটিআই  আরো ২৮টি পণ্যে মানসনদ বাধ্যতামুলক করেছে। এনিয়ে সম্প্রতি একটি প্রজ্ঞাপনও জারি করে সরকার।

নতুন করে মুরগীর খাদ্য, মাছের খাদ্য, মুড়ি, মেকারনি, ভার্মিসিলি, চকোলেট, চুইংগাম, সেনিটারি টাওয়েলসহ নানা ধরনের টিস্য, এয়ারকন্ডিশনার, ফ্রিজার, বেবি অয়েল, বেবি শ্যাম্পু, বেবি লোশন, বেবি পাউডার, বেবি ক্রিম, বৈদ্যুতিক  সার্কিট ব্রেকার, স্যানিটারি ট্যাপওয়ার এবং ইমালসন পেইন্ট যুক্ত হওয়ায় বাধ্যতামুলক মানসনদ পণ্যের তালিকা দাড়ালো ১৯৮টিতে।

বিএসটিআই বলছে, স্থানীয় ভাবে উৎপাদিত বা আমদানি করা যেটাই হোক না কেন তালিকায় থাকা পণ্যের লাগবে বাধ্যতামুলক মাণসনদ।

পণ্যের মোড়কে যেসব উপাদানের নাম লেখা আছে তার বাইরেও কোন উপাদান আছে কিনা সেটিকেও আমলে নিতে বিএসটিআইকে আহবান জনস্বাস্থ্য বিজ্ঞানীদের।

বিএসটিআই এর পদক্ষেপে বিক্রেতারা ভ্রাম্যমান অভিযান থেকে  রেহাই পাবেন বলে মনে করছেন। আর ভোক্তার ভাবছেন এতে নিশ্চিত হবে পণ্যের মাণ।

২৮ পণ্যের মাণসনদ নিতে হবে আগামি দুই মাসের মধ্যেই। যাকে অপ্রতুল বলছেন শিল্প উদ্যোক্তারা।

 

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

বিজনেস 24 খবর