channel 24

সর্বশেষ

  • কোচিং বাণিজ্য: উইলস লিটল স্কুলের ৩০ শিক্ষককে দুদকের শোকজ

  • নাটোরের বাগাতিপাড়ায় সড়ক দুর্ঘটনায় একই পরিবারের নিহত ৩

  • রোহিঙ্গা ইস্যুর সমাধান দীর্ঘায়িত হলে বাংলাদেশ সমস্যায় পড়বে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

  • এসএসসি ও সমমান পরীক্ষাকালীন কোচিং সেন্টার বন্ধ থাকবে: শিক্ষামন্ত্রী

  • জামায়াত ও যুদ্ধাপরাধীর সন্তানরা যেন সরকারি চাকরি না পায়...

  • তার জন্য আইন করতে হবে: মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী

  • সমাজে ব্যাধির মতো ছড়িয়ে গেছে দুর্নীতি: প্রধানমন্ত্রী...

  • সব অপরাধ দমনে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে তৎপর থাকার নির্দেশ

  • ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন নিয়ে সাংবাদিকদের...

  • উদ্বেগের বিষয়গুলো নিয়ে কাজ করছে সরকার: তথ্যমন্ত্রী

  • রিজার্ভ চুরি: চলতি মাসেই নিউইয়র্কে মামলা- অর্থমন্ত্রী

  • হলি আর্টিজান মামলার আসামি জঙ্গিনেতা মামুন ৫ দিনের রিমান্ডে

  • ডিপিডিসির নির্বাহী পরিচালক রমিজ উদ্দিন সরকার ও...

  • তার স্ত্রীর সম্পদের হিসাব দিতে দুদকের নোটিশ

রমজানে পাকিস্তানে বেড়েছে সব ধরনের খাদ্যপণ্যের দাম

রমজানে পাকিস্তানে বেড়েছে সব ধরনের খাদ্যপণ্যের দাম

মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ট অধিকাংশ দেশে বৃহস্পতিবার শুরু হচ্ছে হিজরি সনের পবিত্র মাস রমজান। এই মাস সামনে রেখে ফলসহ সব ধরনের খাদ্যপণ্যের দাম বেড়েছে পাকিস্তানে। এর জন্য সরবরাহকারী, মজুদদার ও ব্যবসায়ীদের দায়ী করছেন স্থানীয়রা। তবে ব্যবসায়ীদের মতে, সরকারের নীতি নির্ধারণী পর্যায়ে দুর্বলতার কারণে অনৈতিক চর্চা করছেন কিছু অসাধু ব্যবসায়ী।

৩ বছর ধরে করাচির ফল বাজারে কাজ করছেন এই শ্রমিক। পারিশ্রমিক কম হওয়ায় বছরের যেকোনো সময় ফল কিনতে পারেন না। রমজানে পরিবারের জন্য ফল কেনার আশায় ছিলেন তিনি। তবে তাতে বাধা হচ্ছে, দ্রব্যমূল্য।

বাজার বিশ্লেষকরা জানান, গেলো ২ মাসের মধ্যে প্রতিদিনই খাদ্যপণ্যের দাম বেড়েছে। সাধারণ মানুষের ক্রয়ক্ষমতার বাইরে চলে যাচ্ছে সব খাদ্যপণ্যের দাম। তবে এর জন্য সরকারকে দায়ী করছেন ব্যবসায়ীরা।

ব্যবসায়ী মুহাম্মদ ইয়াকুব বলেন, 'নিয়ম-নীতি নেই। রমজানে অনেক মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ট দেশে পণ্যের দাম কমে; কিন্তু পাকিস্তানে বাড়ে। রমজানে কয়েকগুণ মুনাফা করেন ব্যবসায়ীরা। এর জন্য জবাবদিহিতাও করতে হয় না। অতি মুনাফা প্রবণতা নিয়ন্ত্রণে মূল্য নির্ধারণ করতে পারে সরকার।'

করাচি চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির সাবেক সভাপতি হারুণ আগার বলেন, 'জোরচুরি সব ক্ষেত্রেই হয়। রমজান শুরুর দুই মাস আগেই পণ্যের দাম ঊর্ধ্বমুখী। ব্যবসায়ীরাই দাম বাড়াচ্ছে; অতিরিক্ত মুনাফা করছে। মূলত চালান কমিয়ে দেয়ায় সংকট দেখা দিয়েছে।'

করাচিসহ দেশের সব বাজার পর্যবেক্ষণের জন্য সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে বিভিন্ন সংগঠন। অনৈতিক কর্মকাণ্ড রুখতে সরকারের হস্তক্ষেপ চেয়েছেন এই ধর্মগুরুও।

ধর্মগুরু মুহাম্মদ নাঈম বলেন, 'অন্যান্য সময়ের চেয়ে ৫ গুণ বেশি দামে বিক্রি হচ্ছে সব ফল। এমন অসাধু আচরণে ভুক্তভোগী নিম্ন আয়ের মানুষেরা। এর জন্য আমাদের রাষ্ট্র ও আইন ব্যবস্থার দুর্বলতাই দায়ী। অপরাধের সাজা হলে অনিয়মের দুঃসাহস দেখাতেন না ব্যবসায়ীরা।'

সর্বশেষ সংবাদ

বিজনেস 24 খবর