channel 24

সর্বশেষ

  • তাজিয়া মিছিলের নিরাপত্তায় সর্বোচ্চ ব্যবস্থা: ডিএমপি কমিশনার

  • কোটা নিয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে পাল্টাপাল্টি মিছিল

  • একুশ আগস্ট গ্রেনেড হামলার বিচার কাজ শেষ; রায় ১০ অক্টোবর

  • ইভিএম কিনতে ৪ হাজার কোটি টাকার প্রকল্প অনুমোদন একনেকে

  • বিএনপি নেতা আমীর খসরুর সম্পদ অনুসন্ধানে দুদকের অভিযান

  • ২০১৭-১৮ অর্থ বছরে জিডিপি প্রবৃদ্ধি ৭.৮৬ শতাংশ: পরিকল্পনামন্ত্রী

সবরকম ব্যবসায় ই-বিআইএন বাধ্যতামূলক করেছে এনবিআর

সবরকম ব্যবসায় ই-বিআইএন বাধ্যতামূলক করেছে এনবিআর

ব্যবসায়ি এবং ব্যবসার ক্ষেত্রে ইলেকট্রনিক্যালি জেনারেটেড বিজনেস আইডেন্টিফিকেশন নাম্বার বা ই-বিআইএন বাধ্যতামূলক করেছে এনবিআর। বিশ্লেষকদের অভিমত, এ পদ্ধতির সঠিক বাস্তবায়ন হলে করের আওতা ও জিডিপি অনুপাত বাড়ার পাশাপাশি বাড়বে কাজের স্বচ্ছতা। এছাড়াও নতুন ভ্যাট আইন বাস্তবায়নের ক্ষেত্রেও এটি হবে একটি ইতিবাচক উদ্যোগ।

কর প্রশাশনের স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা নিশ্চিত করতে ২০১২ সালে প্রণয়ন করা হয় নতুন ভ্যাট আইন। তবে শেষ পর্যন্ত ব্যবসায়িদের আন্দোলন ও দাবির মুখে এর বাস্তবায়ন মুখ থুবড়ে পড়ে। ২০১৬-১৭ অর্থবছরে সরকার ঘোষণা দেয় ২০১৯-২০ অর্থবছর থেকে বাস্তবায়ন হবে এই আইন।

সে পথেই এবার একধাপ এগোলো জাতীয় রাজস্ব বোর্ড, এনবিআর। সম্প্রতি সংস্থার পক্ষ থেকে ঘোষণা দেয়া হয় কাগজ কলমের পুরনো পদ্ধতি থেকে বেরিয়ে এখন থেকে ব্যবসার ক্ষেত্রে অবশ্যই থাকতে হবে ইলেকট্রনিক্যালী জেনারেটেড বিজনেস আইডেন্টিফিকেশন নাম্বার বা ই-বিআইন। ১১ সংখ্যার পরিবর্তে অনলাইন এই বিআইএন করা হয়েছে নয় সংখ্যার। যদিও এর আগে পুরনো পদ্ধতির বিআইএন এর মেয়াদ বাড়ানো হয় তিন দফা।

এফবিসিসিআইএর সাবেক সভাপতির অভিমত, এ উদ্যোগ বাস্তবায়িত হলে স্বচ্ছতার পাশাপাশি বাড়বে করের আওতা। তবে তা নির্ভর করবে এর কার্যকর বাস্তবায়নের ওপর।

এরই মধ্যে আমদানি-রপ্তানি, টেন্ডার, ব্যাংক ঋণ নেয়া এবং পণ্য সরবরাহসহ বেশকিছু ক্ষেত্রে ব্যবসায়ীরা ব্যবহার করছেন বিআইএন।  

সর্বশেষ সংবাদ

বিজনেস 24 খবর