channel 24

সর্বশেষ

  • মহান বিজয় দিবসে শহীদদের প্রতি সর্বস্তরের মানুষের শ্রদ্ধা...

  • জাতীয় স্মৃতিসৌধে শ্রদ্ধা জানিয়েছেন রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী...

  • ধানমন্ডি ৩২ নম্বরে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা

  • নির্বাচনি পরিবেশ নিয়ন্ত্রণে আছে, নির্বাচন সুষ্ঠু হবে: সিইসি

  • কোনো অপশক্তি নির্বাচন বানচাল করতে পারবে না: ওবায়দুল কাদের

  • হামলা ও গ্রেপ্তার বন্ধ না হলে পরিস্থিতির দায় সরকারের: ফখরুল

  • ঐক্যবদ্ধভাবে স্বাধীনতার মূল্যবোধ রক্ষা করতে হবে: ড. কামাল

  • মেহেরপুরের স্টেডিয়াম মাঠে বিজয় দিবসের অনুষ্ঠানে...

  • পুলিশের ওপর হামলা; ছাত্রলীগ সভাপতিসহ ৪ জন আটক

চার লাখ ৬০ হাজার কোটি টাকার নতুন বাজেটে গুরুত্ব পাবে শিক্ষা-স্বাস্থ্য খাত

চার লাখ ৬০ হাজার কোটি টাকার নতুন বাজেটে গুরুত্ব পাবে শিক্ষা-স্বাস্থ্য খাত

আসছে বাজেটে বরাবরের মতোই গুরুত্ব পাবে শিক্ষা ও স্বাস্থ্য খাত। যদিও বরাদ্দে এগিয়ে থাকতে পারে পরিবহন ও বিদ্যুৎ-জ্বালানি। বিকেলে চার সংসদীয় কমিটির সাথে বাজেটপূর্ব আলোচনায় এমন আভাস দিলেন অর্থমন্ত্রী।

জানান, পূর্ণ বাস্তবায়নের অধিকার না থাকলেও চার লাখ ৬০ হাজার কোটি টাকার নতুন বাজেট দিতে যাচ্ছে সরকার। এ সময় জনপ্রতিনিধিরা বলেন, বাজেটে বরাদ্দ বাড়ানোর আগে খরচের গুণগত মান নিশ্চিত করতে হবে।
এবারের বাজেট দেয়া হচ্ছে কিছুটা ভিন্ন বাস্তবতায়। কেননা, পুরোপুরি খরচের দায়িত্ব পাচ্ছে না চলতি সরকার। তারওপর, বাস্তবায়নের মাঝপথে নির্বাচন হওয়ায়, জনপ্রতিনিধিদের চাহিদা পূরণেও নজর দিতে হচ্ছে আলাদাভাবে। এমন বাস্তবতায় চার সংসদীয় কমিটির সাথে আলোচনায় প্রতিনিধিরা তুলে ধরেন দেশের সড়ক মহাসড়কের দুরবস্থার কথা। এছাড়া, শিক্ষার মান, চালের দাম নিয়ন্ত্রণ, ব্যাংক খাতের অনিয়মসহ নানা বিষয়ে আসছে বাজেটে স্পষ্ট রূপরেখা চান কেউ কেউ।
এসময় সংসদ সদস্যরা বলেন, এলাকার উন্নয়নে নির্দিষ্ট বরাদ্দ থাকলেও তা ছাড় করা হচ্ছে না সময়মতো। ফলে, সঙ্কটে পড়ছেন জনপ্রতিনিধিরা। এসময়, টিআর-কাবিখার মতো প্রকল্পের দুর্নীতির কথা তুলে ধরে, আসছে বাজেটে এই খাতগুলোতে বরাদ্দ না দেয়ারও প্রস্তাব দেন কেউ কেউ। যাতে সম্মতিও দেন অর্থমন্ত্রী।
এ সময় অর্থমন্ত্রী বলেন, চলতি বাজেট বড় হলেও, বাস্তবায়নের হার যে কোনো বছরের চেয়ে ভালো।

সর্বশেষ সংবাদ

বিজনেস 24 খবর